Sishu Sathi Scheme – পশ্চিমবঙ্গের সকল শিশুদের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর শিশুসাথী প্রকল্প। কি কি সুবিধা পাবেন?

পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী শ্রীমতী মমতা ব্যানার্জির অনুপ্রেরনায় Sishu Sathi Scheme বা শিশু সাথী প্রকল্প নিয়ে দারুণ খবর। এবার থেকে সন্তানের চিকিৎসার কথা আর চিন্তা করতে হবে না বাবা-মাকে। তারা থাকবেন চাপমুক্ত। কারণ পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার সেই শিশুর চিকিৎসার সমস্ত দায়িত্ব বহন করবে। এমনই এক বিশেষ প্রকল্প (Government Scheme) চালু করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee).

Advertisement

West Bengal Sishu Sathi Scheme Benefits.

গরিব মা বাবারা, যারা দুবেলা দুমুঠো খাবার যোগাড় করতে হিমশিম খান, তাদের পক্ষে নিজের সন্তানের শৈশবকালে চিকিৎসার বাড়তি খরচ যোগান দেওয়া মোটেই সম্ভব হয় না। এই কথা চিন্তা করেই সেই সমস্ত গরিব পিতা মাতাকে তার সন্তানের জন্য Sishu Sathi Scheme প্রকল্পের মাধ্যমে আর্থিক সাহায্য তথা চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য। যার মাধ্যমে তারা নিজের সন্তানকে উন্নত ও অত্যাধুনিক মানের চিকিৎসা করিয়ে তাদের রোগমুক্ত করতে পারেন।

Advertisement

Sishu Sathi Scheme – শিশুসাথী প্রকল্প

২০১১ সালের প্রথমবার মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জন কল্যাণের উদ্দেশ্যে কাজ করছেন। তার উদ্যোগে চালু হওয়া মোট প্রকল্পের সংখ্যা এখনো পর্যন্ত ৭৫ টিরও বেশি। এরকমই একটি উল্লেখযোগ্য প্রকল্প হল শিশু সাথী (Sishu Sathi Scheme). ২০১৩ আগস্ট মাসে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসের (World Health Day) দিন মুখ্যমন্ত্রী এই প্রকল্প আরম্ভ করেন।

এর উদ্দেশ্য হলো রাজ্যের শিশুদের একটি রোগ মুক্ত এবং স্বাস্থ্যবান জীবন দান করা। কারণ আজকের শিশুরা আগামী দিনের জাতির ভবিষ্যৎ। তাই তাদের স্বাস্থ্যের উপর খেয়াল রাখা বিশেষ জরুরি। আর ছোটবেলা থেকেই বাচ্চাদের স্বাস্থ্য যাতে ভালো যায় তার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এবারে এই Sishu Sathi Scheme সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

শিশুসাথী প্রকল্পে কি সুবিধা পাওয়া যায়?

মুখ্যমন্ত্রীর শিশু সাথী প্রকল্পে (Sishu Sathi Scheme) সাধারণত শিশুদের হার্ট সার্জারির জন্য আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয়। এ রাজ্যে অনেক এমন শিশু জন্মগ্রহণ করে, যাদের জন্মের অবস্থা থেকেই হার্টে কোনো রোগ থাকে। যেমন কারোর হার্টে ফুটোর সমস্যা, কারোর হার্টে রক্ত চলাচলের সমস্যা, হৃদযন্ত্রের বিভিন্ন প্রকারের সমস্যা, কনজেনিটাল কার্ডিয়াল ডিফেক্ট সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা ইত্যাদি। হার্ট সংক্রান্ত যে কোনো অপারেশনের ক্ষেত্রে আর্থিক সুবিধা দেয় রাজ্য সরকার শিশু সাথী প্রকল্পের (Sishu Sathi Scheme) মাধ্যমে।

Advertisement

কাদের সুবিধা দেওয়া হয়?

১) শিশু সাথী প্রকল্পের (Sishu Sathi Scheme) সুবিধা পাওয়ার জন্য অবশ্যই সেই পরিবারকে দারিদ্র সীমার নিচে থাকতে হবে।
২) শিশুদের জন্মের সময় থেকে শুরু করে ১২ বছর বয়স পর্যন্ত সুযোগ থাকে এই প্রকল্পের দ্বারা বিনামূল্যে চিকিৎসা করানো হয়।
৩) চিকিৎসার পরও কোনও প্রয়োজন হলে সেই বাচ্চাকে ওষুধ ও অন্যান্য খরচ দেওয়া হবে।

কোন কোন হাসপাতালে এর সুবিধা আছে?

  • Sishu Sathi Scheme সুবিধা স্বাস্থ্য সাথীর মতো যে কোন হাসপাতালে চাইলেই উপলব্ধ নয়। কেবল নির্বাচিত কয়েকটি হাসপাতালেই একে গ্ৰাহ্য করা হয়।
  • দুর্গাপুর মিশন হাসপাতাল।
  • কলকাতা বি এম বিড়লা হাসপাতাল (BM Birla Hospital).
  • কলকাতা আর এন টেগোর, ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ কার্ডিয়াক সায়েন্সেস।
  • কলকাতা SSKM হাসপাতাল (PG).
  • কলকাতা RG Kar Medical Collage.
  • কলকাতা বি সি রায় মেমোরিয়াল হসপিটাল ফর চিলড্রেন।
Swasthya Sathi (স্বাস্থ্য সাথী কার্ড প্রকল্প)

এখানে আবেদনের জন্য কি কি নথিপত্র লাগে?

১) শিশুর এবং শিশুর অভিভাবকের আধার কার্ড (Aadhaar Card).
২) শিশুর মায়ের বা অন্য কোনো অভিভাবকের ভোটার কার্ড (Voter ID Card).
৩) পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দার প্রমাণপত্র।
৪) শিশুর অভিভাবকের আয়ের প্রমাণপত্র (Income Certificate).
৫) আবেদনকারীর দুটি পাসপোর্ট সাইজের ফটো।
৬) বিপিএল ক্যাটাগরির রেশন কার্ড (BPL Ration Card).

এই কাজ না করলে যুবশ্রী প্রকল্পে প্রতিমাসে 1500 টাকা পাবেন না। সময় থাকতে করে নিন।

কিভাবে আবেদন করতে হবে?

শিশু সাথী প্রকল্পে (Sishu Sathi Scheme) আবেদন করতে হবে অফলাইনে। অর্থাৎ নির্দিষ্ট ফর্ম নিয়ে, তার সাথে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস দিয়ে ফর্ম জমা করতে হবে। এজন্য অভিভাবকদের যোগাযোগ করতে হবে নিকটবর্তী স্বাস্থ্য কেন্দ্রে গিয়ে সেখানকার হেলথ অফিসারের সঙ্গে। তারপর একটি আবেদনপত্র দেওয়া হবে। সেটিকে পূরণ করে এবং উপরোক্ত ডকুমেন্ট গুলি তার সঙ্গে যুক্ত করে সেটিকে জমা দিয়ে দেবেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে।

আরো পড়তে ক্লিক করুন, বাজেটে বড় ঘোষণা। 11 কোটি মানুষ পাবে 1 লাখ টাকা করে। স্টেট ব্যাংকে একাউন্ট থাকলে আবেদন করুন।

আরো বিশদে জানতে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।
প্রকল্প সংক্রান্ত আরও তথ্য পেতে EK24 News ফলো করুন।
আপনাদের কোনও প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন।
Written by Nabadip Saha.

প্রকাশ হলো প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার নামের তালিকা। কারা বাড়ি পাবেন, জেনে নিন।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment