West Bengal Teachers: সুখবর, দাবি মেনে নিয়ে রাজ্যের শিক্ষক ও অধ্যাপকদের জন্য বড় ঘোষণা শিক্ষা দপ্তরের।

West Bengal Teachers: মেনে নেওয়া হলো শিক্ষক অধ্যাপকদের দাবী।

অতিমারী আবহে ফের বন্ধ হয়ে গেল স্কুল কলেজ। এরই মধ্যে রাজ্যের স্কুল ও কলেজের শিক্ষক অধ্যাপকদের (West Bengal Teachers) জন্য আরেকটি দাবি মেনে পৃথকভাবে সরকারী বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করল রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তর এবং উচ্চ শিক্ষাদপ্তর।

Advertisement

রাজ্যের শিক্ষার কাজের শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মীদের (West Bengal Teachers) ছুটির নিয়ম বা Leave Rules সংশোধন করল পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষা দপ্তর। শিক্ষা দপ্তরের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী এবার থেকে কোয়ারেন্টাইন লিভের (Quarantine Leave) আওতায় পড়বেন সরকার নিয়ন্ত্রিত স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষিকা, শিক্ষা কর্মী, অধ্যাপক এবং অধ্যাপিকারা। কি নিয়ম যুক্ত হলো, দেখে নেওয়া যাক।

Advertisement

এবার কোয়ারেন্টাইন লিভের আওতায় আনা হল রাজ্য সরকার নিয়ন্ত্রিত স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষিকা অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের। গত ৫ জানুয়ারী মঙ্গলবার স্কুল শিক্ষা দফতর ও উচ্চ শিক্ষা দফতর পৃথকভাবে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে নির্দেশিকা জারি করেছে। (West Bengal Teachers)

পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষা দপ্তরের নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে লিভ রুলের আওতায় এবার থেকে SARS, MARS, COVID-19, AVIAN INFLUENZA(H5N1), CRIMEAN CONGO HAEMORRHAGIC FEVER(CCHF) এই ৫টি সংক্রামক রোগকে যুক্ত করা হলো। প্রসঙ্গত এতদিন সরকারি কর্মচারীদের মত কোয়ারেন্টাইন লিভের সুবিধা পেতেন না স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকা এবং কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অধ্যাপিকারা। তাই বহুদিন ধরেই দাবী ছিলো সরকারী কর্মীদের মত শিক্ষক অধ্যাপকদের (West Bengal Teachers) জন্য এই সুবিধা দেওয়া হোক, এবার কার্যত সেই দাবী মেনে নেওয়া হলো।

শিক্ষা দপ্তরের নির্দেশিকার পর এবার থেকে উক্ত ৫ টি রোগের জন্য কোয়ারেন্টাইন লিভের সুবিধা পাবেন শিক্ষক অধ্যাপকেরাও। তবে কত দিনের কোয়ারেন্টাইন লিভ পাবেন তা নির্ভর করবে স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশিকা ওপর। মূলত কোয়ারেন্টাইন লিভের জন্য স্বাস্থ্য দফতরের প্রযোজনীয় নির্দেশিকা রয়েছে। সেই নির্দেশিকা মেনেই কোয়ারেন্টাইন লিভ দেওয়া হবে বলেই নির্দেশিকাতে জানানো হয়েছে। এ নিয়মের ফলে উপকৃত হবেন প্রায় ৫ লক্ষ শিক্ষক, শিক্ষিকা, শিক্ষা কর্মী এবং কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক, অধ্যাপিকা।

Advertisement

আরও পড়ুন, সরকারী কর্মী এবং শিক্ষক শিক্ষিকাদের ছুটির নিয়ম দেখতে ক্লিক করুন

যদিও এই ছুটি গৃহীত হবে কিনা, তা নির্ভর সেই স্কুল কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রধান শিক্ষক বা প্রধান শিক্ষিকা বা কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে প্রিন্সিপাল বা উপাচার্য এর উপর (West Bengal Teachers)। নির্দেশে এমনটাই জানানো হয়েছে।

মূলত রাজ্যে অতিমারী সংক্রমণ যে হারে বাড়ছে সেই দিকে লক্ষ্য রেখেই এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে বলেই দফতরের তরফে জানানো হয়েছে। অন্যদিকে সরকারী কর্মীদের মতো শিক্ষক শিক্ষিকাদের ও West Bengal Health Scheme এর আওতায় আনার দাবী উঠছে। আপনাদের কি মনে হয়, শিক্ষকদের ও কি WBHS Scheme এর আওতায় আনা উচিৎ, নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।

আরও পড়ুন, পশ্চিমবঙ্গে ডিএ নিয়ে বড় খবর

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment