Seva Sakhi Scheme – আবার চালু হলো সেবা সখী প্রকল্প। এই প্রকল্পে প্রতিমাসে প্রায় ৮৫০০ টাকা দেবে রাজ্য সরকার।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে ফের Seva Sakhi Scheme বা সেবা সখি প্রকল্প নিয়ে আসা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (CM Mamata Banerjee) ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে এখনো পর্যন্ত সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষদের জন্য বিভিন্ন ধরণের প্রকল্প (New Govt Scheme) নিয়ে এসেছেন। নতুন বছরে রাজ্যে চালু হলো লক্ষ্মীর ভান্ডারের (Lakshmir Bhandar) চেয়েও বড় প্রকল্প। যার উদ্বোধন করলেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী। এতদিন পর্যন্ত রাজ্যের মহিলারা লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে মাসিক 500 এবং ১০০০ টাকা করে ভাতা পেতেন।

Advertisement

West Bengal Seva Sakhi Scheme Update.

কিন্তু সদ্য চালু হওয়া এই Seva Sakhi Scheme থেকে এরপর সকলে পাবেন প্রতিমাসে ৭৫০০ এবং ৯০০০ টাকা। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী স্পষ্ট হয় যে গ্রাম ও শহর উভয় স্থানের মহিলারাই এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। এর জন্য দরকার হবে না কোন বিশেষ যোগ্যতা বা লাগবেনা কোন রকম টাকা পয়সা। যে চাইবে সেই এই প্রকল্পে (Govt Scheme) নাম লেখাতে পারবে। তাহলে আসুন আর দেরি না করে জেনে নিই বিস্তারিতভাবে।

Advertisement

সেবা সখি প্রকল্প কি

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে ঘোষণা করেছেন এক নতুন প্রকল্পের। যার নাম হল সেবা সখি প্রকল্প (Seva Sakhi Scheme). এই প্রকল্পের মাধ্যমে গ্রাম এবং শহরাঞ্চলের সকল মহিলারাই সুবিধা পেতে চলেছেন। এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হলো একদিকে রাজ্যের বেকার মহিলাদের কর্মসংস্থানের সুযোগ প্রদান করা অন্যদিকে আবার রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বিশেষত গ্রামাঞ্চলে বয়স্ক এবং অসুস্থ মানুষদের স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদান করা।

এই Seva Sakhi Scheme এর মাধ্যমে রাজ্যের বিভিন্ন গ্রামের প্রতিটি ব্লক থেকে ২০ জন করে এবং এবং বিভিন্ন শহরের প্রতিটি পৌরসভা থেকে ২০ জন করে মহিলাকে নির্বাচন করা হবে কাজ শেখানোর জন্য। যে সব কাজের মধ্যে থাকবে ব্লাড প্রেসার মাপা, ওজন মাপা, ইনজেকশন দেওয়া, বিভিন্ন ওষুধ এবং চিকিৎসা বিজ্ঞান সম্পর্কে শিক্ষা, ড্রেসিং ও ব্যান্ডেজ করা এবং আরও অন্যান্য স্বাস্থ্য পরিষেবা সংক্রান্ত কাজ।

এক মাসের একটি প্রশিক্ষণ চলবে এই সব কাজের ওপর। তারপর তাদেরকে একটি শংসাপত্র প্রদান করা হবে সরকারের (Seva Sakhi Scheme) তরফ থেকে। যে শংসাপত্র দেখিয়ে তারা ভবিষ্যতে কর্মসংস্থানের সুযোগ পাবে বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি ক্ষেত্রে। আর পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) সকল বেকার মহিলা কর্মপ্রার্থীদের জন্য এইটা খুবই একটা ভালো সুযোগ বলে মনে করছেন অনেকে।

Advertisement

প্রশিক্ষণ চলাকালীন স্টাইপেন্ড

সরকার সূত্রে এই তথ্য পাওয়া গেছে যে যে সকল মহিলাদের এই Seva Sakhi Scheme আওতায় কাছে শেখানোর জন্য নির্বাচন করা হবে তাদেরকে প্রতি মাসে একটি ভালো অংকের টাকা ভাতা হিসেবে দেওয়া হবে প্রশিক্ষণ চলাকালীন। এক্ষেত্রে যে সকল মহিলারা গ্রামাঞ্চলের বাসিন্দা তাদেরকে দেওয়া হবে ৭৬৫০ টাকা এবং যে সকল মহিলারা শহর অঞ্চলের Seva Sakhi Scheme এর মাধ্যমে বাসিন্দাদের দেওয়া হবে ৯০০০ করে টাকা প্রতিমাসে।

দৈনিক হিসেবে তারা প্রতিদিনের প্রশিক্ষণ শেষে এই বেতন পাবেন। গ্রামের মহিলাদের প্রতিদিন ২৫৫ এবং শহরের মহিলাদের প্রতিদিন ৩০০ টাকা করে দেওয়া হবে স্টাইপেন্ড হিসেবে। আর এই অর্থ তাদের ব্যক্তিগত তথা সাংসারিক জীবন যাপনের মান উন্নত করতে অনেকাংশে সহায়তা (Seva Sakhi Scheme) করবে বলে মনে করে রাজ্য সরকার (Government Of West Bengal).

সেবা সখি প্রকল্প কবে শুরু হতে চলেছে

২০২৩ এর সেপ্টেম্বর মাসে রাজ্য সরকার একটি ঘোষণা মারফত স্পষ্ট করে যে দুর্গাপুজা শেষ হবার পর থেকেই নাকি এই প্রকল্পের (Seva Sakhi Scheme) কাজ শুরু করে দেওয়া হবে। রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিরা রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে সমীক্ষা চালিয়ে সেখানকার স্বাস্থ্য পরিষেবা সংক্রান্ত দিক গুলিকে খতিয়ে দেখবেন এবং সেই সঙ্গে এও বিবেচনা করবেন কোন প্রার্থীরা এক্ষেত্রে নির্বাচিত হবার যোগ্য।

সমীক্ষার রিপোর্ট সরকারের কাছে জমা পড়ার পরই সেই অনুযায়ী নির্বাচিত প্রার্থীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু হবে। সেই মতো এতদিন কাজ এগোচ্ছিল। এখন নতুন বছর পড়তে না পড়তেই এই প্রকল্প রাজ্যে শুরু করার কথা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে সরকার কর্তৃক বলা হয়েছে যে রাজ্যের সর্বত্র এক সঙ্গে এই প্রকল্পের (Seva Sakhi Scheme) কাজ শুরু করা হবে না। প্রাথমিক পর্যায়ে রাজ্যের চারটি জেলার নির্বাচিত ব্লকে পাইলট প্রোগ্রাম শুরু করা হবে এই প্রকল্পের।

SC ST OBC (এসসি এসটি ওবিসি)

দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বারুইপুর, উত্তর ২৪ পরগনা জেলার রাজারহাট, হাওড়া জেলার আমতা এবং পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়া ব্লকে প্রাথমিকভাবে সূচনা করা হবে এই প্রকল্পের (Seva Sakhi Scheme). তারপর আস্তে আস্তে সারা রাজ্য জুড়ে এর কাজ বিস্তার লাভ করবে। তবে এক্ষেত্রে গ্রামাঞ্চলের এলাকা গুলিকে বেশি করে এই প্রকল্পের আওতায় আনার জন্য চেষ্টা চলছে সরকারের তরফে। কারণ গ্রামে স্বাস্থ্য পরিষেবা এমনিতেই অনুন্নত।

বড়দিনে নরেন্দ্র মোদীর নতুন প্রকল্প চালু। এই কাগজ থাকলেই টাকা পাবেন।

ফলে সেখানকার মানুষদের যত বেশি এই প্রকল্পের (Seva Sakhi Scheme) আওতাভুক্ত করা যাবে তত বেশি সেখানকার স্বাস্থ্য পরিষেবা উন্নত হবে। আর এই Seva Sakhi Scheme বা সেবা সখি প্রকল্পের আওতায় রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবা মজবুত হবে তেমনই অনেক বেকার কর্মপ্রার্থীরা নিজেদের পায়ে দাঁড়িয়ে সাবলম্ব হয়ে উঠতে পারবে। এই সম্পর্কে আরও কিছু জানার থাকলে নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।
Written by Nabadip Saha.

প্রধানমন্ত্রীর ‘স্বর্ণিমা প্রকল্পে’ 2 লক্ষ টাকা দিচ্ছে।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment