Advertisement
West Bengal Ration Card Details
Advertisement

Ration Card Details, রেশন সামগ্রী তোলার নতুন নিয়ম।

কেন্দ্র সরকার ও রাজ্য সরকারের যৌথ উদ্যোগে সারা দেশের মত আমাদের রাজ্যেও চলে রেশন ব্যবস্থা (Ration Card Details). আর এই রেশন ব্যবস্থার ফলে উপকৃত হন রাজ্যের বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ। তবে সরকার এই রেশন ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আনার লক্ষ্যে চালু করেছিলো রেশন ও আধারের মধ্যে লিংক্ করার কাজ।

Advertisement

রেশন ও আধারের লিংক করার কাজ প্রায় সফলভাবেই সম্পন্ন হয়েছে। এখন আরও স্বচ্চতা আনার জন্য আরও একটি নতুন সংযোজন হতে চলেছে যা এর আগে মহারাষ্ট্র, বিহারে চালু ছিল। এবার পশ্চিমবঙ্গেও ধীরে ধীরে এই পরিষেবা (Ration Card Details) শুরু হতে চলেছে। চলুন এবার জানি, রেশন তোলার এই নতুন পদ্ধতিটি সম্পর্কে।

রেশন তোলার ক্ষেত্রে নতুন পদ্ধতিটি কী?
এবার থেকে রেশন নিতে (Ration Card Details) গেলে শুধু গ্রাহকদের আঙুলের ছাপ নিলেই চলবে না, আঙুলের ছাপের পাশাপাশি অত্যাধুনিক ইলেক্ট্রনিক পয়েন্ট অফ সেল মেশিনের (e-POS Machine) মাধ্যমে গ্রাহকদের আঙুলের ছবিও নেওয়া হবে। রেশনিং ব্যবস্থা আরও নির্ভুল ও স্বচ্ছ ভাবে রেশন বন্টন পরিচালনা করার জন্যই ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অফ ইন্ডিয়া (UIDAI) অর্থাৎ আধার কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Advertisement

প্রসঙ্গত, এর আগে ই-পস মেশিনের মাধ্যমে শুধু গ্রাহকদের আঙুলের ছাপ নেওয়া হতো। এবার এই মেশিনে স্ক্যানের মাধ্যমে গ্রাহকদের আঙুলের ছাপের ছবি ধরে রাখা হবে। তবে আঙুলের ছবি ধরে রাখার জন্য e-POS মেশিনের সফটওয়্যারে আপডেটের প্রয়োজন এবং তা করতে হবে মেশিনটিকে অবিকলভাবে চালু রেখেই। তবে এই ক্ষেত্রে নেটওয়ার্ক জনিত ত্রুটির কারণে পদ্ধতি বিলম্বিত হচ্ছে।

এই সফটওয়্যার আপডেট নিয়ে অনেক সমস্যা দেখা গিয়েছে বলে রেশন ডিলাররা অভিযোগ করছেন। এদিকে আধার কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে চালু করা নতুন এই নিয়ম অনুসারে পুরোনো রেশন বন্টন পদ্ধতি (Ration Card Details) চালু রেখেই নতুন এই সফটওয়্যার আপডেট করতে হবে। অর্থাৎ, রেশনিং ব্যবস্থায় যেন কোনো রকম বিলম্ব না ঘটে।

EK24 News

একবারে আপডেট না হলে বারংবার চেষ্টা করতে হবে। কিন্তু এই পদ্ধতিতে রেশন দিতে গিয়ে ডিলাররা নানান সমস্যার মুখে পড়ছেন। কখনো রেশন দেওয়ার (Ration Card Details) গতি ধীরে হয়ে যাওয়ায় গ্রাহকদের রোষের মুখে পড়তে হচ্ছে তাদের, আবার কখনও হাতের ছাপই মিলছে না।

Advertisement

আঙুলের ছাপ না মেলাটা অনেকের ক্ষেত্রেই সমস্যা সৃষ্টি করে। কারণ যারা বিভিন্ন রকমের কাজের সাথে যুক্ত তাদের ক্ষেত্রে হাতের আঙুলে বিভিন্ন অবাঞ্চিত দাগ চলে আসে। আবার শিশুদের ক্ষেত্রে আঙুলের ছাপ আপডেট ও করানো থেকে না অনেকেরই। তখন নিরুপায় হয়ে রেশন দেওয়ার পদ্ধতি (Ration Card Details) বন্ধ রাখতে হচ্ছে।

Airtel এর আকর্ষণীয় রিচার্জ প্ল্যান, মিলবে ২১ জিবি ডেটা সাথে অন্যান্য সুবিধাও।

রেশন দেওয়া বন্ধ রাখলে বহু মানুষ নিজের প্রাপ্য রেশন থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এই সমস্যা নিয়ে অবশ্য খাদ্য দপ্তরও নিরুপায়। তাদের কথায় সারা দেশেই আধার কর্তৃপক্ষের কথামতো এই প্রক্রিয়া চালু করা হবে। তাই আমাদেরও রাজ্যে এই পদ্ধতিতে রেশন দিতে হবে। এই নিয়ম না মানলে আধার কর্তৃপক্ষের জরিমানাও মুখে পড়তে হতে পারে পশ্চিমবঙ্গ খাদ্য দপ্তরকে।

উল্লেখ্য, এর আগে আঙুলের ছাপ দিয়ে রেশন (Ration Card Details) তোলার ক্ষেত্রেও বিস্তর সমস্যা দেখা গিয়েছিল। অনেক গ্রাহকের আঙুলের ছাপ না মেলায় তাদের আধার নম্বর দেখে রেশন দেওয়ার (Ration Card Details) কথা জানিয়েছিল খাদ্য দপ্তরের কিছু আধিকারিক। কিন্তু এরকম শুধু আধার নম্বর দেখে রেশন দেওয়ার কোনো লিখিত নিয়ম না থাকায় এই নিয়ম অনুযায়ী রেশন দিতে গিয়ে পরে আবার খাদ্য দপ্তরেরই উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের শো-কজের মুখে পড়তে হয় রেশন ডিলারদের একাংশকে।

Advertisement

এই রেশন ব্যবস্থা নিয়ে ক্ষোভের পাশাপাশি রেশন ডিলাররা জানিয়েছেন, নতুন এই প্রক্রিয়ায় গ্রাহকদের সমস্যা হচ্ছে বোঝা যাচ্ছে। তবে এক্ষেত্রে আমাদের কিছুই করার নেই। তাই রেশন সামগ্রী বন্টনের জন্য নতুন এই পদ্ধতি কতোটা কার্যকরী হবে তা নিয়ে প্রশ্নই থেকে যায়। তবে বিষয়টি বাস্তবায়িত করে তুলতে পারলে অনেকটাই সফলতা আসবে। এমন সব আপডেট পেতে আমাদের সাথে থাকুন। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

এবারে নকল আধার কার্ড নিয়েও নতুন করে সক্রিয় হলো কেন্দ্রীয় সরকার। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে প্রায় সাড়ে ছয় লক্ষ আধার কার্ড কে বাতিল (Aadhaar Card Cheak) বলে ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। এই সমস্ত আধার কার্ড ছিল একেবারে নকল আধার কার্ড। এগুলো বিভিন্ন ভুয়ো এজেন্টরা তাদের নিজস্ব প্রযুক্তি দিয়ে তৈরী করে বাজারে ছেড়েছিল। বিস্তারিত পড়তে নিচে ক্লিক করুন।

বাতিল ৬ লক্ষ আধার কার্ড, আপনারটা এখান থেকে চেক করুন

Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement