Primary TET 2016 পুরো প্যানেল বাতিলের সম্ভাবনা, বেআইনি ভাবে নিযুক্ত 15000 শিক্ষক কে চিহ্নিত।

গত ১ বছর ধরে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি ইস্যুতে কোণঠাসা রাজ্য। বিশেষ করে Primary TET 2016 প্যানেল নিয়ে অভিযোগ সবচেয়ে বেশি। অর্থাৎ 2017 থেকে 2021 সাল পর্যন্ত নিযুক্ত প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে সবচেয়ে বেশি দুর্নীতি হয়েছে বলে দাবি, ইডি এর। ইতিমধ্যেই তারা ১৫০০০ শিক্ষক কে চিহ্নিত করেছেন, যারা বেআইনি ভাবে চাকরি পেয়েছে। আর এই রিপোর্ট কার্ড দেখে কার্যত মহা সমুদ্রে হাবুডুবু খাচ্ছেন ক্ষোদ বিচারপতি। তাই পুরো প্যানেল বাতিলের কথা নিজেই তুললেন। আর এই বিবৃতির পর কার্যত দিশেহারা প্রাথমিক শিক্ষকেরা।

Advertisement

দুর্নীতি নিয়োগ মামলায় আবার ভৎর্সনার মুখে রাজ্য সরকার। এদিন হাইকোর্টের শুনানিতে Primary TET 2016 বা ২০১৬ সালের চাকরির প্যানেলের কথা উঠে আসে। ২০২২ সালে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রথম চাকরি থেকে মন্ত্রী পরেশ অধিকারির মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীকে বরখাস্তের নির্দেশ দেয় বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তারপর রাজ্যের রাজনৈতিক অবস্থায় মন্ত্রীসভার ঘুম কেড়ে নেওয়ার মতো একের পর এক পরিবর্তন এসেছে।

Advertisement

West Bengal Primary TET 2016:

বারবার রাজ্যের হেভিওয়েট নেতা মন্ত্রীর নাম উঠে এসেছে। তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী থেকে বোর্ড সভাপতি কার নাম জড়ায়নি! এখন মামলাকারীদের দাবি Primary TET 2016 প্যানেল বাতিল হোক। এই বিষয়ের সাথে যদিও এখনও সহমত পোষণ করেননি বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বেঞ্চ। তবে এখনো পর্যন্ত মোট চাকরি হারিয়েছেন ৪৭৮৪ জন । আর ইডি এর কাছে এখনও পর্যন্ত ১৫ হাজার শিক্ষকের তালিকা (সুত্র বর্তমান পত্রিকা ২৪ মার্চ, ২০২৩) রয়েছে।

বিগত ১০ই মার্চ শুক্রবারই আবার চাকরি বাতিলের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। গ্রুপ সি এর ৮৪২ জনের চাকরি বাতিলের নির্দেশ দেন কিন্তু হাইকোর্টের নির্দেশে বাগ কমিটির জন্য চাকরি হারিয়েছেন ৯৯০ জন কর্মী। এরা সকলেই গ্রুপ সি কর্মী। এখনের সব থেকে সব থেকে বড়ো দাবি অভিযোগকারিদের যে ২০১৬ সালের প্রাথমিকের প্যানেল বাতিল করা হোক।

কিন্তু বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় তা চাইছেনা তাতে তাঁর দাবি এতে যারা স্বচ্ছ ভাবে চাকরি পেয়েছে তাদেরও চাকরি যেতে পারে। তিনি দুর্নীতির মহাসাগরে পড়ে আছেন কিন্তু এখান থেকে আসল রত্ন তাঁকে খুঁজে বের করতেই হবে। অভিযোগকারিদের আইনজীবি বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন, সেটা কী করে সম্ভব? সব OMR শিট পুড়িয়ে দিয়েছে। মূল্যায়ন করবে কী করে! তাতে বিচারপতি বলেন ২০১৪ সালের ভিত্তিতে ২০১৬ সালের প্যানেল (Primary TET 2016) বাতিল করে দেওয়া যায় কিন্তু যোগ্যদের সাথে অবিচার করা হবে। তাতে বিকাশ বাবু বলেন, সম্পূর্ণ প্যানেল বাতিল হলে যোগ্য প্রার্থীদের ডেকে কথা বলা যাবে।

Advertisement

কিন্তু এই লিস্টে সবাই তো ভুয়ো নন। সঠিক ভাবে চাকরি পাওয়া প্রার্থী প্রচুর রয়েছে। অনেকেই উচ্চ শিক্ষিত সম্পন্ন শিক্ষক রয়েছেন। আনন্দবাজারের এক রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৭ সালে নিযুক্ত ৪০০০০ শিক্ষকের মধ্যে একাধিক নাম ছিলো যারা PHD করেছেন। তাই এটা বলা সম্ভব নয় যে পুরো প্যানেলই দুর্নীতিগ্রস্ত। আর দেশের সংবিধান, নির্দোষ কে শাস্তি দেওয়া সমর্থন করে না।

প্রসঙ্গত, ২০২২ সালের মে জুন মাসে গ্রুপ ডির ৬০৯ জনকে চাকরি থেকে বহিষ্কার করা হয়। ২০২৩ সালের ১০ই ফেব্রুয়ারি আবার গ্রুপ ডির ১৯১১ জনকে চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয় এবং তাদের বেতন ফেরতও দিতে বলা হয়েছে তিন সপ্তাহের মধ্যে। এসবের মধ্যে রাজ্যের অবস্থা খুবই দিশেহারা। এক দিকে রাজ্যের ডিএ মামলা তারপর একের পর এক দুর্নীতিতে রাজ্য সরকারের নাম বারবার জড়িয়ে পড়া। ১০ই ফেব্রুয়ারিতে নবম- দশম শ্রেণীর ৮১৫ জনের চাকরি গেছে আরো। নবম দশম মিলে সংখ্যাটা ৯৫২ জনে গিয়ে দাঁড়িয়েছে, এর মধ্যে ৮০৫ জনকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

এপ্রিল থেকে সরকারের নতুন প্রকল্প, কি কি সুবিধা পাবেন জেনে নিন।

এই বরখাস্ত শিক্ষকরা (Primary TET 2016) আবার হাইকোর্টে মামলা করেছে সুব্রত তালুকদার এবং সুপ্রতীম ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে আলাদা কিছু রায় আসেনি। সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ই থাকবে তবে তাদের চাকরি থাকবে কি না তা সর্বশেষ সিদ্ধান্ত নেবে কমিশন। পরে জানানো হয় এসএসসির রায় বহাল থাকবে। এই গ্রুপেরই ৬১২ জন শিক্ষককে অযোগ্য বলে চাকরির সুপারিশপত্র বাতিল করে স্কুল সার্ভিস কমিশন।

সরকারি কর্মচারীদের জন্য বিরাট খুশির খবর, 3 টি বড় ঘোষণা মমতার, সবার আশা পূর্ণ হল।

তবে এই মুহুর্তে মহা টেনশনে রয়েছেন Primary TET 2016 তথা ২০১৭ সালের প্রাথমিক শিক্ষকেরা। কারন ওই ১৫০০০ শিক্ষকের লিস্ট প্রকাশিত হলে প্রায় অর্ধেক শিক্ষকের চাকরি সঙ্কটে পড়বে। আর যদি ১৫০০০ প্রার্থীর দুর্নীতি প্রমানিত হয়, তবে পুরো প্যানেল বাতিল হওয়ার সম্ভাবনা আরও বেড়ে যাবে। কারন, বিজ্ঞ আইনজীবী Primary TET 2016 কে বিকাশবাবু যে সহজে ছেড়ে দেবেন না, সেটা তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন। আর অন্যদিকে মাননীয় বিচারক এর শেষ দেখে ছাড়বেন, একপ্রকার প্রতিজ্ঞা করে বসেছেন। আর এই পর্যায়ে যবনিকা পতন কিভাবে হয়, সেটাই দেখার।
প্রতিবেদক, বকলম।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment