পুজোর আগেই West Bengal এর 3 লাখ কর্মীদের বেতন ভাতা ঘোষণা, মোট বরাদ্দ কত, কত টাকা বাড়লো?

West Bengal – আশা কর্মীদের জন্য নয়া সিদ্ধান্ত রাজ‍্য সরকারের, দেখুন।

সামনেই পুজো, আর এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) বিভিন্ন কর্মীদের জন্য নতুন ঘোষণা রাজ্য সরকার। কর্মী মহলের দাবি অনুযায়ী বিভিন্ন খেত্রের কর্মীরা সঠিক বেতন থেকে বঞ্চিত। আর এরই মধ্যে রাজ্য সরকারের বিশেষ ঘোষণা।

Advertisement

চোখের আলো কর্মসূচিতে জোর দিতে চাইছে রাজ্য সরকার (West Bengal). এই প্রকল্পের মূল লক্ষ্য হলো অন্ধত্ব দূর করা। 6 থেকে 18 বছর বয়সি ছেলে মেয়েরা এবং 45 উর্দ্ধ ব্যাক্তিদের ছানি সংক্রান্ত চোখের সমস্যা দূর করার জন্য বিনামূল্যে অপারেশন সহ চিকিৎসার সুবিধা রয়েছে এই চোখের আলো প্রকল্পে।

Advertisement

ন্যাশনাল কন্ট্রোল ফর কন্ট্রোল অফ ব্লাইন্ডনেস ইন ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে এই কর্মসূচি রূপায়ণে উদ্যোগী হচ্ছে রাজ্য সরকার (West Bengal). যদিও দীর্ঘদিন ধরেই এই প্রকল্প চালু রয়েছে। কিন্তু স্বাস্থ্য দপ্তরের রিপোর্ট থেকে দেখা যাচ্ছে,14 টি জেলা এবং স্বাস্থ্য জেলার মধ্যে চোখের আলো প্রকল্পে কোনো জেলাই 50 শতাংশ পর্যন্ত লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে পারেনি।

1 সেপ্টেম্বর থেকে পাবেন না লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প এর টাকা, কাদের জন্য, লিস্ট দেখুন।

মালদায় মাত্র 3 শতাংশ এবং পুরুলিয়া মাত্র 4 শতাংশ ছানি অপারেশন করেছে এই প্রকল্পে। তবে উত্তরবঙ্গের কয়েকটি জেলা তুলনামূলক একটু ভালো কাজ করেছে (West Bengal). কিন্তু কোনোভাবেই সেই লক্ষ্যমাত্রা 20 শতাংশ পর্যন্ত পূরণ হয়নি। তাই এবার এই প্রকল্পকে গুরুত্ব দেওয়ার জন্য রাজ্য সরকার নতুন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

আশা কর্মীদের Motivator বা Mobilizer হিসেবে নিয়োগ করতে চাইছে সরকার (West Bengal). নির্দিষ্ট কাজের ফাঁকে আশা কর্মীরা পাড়ায় পাড়ায় গিয়ে খোঁজ করবেন, কাদের ছানি সংক্রান্ত চোখের দৃষ্টিশক্তির সমস্যা রয়েছে।

Advertisement

এই কাজের জন্য আশা কর্মীদের রোগী পিছু 350 টাকা করে উৎসাহ ভাতা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে সরকার (West Bengal) ন্যাশনাল হেলথ মিশনের পক্ষ থেকে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে, পাড়ায় পাড়ায় গিয়ে চোখে ছানি পড়া রোগীদের শুধুমাত্র খোঁজ করবেন না আশা কর্মীরা, তাদের সুস্বাস্থ্য কেন্দ্রে আনতে হবে।

অপারেশনের ব্যবস্থা করতে হবে। চিকিৎসা পরিষেবা দিতে হবে। অপারেশনের এক মাস পরে সংশ্লিষ্ট চোখের চিকিৎসককে দেখানোর জন্য আশা কর্মীরা ওই রোগীকে সুস্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসবেন‌ (West Bengal) যদি কোনো কারনে রোগীকে একাধিকবার ডাক্তারের কাছে নিয়ে আসতে হয়, তাহলে প্রতিবার 150 টাকা করে ভাতা দেওয়া হবে আশা কর্মীদের।

শুধু তাই নয়, কোনো স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা যদি রাজ্য সরকারের (West Bengal). সঙ্গে চোখের ছানি অপারেশনের জন্য শিবির করেন, সেখানে আশা কর্মীরা রোগী নিয়ে আসলে তাদেরকেও আর্থিক সাহায্য করা হবে।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, একটু খোঁজ করলেই দেখা যাবে, এমন বহু মানুষ রয়েছেন, যারা ইতিমধ্যে চোখের ছানি সংক্রান্ত অপারেশন করিয়েছেন, তারা যথেষ্ট বেশি পরিমাণে টাকা দিয়ে বিভিন্ন চিকিৎসা কেন্দ্র থেকে অপারেশন এবং চিকিৎসা করিয়েছেন (West Bengal) চোখের আলো প্রকল্পের মত একটি গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচি থাকলেও তা কেন এতদিন পর্যন্ত বাস্তবায়িত সেই অর্থে হয়নি? এর কারণ কি? এই বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা দরকার।

ভারতে লঞ্চ হচ্ছে Jio 5G, কত রিচার্জ করতে হবে, কারা পাবেন ফ্রিতে?

তবে চোখে ছানি রয়েছে এরকম রোগী খোঁজার জন্য যে দায়িত্ব আশা কর্মীদের দেওয়া হচ্ছে, তা যাতে সঠিকভাবে বাস্তবায়িত হয় সেই দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
Rajib Ghosh.

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment