WBBPE Question Leak – টেট পরীক্ষার আগেই পর্ষদের প্রশ্ন ফাঁস, ফের অস্বস্তিতে পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

রাজ্য সরকার এবং প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের তথা WBBPE এর ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য চেষ্টা চালানো হয়েছে, এই অভিযোগ করেছেন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল। তিনি আরো বলেন, পর্ষদ এই অভিযোগ হালকা করে নিচ্ছে না। তদন্ত কমিটি তৈরি করা হচ্ছে। ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত হলে যথাযথ পদক্ষেপ করা হবে। তবে পরীক্ষার্থীদের কোনো ক্ষতি হবে না। আগামী দিনে পর্ষদ যদি এই বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয় পরীক্ষার্থীদের কোনো সমস্যা হবে না।

Advertisement

WBBPE D.El.Ed এর প্রশ্ন ফাঁস, কি পদক্ষেপ নিচ্ছে পর্ষদ?

WBBPE D.El.Ed ২০২০ – ২২ শিক্ষাবর্ষের ফাইনাল পরীক্ষার প্রথম দিনে প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার দুপুর ১২টা নাগাদ WBBPE D.El.Ed কোর্সের ফাইনাল পরীক্ষা শুরু হয়। দুপুর ২টো পর্যন্ত সেই পরীক্ষা চলে। তার আগেই সকাল ১০ টা ৪৭ মিনিট নাগাদ হোয়াটসঅ্যাপে ডিএলএড কোর্সের ফাইনাল পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ছড়িয়ে পড়ে। পরীক্ষা কেন্দ্রে যে প্রশ্নপত্র দেওয়া হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপে ছড়িয়ে দেওয়া প্রশ্নপত্র দুটোই এক বলে দাবি করা হয়েছে।

Advertisement

শিক্ষা ক্ষেত্রে নিয়োগ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অপসারিত সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যকে গ্রেপ্তার করার পর WBBPE D.El.Ed কলেজে ভর্তির জন্য টাকা নেওয়ার বিষয়টি নজরে আসে, এমনটাই দাবি করেছে ই ডি। তাদের আরো দাবি, ২০১৮ থেকে ২২ পর্যন্ত তিনটি শিক্ষাবর্ষে যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা ডিএলএড প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য ভর্তি হয়েছেন তাদের কাছ থেকে নিয়মিতভাবে টাকা নেওয়া হয়েছে।

প্রাইমারী টেট পরীক্ষার্থীদের সুবিধার্থে পরীক্ষার হলে বিরাট সুবিধা

অপসারিত সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যের ঘনিষ্ঠ তাপস মন্ডল দাবি করেছেন, পড়ুয়াদের অফলাইনে D-El-ed কোর্সে ভর্তির জন্য প্রায় ২১ কোটি টাকা নেওয়া হয়েছে। যে ৬০০টি কলেজ রয়েছে D.El.ed প্রশিক্ষণের জন্য, সেখানে অফলাইনে ভর্তি করার জন্যই ওই টাকা নেওয়া হতো বলে জানা গিয়েছে। আর এই প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে উঠতে শুরু করেছে রাজনৈতিক তরজা।

BECIL এর বিভিন্ন পদে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক পাসেই কর্মী নিয়োগ।

এছাড়া কয়েকদিন পরই WBBPE Primary TET টেট পরীক্ষা। সেই পরীক্ষার প্রশ্ন নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। প্রসঙ্গত ২০১৪ সালে ও পরীক্ষা শেষের আগে প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছিল। যদিও তার আগেই পরীক্ষার্থীরা হলে ঢুকে গেছিল বলে পরীক্ষা বাতিল করেনি আদালত।

Advertisement

প্রতিদিন সহজ প্রশ্নের উত্তর দিয়ে অনলাইনে 500 টাকা রোজগার করুন, ছাত্র, বেকার, গৃহিণী

এই পরিস্থিতির মধ্যেই এবার ডিএলএড কোর্সের ফাইনাল পরীক্ষার প্রথম দিনেই প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এই প্রসঙ্গে পর্ষদ সভাপতি গৌতম পাল বলেন, প্রশ্ন ফাঁস নয়, সরকার এবং পর্ষদের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য চেষ্টা চালানো হয়েছে। নিয়ম মেনে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। তবে আগামী দিনে অনৈতিক কোনো কাজ হলে পর্ষদ কঠোর পদক্ষেপ করবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।
Written by Rajib Ghosh.

সব মেয়েরা পাবে 1 লক্ষ 50 হাজার টাকা স্কলারশিপ।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment