Primary TET – টেট পরীক্ষা শুরুর আগেই পুরনো নিয়োগ নিয়ে নতুন জটিলতা। স্বপ্নভঙ্গ হবু শিক্ষকদের।

পশ্চিমবঙ্গে প্রাথমিক টেট শিক্ষক নিয়োগ (Primary TET) নিয়োগ নিয়ে এক গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে পাওয়া যাচ্ছে। চলতি ডিসেম্বর মাসের শুরুতেই অনুষ্ঠিত হতে চলেছে প্রাথমিক টেট পরীক্ষা ২০২৩ (Primary TET Exam 2023). কিন্তু সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court Of India) নির্দেশে জটিলতা তৈরি হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের (Primary Teacher Recruitment) ক্ষেত্রে। আর এই জটিলতার জন্যই হয়তো চার হাজার চাকরির প্রার্থী চাকরির সুবিধা থেকে বঞ্চিত হতে পারে।

Advertisement

Primary TET Teacher Recruitment News.

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে (WBBPE) জরুরি তলব জানালো কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court). গত বছরের পর আবার সমগ্র রাজ্যে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে প্রাইমারি টেট পরীক্ষা। পরীক্ষার দিনক্ষণ স্থির হয়েছে ১০ই ডিসেম্বর আর পরীক্ষার সামনেই পরীক্ষাতে বসতে পারবে কিনা সেই নিয়ে উদ্বেগের সঞ্চার হয়েছে কিছু সংখ্যক পরীক্ষার্থীদের মনে।

Advertisement

গত বৃহস্পতিবার অর্থাৎ ৩০ শে নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের রায়ের ভিত্তিতে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে (West Bengal Board Of Primary Education) সিদ্ধান্ত নেওয়ার বার্তা দিয়েছে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Justice Abhijit Ganguly). প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের জটিলতা তৈরি হয়েছে মূলত যে প্রার্থীরা ডিএলএড (D.El.Ed) কোর্স করেছেন তাদের নিয়ে। ২০১৭ সালে, যারা প্রাইমারি স্কুলে চাকরি পেয়েছিলেন তাদের মধ্যে অনেকেই B.Ed প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ছিলেন না।

তাই সেই সমস্ত প্রশিক্ষণহীন প্রার্থীদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য ১৮ মাসের ডি.এল.এড প্রশিক্ষণ কোর্স শুরু করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। ওই সমস্ত চাকরিরত প্রার্থীদের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ওপেন স্কুল (এনআইওএস) থেকে ‘ওপেন অ্যান্ড ডিস্ট্যান্স লার্নিং’ এর মাধ্যমে ১৮ মাসের ডি.এল.এড কোর্স করানো শুরু হয়। অনেক চাকরিরত প্রার্থীরা ইতিমধ্যেই ১৮ মাসের ডি.এল.এড কোর্সটি (Primary TET) কমপ্লিট করেছে।

১৮ মাসের ডি.এল.এড কোর্স করা প্রার্থীদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা এবার Primary TET শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় আবেদন করেছে। কিন্তু এই মুহূর্তে সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছেন যে ১৮ মাসের ডি.এল.এড কোর্স কখনোই ২৪ মাসের ডিএড কোর্সের সমতুল্য হতে পারে না। সেই কারণে যারা ১৮ মাসের ডিএলএড কোর্সটি শেষ করেছে তারা এই Primary TET পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

Advertisement
পশ্চিমবঙ্গের মহার্ঘভাতা তথা DA (Dearness Allowance)

গত ২৮ নভেম্বর উত্তরাখণ্ডের একটি মামলায় সুপ্রিম কোর্ট রায় দান করতে গিয়ে বলে যে যারা ১৮ মাসের ডি এল এড কোর্সটি শেষ করেছে তারা প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় (Primary TET Recruitment) অংশগ্রহণ করতে পারবে না। এই রায়ের নিয়ম মেনে হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে সুপ্রিম কোর্টের আদেশ মেনে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা বলেছে। আগামী ৪ঠা জানুয়ারি এই মামলার শুনানি হবে।

ঐদিন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ কি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে সেই দিকে তাকিয়ে রয়েছে চার হাজার চাকরির প্রার্থী। তবে এর পাশাপাশি অনেক আইনজীবীরাই মনে করছেন যে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের ফলে চাকরির পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত হতে পারেন ১৮ মাসের D.El.Ed কোর্স করা প্রায় চার হাজার প্রার্থীরা। অতএব Primary TET পরীক্ষার আগে এই নিয়ে অনেকেই চিন্তায় রয়েছে, এবারে দেখার অপেক্ষা যে পর্ষদ বা WBBPE এর তরফে কি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
Written by Nupur Chattopadhyay.

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment