Primary TET Exam 2023 – প্রশ্নফাঁস বিতর্কের মধ্যে শেষ হলো পশ্চিমবঙ্গের প্রাইমারী টেট পরীক্ষা। চাকরি কবে হবে?

গতকাল সম্পন্ন হল প্রাইমারি টেট পরীক্ষা ২০২৩ (WBBPE Primary TET Exam 2023). আর পরীক্ষা শেষ হবার আগেই এই বছরের টেট নিয়ে ঘটলো এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা। পরীক্ষা শুরুর এক ঘন্টার মধ্যেই প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ। আবার একদিকে পরীক্ষা হচ্ছে, কিন্তু নিয়োগ হচ্ছে না। যার কারনে যথেষ্ট অনীহা নিয়েই পরীক্ষার্থীরা বসেছিলেন এবারের পরীক্ষায়। তার ওপর এই ঘটনা যথেষ্ট উত্তেজনা ছড়ালো পরীক্ষার্থীদের মধ্যে।

Advertisement

WBBPE Primary TET Exam 2023 News.

২০২৩ এর প্রাইমারি টেটের নিয়োগ (Primary TET Recruitment) হবে কবে? এই নিয়ে প্রশ্নও করা হয়েছিল পর্ষদের ডেপুটি সেক্রেটারির কাছে। তিনি তার মতামত ব্যক্ত করেছেন। তবে পরীক্ষার্থীদের আশঙ্কা, এই বছর টেটে যে কান্ড ঘটলো, তাতে নিয়োগ প্রক্রিয়া হয়ে পড়ল আরও অনিশ্চিত। টেট পরীক্ষা ২০২৩ বিজ্ঞপ্তি (TET Exam 2023 Notification) প্রকাশের সঙ্গেই পর্ষদ (WBBPE) জানিয়ে দিয়েছিল পরীক্ষার সব নিয়ম সম্পর্কে। বলা হয়েছিল, পরীক্ষার হলে কেবল এডমিট কার্ড, পরিচয় পত্র এবং ছবি ছাড়া আর অন্য কিছু নিয়ে প্রবেশ করা যাবে না।

Advertisement

যে কোনো ধরনের সোনার গয়না, হাত ঘড়ি, মোবাইল, সানগ্লাস, কোন খাদ্যদ্রব্য, এমনকি জলের বোতল কিছুই অ্যালাও করা হবে না পরীক্ষার হলে। বায়োমেট্রিক এবং ফেস রিকগনিশন যাচাই করন করে হলে ঢোকানো হয় পরীক্ষার্থীদের। এছাড়াও ছিল আরো একাধিক নিরাপত্তা মূলক ব্যবস্থা। কিন্তু এই সকল কিছু সত্ত্বেও TET Exam 2023 শেষ হবার ঘন্টাখানেক আগেই নাকি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় পরীক্ষার প্রশ্নপত্র। পরীক্ষা শেষ হবার পর পরীক্ষার্থীরা দুটি প্রশ্নপত্রকে মিলিয়ে দেখেন, হুবহু একই।

গতবছর রাজ্যে যে প্রাইমারি টেট পরীক্ষা (TET Exam 2023) অনুষ্ঠিত হয়েছিল তাতে যথেষ্ট নিরাপত্তা ছিল বলে জানানো হয় পর্ষদের রিপোর্টে। পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিয়েছিলেন কোন ঝামেলা ছাড়াই। পরীক্ষার হলে সব রকম নিরাপত্তা তো রাখা হয়েছিল। এছাড়াও কোন প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার মতো দুর্নীতি ঘটেনি সে বছরের পরীক্ষায়। কিন্তু সেই নিয়োগের কাজও এখনো পর্যন্ত এগোয়নি পর্ষদ। দীর্ঘ আট বছরের সমস্ত টেট পরীক্ষার নিয়োগ (TET Exam 2023) আটকে রয়েছে এখনো।

পরীক্ষা তো হলো, নিয়োগ কবে?

কোর্টের নির্দেশে, এই সমস্ত প্রক্রিয়া গুলি শেষ না হওয়া পর্যন্ত নতুন কোন নিয়োগ করা যাবেনা টেটের। আর এদিকে, এই বছরের টেট পরীক্ষায় (TET Exam 2023) এই সমস্যার কারণে নিয়োগ ঠিক কবে হতে চলেছে সে বিষয়ে যথেষ্ট চিন্তিত পরীক্ষার্থীরা। মিডিয়ার তরফে পর্ষদের ডেপুটি সেক্রেটারির কাছে ২০২৩ এর নিয়োগ নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছে। কিন্তু তিনি বলেছেন, প্রতিবছর ডিসেম্বরের মধ্যে টেট নেওয়াটা NCTE (National Council For Teacher Education) এর নিয়মের মধ্যে পড়ে।

Advertisement
School Teacher (পশ্চিমবঙ্গের স্কুল শিক্ষক)

তাই পরীক্ষা (TET Exam 2023) নেওয়াটাই আমাদের কাজ। নিয়োগ কবে হবে সে বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারব না, বলবে আদালত। অন্যদিকে এই বছরের পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসকে কোনভাবেই পর্ষদের অবহেলা বলে মানতে রাজি নন সভাপতি গৌতম পাল। তিনি বলেছেন, ‘আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি যে, কেউ যাতে মোবাইল নিয়ে না ঢোকে, পরীক্ষা নির্বিঘ্নেই হয়। কোনও পরীক্ষার্থী যদি অসৎ উদ্দেশ্যে।

পশ্চিমবঙ্গে আর কেউ বেকার থাকবে না। ঘরে ঘরে চাকরি! ভোটের আগে মাস্টারস্ট্রোক রাজ্য সরকারের।

প্রশ্ন ফাঁস এর অভিযোগ

পরীক্ষা দেওয়ার নাম করে বদনাম করার জন্য অসৎ উদ্দেশ্যে যায় এবং সেটা বাইরে বের করে দেয়। এটা আমরা তো প্রশ্নপত্র বলব না। সরকার ও পর্ষদকে কালিমালিপ্ত করার জন্য এটা করা হয়েছে। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এটা করা হয়েছে। কিন্তু TET Exam 2023 এর এই সকল কারণের জন্যই কয়েক লক্ষ পরীক্ষার্থীরা অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে আগামী সময়ে এমনই মনে করছেন অনেকে।

তবে পরীক্ষা শুরুর এক ঘন্টার মধ্যেই প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠায়, বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী জানান, “লাখ টাকায় প্রশ্ন বিক্রি হয়েছে। এরা কেউ চাকরি পাবে না।”
শুভেন্দু বাবুর এই অভিযোগের পর ফের প্রশ্ন উঠছে, যে এই পরীক্ষা নিয়েও কি ফের মামলা হতে পারে। আর রাজ্যের মন্ত্রী জানান, আমরা চাকরি দিতে চাইছি, কিন্তু এরা মামলা করে আটকে দিচ্ছে। এবার কি হয় এটাই দেখার।
Written by Nabadip Saha.

খাদ্য দপ্তরে গ্রুপ সি ও গ্রুপ ডি কর্মী নিয়োগ। মোট 17500 জনের চাকরি

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment