Kanyashree Prakalpa – কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে আবেদন চলছে। সবাই আবেদন করতে পারবে!!

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি মেয়েদের জন্য কন্যাশ্রী প্রকল্প (Kanyashree Prakalpa) নিয়ে এসেছে। মুখ্যমন্ত্রীর কন্যাশ্রী প্রকল্প আজ দেশের সীমানা অতিক্রম করে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে গেছে। যে সমস্ত ছাত্রীরা আর্থিক সংকটের কারণে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারেন না সেই সমস্ত ছাত্রীদের জন্য এই Kanyashree Prakalpa শুরু করা হয়েছে। আগে স্কুলের ছাত্রীরা কেবল কন্যাশ্রী প্রকল্পের সুবিধা পেয়ে থাকতো বর্তমান সময়ে এই প্রকল্প স্কুলের গণ্ডি ছাড়িয়ে পৌছে গিয়েছে কলেজের গণ্ডিতে অর্থাৎ কলেজ পড়ুয়াড়াও এই প্রকল্পের সুবিধা পেতে পারে।

Advertisement

Kanyashree Prakalpa Apply Details.

Kanyashree Prakalpa তিনটি স্তর রয়েছে K1 ও K2 K3. K1 এর ক্ষেত্রে কেবল মাত্র সদ‍্য Kanyashree Prakalpa নাম নথিভুক্ত করা ছাত্রীরা আবেদন করতে পারে। আবেদন করবার বয়স হল ১৩ থেকে ১৮ এর মধ‍্যে। পাশাপাশি এই প্রকল্পে প্রত‍্যেক বছরে বাৎসরিক অনুদান ছাত্রীরা পাবে। K2 প্রকল্প – যে সকল ছাত্রীর বয়স ১৮ তাদের এই প্রকল্পে আবেদন করা যাবে। পশ্চিমবঙ্গের সকল মেয়েরা এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবে।

Advertisement

এই Kanyashree Prakalpa মাধ্যমে ছাত্রীরা এককালীন ২৫০০০ টাকা সরকারি অনুদান পাবেন। তবে ছাত্রীটিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত থেকে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হবে। K3 প্রকল্প – Kanyashree Prakalpa K3 এর বিশ্ববিদ্যালয়ের স্তরের ছাত্রীরা আবেদন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে ছাত্রীরা প্রতি মাসে সরকারি অনুদানের সুযোগ পাবেন। এই বিষয়ে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

Kanyashree Prakalpa K3 প্রকল্প – যোগ‍্যতা কন্যাশ্রী প্রকল্পে কেবল স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্রীরা আবেদন করতে পারেন। বৃত্তির পরিমান – কলা বিভাগ (Arts) এর ছাত্রীরা মাসে ২০০০ টাকা ও বিজ্ঞান বিভাগ ( সায়েন্স ) এর ছাত্রীদের ক্ষেত্রে প্রতি মাসে ২৫০০ টাকা সরকারি অনুদান পাওয়া যায় প্রয়োজনীয় যোগ‍্যতা গ্র‍্যাজুয়েশনস্তরে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে নূন‍্যতম ৪৫% নম্বর রাখতে হবে। অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.svmcm.wbhed.gov.in.

কন্যাশ্রী প্রকল্প বৃত্তির জন‍্য যোগ‍্যতা

  • আবেদনকারী কে স্নাতকোত্তর কোর্সে পাঠরতা হতে হবে।
  • পূর্ববর্তী বছরের পরীক্ষায় ছাত্রী থেকে ন্যূনতম ৪৫% নম্বর পেয়ে থাকতে হবে।
  • এই প্রকল্পের ক্ষেত্রে বয়সের কোন সীমা নেই।
  • পারিবারিক আয় বছরে ৬০০০০ এর নীচে হতে হবে।

কন্যাশ্রী প্রকল্পে আবেদন পদ্ধতি

১) আবেদনকারী কে প্রথমে www.svmcm.wbhed.gov.in ভিজিট করতে হবে।
২) পাবলিক ইন্সট্রাকশন (ডিপিআই) ট্যাবে গিয়ে ‘কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য আবেদন (K3) এ ক্লিক করতে হবে।
৩) কন্যাশ্রী আইডি, নাম, জন্ম তারিখ, পিতা ও মাতার নাম এন্ট্রি করতে হবে।
৪) আইডি যাচাইয়ের পর আবেদন ফর্ম থেকে তথ্য আপডেট করা যেতে পারে আবার নতুন করে রেজিস্টার করে আর একটি আইডি বানানো যেতে পারে।

Advertisement

৫) Kanyashree Prakalpa এডিট অ্যাপ্লিকেশান অপশনে গিয়ে সমস্ত তথ্য আপডেট করে ফটোগ্রাফ এবং স্বাক্ষর আপলোড করতে হবে।
৬) এরপর প্রয়োজনীয় সমস্ত ডকুমেন্টস আপলোড করতে হবে।
৭) রিভিউ অপশনে ক্লিক করে দেখে নেবেন আপনার প্রেরিত সমস্ত তথ্য নির্ভুল আছে কিনা তারপরে সাবমিট বাটনে ক্লিক করে আবেদন সম্পূর্ণ করুন।

কন্যাশ্রী প্রকল্পে গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র

Bangla Shasya Bima (বাংলা শস্য বীমা প্রকল্প)
  1. মাধ্যমিক পরীক্ষার রেজাল্ট এর কপি।
  2. উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রেজাল্ট এর কপি।
  3. স্নাতক স্তরের রেজাল্টের কপি।
  4. স্নাতকোত্তরের যে বর্ষে পাঠরতাটি পড়াশোনা করছেন, তার পূর্ববর্তী বর্ষের পরীক্ষার রেজাল্টের কপি।
  5. আধার কার্ডের কপি।
  6. পারিবারিক আয়ের সার্টিফিকেটের কপি।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নতুন প্রকল্পে পুরুষ মহিলা সবাই 5000 টাকা পাবেন। দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে আবেদন চলছে।

আর এবারে আপনারা এই কন্যাশ্রী প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন। এখনো বর্তমানে সমগ্র রাজ্যে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প (Duare Sarkar Camp) অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আর এই ক্যাম্পের ৩৬ টি প্রকল্পের (Government Scheme) মধ্যে এই Kanyashree Prakalpa অন্যতম। আর যারা এই আবেদন করতে চাইছেন তারা সকলে এই ক্যাম্পে বা নিজেদের বিদ্যালয়ে বা বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে যোগাযোগ করে নিতে পারবেন।
Written By Nupur Chattopadhyay.

জনগনের সুবিধার্থে MyScheme Portal চালু করলো সরকার। কোন সরকারী প্রকল্পটি আপনার

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment