Dearness Allowance – “প্রতিবছর 3% DA” রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য অনুযায়ী জানুয়ারী থেকে আবার বাড়ছে মহার্ঘভাতা?

রাজ্য সরকারী কর্মীদের মহার্ঘভাতা বা Dearness Allowance নিয়ে আন্দোলন অবরোধ, মামলা কিছুই করতে বাকি রাখেন নি। যেখানে কেন্দ্র সরকার ৪৬% DA দিচ্ছে, সেই অবস্থায় দাঁড়িয়ে রাজ্যের কর্মীদের মাত্র ৬%!! আর সেই কারনেই অফিসে না গিয়ে লাগাতার ধর্মঘট ও কলকাতায় অবস্থান কর্মসূচী চালিয়ে যাচ্ছে রাজ্য সরকারী কর্মীদের একাংশ। আর একদিকে হাইকোর্ট ও স্যাট (SAT) ছাপিয়ে মামলা চলছে সুপ্রীম কোর্টে, আর সেই মামলা কবে শেষ হবে তা কেউ জানে না, এর মধ্যেই তাৎক্ষণিক DA পেতে অবস্থান ও অনশন, ধর্মঘট করে সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করে DA আদায়ের পন্থা নিয়েছে সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ তথা রাজ্য সরকারী কর্মীদের একাংশ।

Advertisement

State Government Employees Dearness Allowance

‘অন্যদিকে সুপ্রীম কোর্টে মামলা চলছে’ – এই যুক্তি দেখিয়ে রাজ্য সরকার তথা মন্ত্রী ও আমলারা এই নিয়ে সরাসরি মন্তব্য করতে রাজি নন। কিন্তু তা মানতে রাজি নয় কর্মীদের একাংশ। যার জেরে আন্দোলন চলছে। আর এর মধ্যেই আসছে নতুন বছর। গতকাল আনন্দবাজারে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মানস ভূঁইয়া জানান, আগামী জানুয়ারীতে রাজ্য সরকারী কর্মীদের কর্মী সম্মেলন রয়েছেন, যেখানে উপস্থিত থাকতে পারেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। আর সেখানেই তাঁকে কর্মীদের সুবিধা অসুবিধার (Employee Benefits) কথা জানানো হবে। আর এর পরই জল্পনা উঠছে, তবে কি জানুয়ারীতে ৩% DA আসতে চলেছে।

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য

এদিকে “রাজ্য সরকারী কর্মীদের প্রতি বছর ৩% করে DA দেওয়া হয়।” বেশ কয়েকমাস আগে এক প্রশাসনিক সভায় রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘভাতা (Dearness Allowance) দেওয়া প্রসঙ্গে এমনই মন্তব্য করছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। সেই কারনেই আগামী জানুয়ারি মাস থেকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ফের আরের দফা DA তথা মহার্ঘ ভাতা (Dearness Allowance) ঘোষণা (DA Hike) নিয়ে জল্পনা উঠছে।

এদিকে গতবছর ডিএ ও স্বচ্ছ নিয়োগের দাবীতে টানা অনশন কর্মসূচী চালিয়েছিলেন রাজ্য সরকারী কর্মী ও চাকরিপ্রার্থীদের একাংশ। সেই আন্দোলন কে কার্যত মলিন করতে ৩% Dearness Allowance ঘোষণা করেছিলো রাজ্য সরকার। সেই সাথে কর্মীদের স্মরন করিয়ে দেওয়া হয়েছিলো, বামফ্রন্ট আমলের কথা। যেখানে প্রতিমাসের ১ তারিখে মাইনে আসতো না। এদিকে কেন্দ্র সরকার পেনশন বন্ধ করে দিচ্ছে। সরকারী সংস্থা বেসরকারি করে দিচ্ছে। Dearness Allowance ফ্রিজ করে দিয়েছে। আর পশ্চিমবঙ্গে এখন মাসের শেষ দিনেই আগাম মাইনে একাউন্টে ঢুকে যায়। কর্মীদের স্বাস্থ্যবিমা, বিদেশ ভ্রমন, অতিরিক্ত ছুটি, মায়েদের CCL, ও গর্ভকালীন ছুটি বাড়ানো হয়েছে, পে কমিশন (Pay Commission) দেওয়া হয়েছে।

Dearness Allowance (পশ্চিমবঙ্গে মহার্ঘ ভাতা)

ডিএ মৌলিক অধিকার নাকি দয়ার দান?

গত ২০১৬ সালে স্যাট ও হাইকোর্টে মামলা হয়। যেখানে আদালত ও স্যাট রায় দেয় যে, Dearness Allowance রাজ্য সরকারী কর্মীদের সাংবিধানিক ও মৌলিক অধিকার। তবে সেই মামলা এখনও আদালতে বিচারাধীন। এদিকে আবার গত মাসে বিধানসভায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী জানান, ‘DA বাধ্যতামূলক নয়, ঐচ্ছিক বিষয়।’ আর আদালতে রায় ঘোষণার পরও ফের একবার Dearness Allowance কে দয়ার দান বলায় বেজায় চটেছেন রাজ্য সরকারী কর্মীদের একাংশ।

Advertisement

আরও পড়ুন, পহেলা জানুয়ারী থেকে স্টেট ব্যাংকের নতুন সিদ্ধান্ত। পকেটে টান গ্রাহকদের। খরচ বেড়ে গেল।

জানুয়ারীতে কি সত্যিই DA মিলবে?

রাজ্য সরকারি কর্মীদের দাবী অনুযায়ী বকেয়া DA এর পরিমান কম বেশি ৪০%. রাজ্য সরকারী কর্মীরা আশা করছেন, এই মামলা জিতলে তারা ৪০% বকেয়া Dearness Allowance পেয়ে যাবেন। যদিও সেকথা সত্যি হবে কিনা সেটা সময় ই বলে দেবে। কিন্তু জানুয়ারীতে DA মিলবে কিনা, সেই প্রসঙ্গে বলা যায়, বিগত কয়েক বছরে জানুয়ারী থেকে নুন্যতম ৩ থেকে ৪ শতাংশ Dearness Allowance ঘোষণা হয়েছে।

আর মানসবাবুর সেদিনের বক্তব্য অনুযায়ী জানুয়ারী থেকে Dearness Allowance ঘোষণার একটা সম্ভাবনা রয়েছে। তবে তা মোটেও ৪০% নয়, বরং যদি ঘোষণা হয়, তবে তা ৩ থেকে ৫% এর বেশি নয়। যদিও ঘোষণার আগে পর্যন্ত নিশ্চিত করে সেটাও বলা সম্ভব নয়।
এই বিষয়ে আপনার মন্তব্য নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।
পরবর্তী আপডেট পেতে EK24 News ফলো করুন।

আরও পড়ুন, বকেয়া ভাতা নিয়ে নতুন বছরেই সুখবর? সরকারি কর্মীদের আশা বৃদ্ধি।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment