Civic Volunteer – পশ্চিমবঙ্গের সিভিক ভলেন্টিয়ারদের জন্য বড় খবর। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন।

রাজ্যের সমস্ত সিভিক ভলেন্টিয়ারদের (Civic Volunteer) জন্য সুখবর। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee) এমন এক ঘোষণা করলেন যা শুনে আনন্দিত সমস্ত সিভিক কর্মীরা। কি বললেন তিনি? মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বহুদিন ধরেই রাজ্যের সিভিক পুলিশরা একাধিক দাবি নিয়ে অভিযোগ করে চলেছেন রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। যার মধ্যে রয়েছে বেতন বৃদ্ধি (Salary Hike), বোনাস বৃদ্ধি (Bonus Hike), চাকরিতে বয়স বৃদ্ধি এবং আরো নানা ধরনের দাবি।

Advertisement

Good News For West Bengal Civic Volunteer.

Civic Volunteer দের এই দাবি গুলির মধ্যে অনেক দাবি ইতিমধ্যেই পূরণ করা হয়েছে। এবার বাকি গুলিও শীঘ্রই মেটানো হবে। এই আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী এর আগে নিজের কথা রেখেছিলেন, যার কারনে তার প্রতি এবারেও ভরসা রাখলেন সিভিক পুলিশরা (Civic Volunteer). কি কি দাবি মঞ্জুর করা হবে, জেনে নেওয়া যাক। পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ ওয়েলফেয়ার কমিটির (West Bengal Police Welfare Board) তত্বাবধানে লাটবাগানে আজ একটি কনফারেন্স করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Advertisement

এই সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রায় ৩০ হাজার Civic Volunteer. তিনি। সেখানে সমস্ত কর্মীদের সঙ্গে ফোন মাধ্যমে কথা বলেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “বর্তমান সরকার প্রায় দুই লাখ সিভিক ভলান্টিয়ারকে কাজ দিয়েছে। ৬০ বছরের পর তাঁদের অবসর। তাঁদের ৫ হাজার ৩০০ টাকা করে বোনাস দেওয়া হয়েছে। চাকরিরত অবস্থায় যদি এই সিভিক ভলান্টিয়ারদের (Civic Volunteer) মৃত্যু হয় সেক্ষেত্রে তাঁর পরিবারের সদস্যদের চাকরি দেওয়া হবে।

আপনাদের বহু দাবি ইতিমধ্যেই পূরণ করা হয়েছে। অন্যান্য দাবিও পূরণ করে দেব। কলকাতা পুলিশ ও রাজ্য পুলিশের সিভিক কর্মীদের মধ্যে বেতন বৈষম্য নিয়ে বহুদিন ধরে রাজ্য পুলিশ বিভাগের সিভিক কর্মীরা বিরূপ ছিলেন রাজ্য সরকারের প্রতি। রাজ্যের বিরোধী পক্ষ গুলি তাদের এই ক্ষোভের আগুনে ঘি ঢেলে ছিল। এবছর দুর্গোৎসব এর আগে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এক টুইট মারফত কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police) ও রাজ্য পুলিশের (State Police) সিভিক কর্মীদের মধ্যে বেতন বৈষম্য নিয়ে কটাক্ষ করেন মুখ্যমন্ত্রীকে।

কিন্তু প্রত্যুত্তরে একটি টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী জানান, এবছর সিভিক ভলেন্টিয়ারদের ৫৩০০ টাকা করে বোনাস দেওয়া হবে। তাই তারা যেন কারোর কোন উল্টোপাল্টা কথায় কান না দেন। যাই হোক, সকলেই নিজের একাউন্টে এই বর্ধিত বোনাস লাভ করেছিলেন। তবে শুধু বোনাসই নয়, মুখ্যমন্ত্রী সম্প্রতি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সিভিক কর্মীদের (Civic Volunteer) মাসিক বেতনের পরিমাণ বাড়ানোরও।

Advertisement

নতুন বছরের শুরুতেই তিনি ঘোষণা করেন যে এতদিন পর্যন্ত রাজ্য পুলিশের সিভিক কর্মীরা ৯০০০ টাকা করে বেতন পান প্রতিমাসে। যা কলকাতা পুলিশের সিভিক কর্মীদের থেকে অনেক কম। কিন্তু এরপর থেকে ১৬৫ শতাংশ বোনাস বৃদ্ধি পাবে। আর এই সুবিধা পাবে দুই তরফের সিভিক কর্মীরাই। তিনি আরো বলেন, আগের বছরের মতোই এরপর থেকে প্রতি বছর দুর্গাপুজোয় দুপক্ষের সিভিক পুলিশরাই (Civic Volunteer) ৫৩০০ টাকা করে বোনাস পাবেন।

Electricity Bill (পশ্চিমবঙ্গে ইলেকট্রিক বিল)

এখানেই শেষ নয়, সিভিক ভলেন্টিয়ারদের জন্য আরো অনেক কল্যাণকর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তৃণমূল সরকারের (TMC Government) আমলে সিভিক ভলেন্টিয়ারদের বেশি বেশি নিয়োগ করা হচ্ছে বলে জানেন তিনি। এছাড়াও সিভিক ভলেন্টিয়ারদের (Civic Volunteer) ৬০ বছর পর্যন্ত কাজের মেয়াদ সুনিশ্চিত করা হয়েছে। সেই সঙ্গে অবসরের সময় তাদেরকে থোক টাকা দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

সিভিক ভলেন্টিয়ারদের বেতন বৃদ্ধির ঘোষণা। কাদের কত টাকা বেতন বাড়ল।

এই সমস্ত দাবি পূরণের পর তিনি আজ আবারো সকলকে আশ্বাস দিয়ে বললেন, “অন্যান্য দাবিও পূরণ করা হবে।” এবার দেখা যাক Civic Volunteer দের হিতের উদ্দেশ্যে আর কি কি সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার। আর এই ঘোষণার ফলে রাজ্যের সকল সিভিক ভলেন্টিয়ারদের মুখে হাসি ফুটেছে সেটা বলতে আর বাকি থাকে না। এই সম্পর্কে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন।
Written by Nabadip Saha.

চাকরি না করেও প্রতিমাসে 5000 টাকা পেনশন পাবেন।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment