Advertisement
স্কুল খুললেই শিক্ষকদের জন্য 13 দফার জরুরী নির্দেশ
Advertisement

রাজ্যের স্কুল শিক্ষায় এক অভূতপূর্ব তথা গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিলো পশ্চিমবঙ্গ স্কুল শিক্ষা দপ্তর। স্কুল খুললেই শিক্ষকদের জন্য জরুরী নির্দেশিকা। কি করতে হবে, এই বিষয়ে বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তি আসছে, এক নজরে দেখে নিন।

Advertisement

শিক্ষকদের জন্য 13 দফার জরুরী নির্দেশ

সমাজ জীবনে মহৎ কোনো কাজের ক্ষেত্রে সম্মান মেলে। সম্মানের সঙ্গে যে পুরস্কার দেওয়া হয়ে থাকে তা মূল্যবান। সম্মান পাওয়ার আশা থাকে প্রত্যেকের। এবার সেই দিকে লক্ষ্য রেখে রাজ্য সরকার গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

রাজ্যের স্কুল শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে আধুনিক এক ব্যবস্থা চালু করা হচ্ছে। যেখানে প্রতিটি স্কুলে পালিত হবে Graduation Ceremony. কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের ক্ষেত্রে এই Graduation Ceremony-র নিয়ম রয়েছে। কিন্তু স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের ক্ষেত্রে এতদিন এই নিয়ম ছিল না। এবার রাজ‍্যের স্কুল শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে ১৩ দফা গাইডলাইন দিয়ে বিস্তারিত নির্দেশিকা পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

Advertisement

বহু আবেদনের পর অবশেষে 6% ডিএ ঘোষণা, কেন্দ্রের পর এবার বেতন বাড়ছে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের।

সেই নির্দেশিকা অনুযায়ী, স্কুলের সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা এক ক্লাস থেকে পরবর্তী ক্লাসে উঠলে তাদের এই বিশেষ সম্মান দেওয়া হবে। রাজ্যের প্রতিটি স্কুলে এবার থেকে বুক ডে এর দিনে শিক্ষকদের মাধ্যমে প্রতিবছর ২ জানুয়ারি এই বিশেষ সম্মান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, কালীপুজোর ছুটির পরে স্কুল খুললে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদ সমস্ত স্কুলগুলিতে এই নির্দেশিকা পাঠিয়ে দেবে।

Graduation Ceremony উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রেই মূলত প্রচলিত রয়েছে। তবে বিদেশী স্কুলগুলিতেও এই ধরনের নিয়ম চালু আছে। রাজ্য শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে রাজ্যের সমস্ত স্কুলে এই পদ্ধতি নিয়ে আসতে চাইছে সরকার। এর ফলে ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে যেমন উৎসাহ বাড়বে, ঠিক তেমনি স্কুলে ড্রপ আউট কমে যাওয়ার সম্ভাবনাও থাকবে। এবার দেখে নেওয়া যাক, স্কুল শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে দেওয়া ১৩ দফা গাইডলাইন।

EK24 News

RBI এর হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তের ফল পাবেন SBI গ্রাহকেরা। ভেবে দেখুন, কি করবেন? বিশদে জানুন।

১. জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে এক ক্লাস থেকে পরবর্তী ক্লাসে ওঠা প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের স্কুলের প্রধান শিক্ষক সম্মান জানাবেন।
২. প্রতিবছর ২ জানুয়ারি করতে হবে এই Graduation Ceremony.
৩. সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীদের একসঙ্গে করে শ্রেণী শিক্ষক আনুষ্ঠানিক স্বাগত জানাবেন।
৪. ক্লাস টিচার তার ক্লাসে চকলেট মিষ্টি দিয়ে ছাত্রছাত্রীদের স্বাগত জানাবেন।

Advertisement

৫. নবাগত ছাত্র ছাত্রীরা ক্লাস টিচারকে তাদের পরিচয় জানাবেন।
৬. স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের রাজ্য সরকার যে বই, ইউনিফর্ম, জুতো, স্কুল ব্যাগ, স্বাস্থ্যপরিষেবা, মিড ডে মিল পরিষেবাগুলো প্রদান করছে, ছাত্র-ছাত্রীদের সেই সুবিধা স্কুলের প্রধান শিক্ষক বা ক্লাস টিচার জানাবেন। পাশাপাশি স্কুলের ইতিহাস নবাগত ছাত্র-ছাত্রীদের বলবেন।

৭. প্রত্যেক বছর ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে ক্লাস টিচারের ফটো নিতে হবে এবং সেটা ফটো কর্নারে লাগাতে হবে।
৮. প্রতিটি স্কুলের নির্দিষ্ট ফটো কর্নার থাকবে। যেখানে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীদের জন্ম তারিখ সহ ফটো লাগাতে হবে।

৯. কালচারাল মনিটর, স্পোর্টস মনিটর, ক্লাস মনিটর এবং মিড ডে মিল মনিটরের মনোনয়ন এই সময়সীমার মধ্যে করতে হবে।
১০. এই সময়সীমার মধ্যেই গ্রুপ লার্নিং এর জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের যুক্ত করতে হবে।
১১. প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের প্রধান শিক্ষকের স্বাক্ষর করা একটি ধন্যবাদ জানিয়ে চিঠি দিতে হবে।
১২. ক্লাসের মধ্যে ছাত্র-ছাত্রীদের বসার ব্যবস্থা এমনভাবে করতে হবে তাতে যেন পঠন পাঠন যথেষ্ট ভালো হয়।

Advertisement

বারাসাতের কালীপুজোর সেরা ১০টি মন্ডপ আপনাকে দেখতেই হবে, ঘরে বসে দেখুন।

১৩. সম্মান জানানোর এই অনুষ্ঠান তথ্যচিত্র (Documentary) আকারে তৈরি করতে হবে। স্কুলগুলিকে প্রত্যেক বছর বুকলেট আকারে প্রকাশ করতে হবে।
পুজোর ছুটি শেষ হলেই এই নির্দেশিকা প্রতিটি স্কুলে চলে যাবে।
Written by Rajib Ghosh.

Advertisement
Advertisement
4 thoughts on “পুজোর ছুটি শেষে স্কুল খুললেই শিক্ষকদের জন্য 13 দফার জরুরী নির্দেশ, কাজ শেষ করে প্রমান স্বরুপ ছবি পাঠাতে হবে।”
  1. Class 5theke Class8 porjonto fail koreo paroborti class e otha jai, Class 10 Test Exam.er par sabai M.P.dite jabe etai reoaj,pore roilo 9.
    Thanda ghare bose eisab nirdeshika jari na kore W.B.B.S.E.r adhok committee venge die election er babostha korun,dekhi sarkarer buker pata.

  2. Advertisement
  3. Quality of Education minister or educational committee should be highly educated if any changes required in the education sector,the proposal should be comes from the grass root teacher’s and proposal should be constructive not experimental.
    One more thing is required, no interference from the political side on the education sector

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement