TET 2014 Update – বিপদ আসন্ন, পুরো প্যানেলের 43 হাজার শিক্ষককে ফের নতুন নথি পেশের নির্দেশ, এই ডকুমেন্টস যাদের নেই, তাদের ঘুম ছুটেছে।

TET 2014 Update – সমস্ত শিক্ষকের নথি তলব করল CBI, আর কি জানা গেল।

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির (TET 2014 Update) অভিযোগ নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা চলছে। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই তদন্ত করছে। একের পর এক নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে বহু শিক্ষকের চাকরি বাতিল করা হয়েছে। প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে আদালত একাধিক প্রশ্ন তুলেছে।

Advertisement

এবার প্রাথমিকে নিয়োগ হওয়া সমস্ত শিক্ষকের নিয়োগ (TET 2014 Update) সংক্রান্ত সমস্ত নথি চেয়ে পাঠিয়েছে CBI শীঘ্রই সমস্ত শিক্ষকদের নথি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার কাছে পাঠাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তি জারি করে ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, রাজ্যের 42 হাজার 949 জন প্রাথমিক শিক্ষকের নিয়োগ সংক্রান্ত সমস্ত নথি প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের কাছে পাঠাতে হবে।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গের মাঝারী মেধার পড়ুয়াদের জন্য লঞ্চ হলো নতুন স্কলারশিপ, অনলাইনে করুন আবেদন

কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা CBI চেয়ে পাঠিয়েছে। তদন্তের স্বার্থে (TET 2014 Update) নথির প্রয়োজন। জরুরী ভিত্তিতে এক্সেল শিটে 42 হাজার 949 জন শিক্ষককে নিয়োগ সংক্রান্ত সমস্ত নথি সংসদকে পাঠাতে হবে। 2011 সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার ক্ষমতায় আসার পর এই সমস্ত শিক্ষক নিয়োগ পেয়েছিলেন। সেই সমস্ত প্রাথমিক শিক্ষকদের নিয়োগ সংক্রান্ত নথি চেয়ে পাঠায় সিবিআই।

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে CBI তদন্ত করছে। প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের তরফে জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বুধবারের মধ্যেই সমস্ত শিক্ষককে নিয়োগ (TET 2014 Update) সংক্রান্ত নথি সংসদকে পাঠাতে হবে। এর জন্য সংসদের পক্ষ থেকে একটি ইমেইল ঠিকানা দেওয়া হয়েছে। বুধবারের মধ্যে নিয়োগ সংক্রান্ত সমস্ত নথি শিক্ষকরা পাঠিয়ে দিলেই সিবিআই এর হাতে তা তুলে দেওয়া হবে।

পোস্ট অফিসে মাত্র 50 টাকা বিনিয়োগে পান 35 লক্ষ টাকা

এই বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের কোনো আধিকারিক কোনো মন্তব্য করতে চাননি। তবে বঙ্গীয় শিক্ষক এবং শিক্ষা কর্মী সমিতির (TET 2014 Update) পক্ষ থেকে ক্ষোভের কথা জানা গিয়েছে। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জানান, প্রাথমিক শিক্ষকের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সরকার যদি স্বচ্ছতা বজায় রাখতো তাহলে এইভাবে শিক্ষকদের হেনস্থা হতে হতো না।

Advertisement

যেভাবে শাসকদলের নেতাদের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতি নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে, ঠিক সেইভাবেই বিরোধীদল বিজেপির শীর্ষ নেতাদের এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করুক সিবিআই। কারণ যখন এই ঘটনা ঘটে, তখন তারা তৃণমূলে ছিলেন। সিবিআই এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত করুক।
Written by Rajib Ghosh.

শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর নতুন ঘোষণা, আর কত বছর সময় লাগবে?

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment