Tata Steel Scholarship – টাটা স্কলারশিপে আবেদন করলেই সর্বোচ্চ 1 লাখ টাকা পাবে। পশ্চিমবঙ্গের পড়ুয়ারা কিভাবে পাবে।

পশ্চিমবঙ্গের পড়ুয়াদের জন্য নতুন এক বেসরকারি স্কলারশিপ বা Private Scholarship এর খবর পাওয়া গেছে। ছাত্রছাত্রীদের জন্য দারুন সুখবর! এ রাজ্যের অনেক ছেলে মেয়ে টাকা পয়সার অভাবে ভালোভাবে পড়াশোনার সুযোগ পায় না। এবার তাদের পাশে দাঁড়ালো টাটা গ্রুপ (Tata Group). বার্ষিক ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি দেবে তারা এরাজ্যের পড়ুয়াদের। তবে শুধু পশ্চিমবঙ্গ (West Bengal) নয়, ভারতের অন্যান্য কয়েকটি রাজ্যের পড়ুয়া ছেলে মেয়েরাও পাবে এই সুবিধা।

Advertisement

Tata Steel Scholarship 2024 Apply Process.

সরকারের তরফ থেকে এর আগে একাধিক স্কলারশিপ (Tata Scholarship) চালু হয়েছে দুস্থ পড়ুয়াদের জন্য। কিন্তু টাটা স্কলারশিপ এর মত এত লাভ সে গুলিতে নেই। দেশের সকল রাজ্যের মেধাবী পড়ুয়াদের পড়াশোনার মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার জন্য এই সিদ্ধান্ত। তবে একটি কথা মাথায় রাখা দরকার, সকলে কিন্তু এই স্কলারশিপের টাকা পাবে না। কারা কারা পাবেন? এবং টাকা পেতে হলে কি কি করনীয়? সব জানতে হলে নিচে পড়ুন।

Advertisement

প্রদানকারী সংস্থা ও বৃত্তির পরিমাণ

ভারতের অন্যতম বৃহৎ শিল্প সংস্থা টাটা গ্রুপ এই স্কলারশিপ প্রদান করছে। পড়ুয়াদের বার্ষিক ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি দেওয়া হবে এই স্কলারশিপের (Tata Steel Silver Jubille Scholarship) মাধ্যমে অর্থাৎ প্রতি মাসে ৮ হাজার টাকা পাবে তারা। এই টাকা তাদের রেজিস্টার্ড ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি ট্রান্সফার করে দেওয়া হবে। টাটা গ্রুপের তরফে এই নিয়ে অনেক সাহায্য করা হয়েছে দেশের সকল পড়ুয়াদের জন্য।

কারা আবেদন করতে পারবেন

Scholarship এ আবেদনে ইচ্ছুক প্রার্থীকে অবশ্যই সরকার স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান গুলি থেকে আইটিআই, ডিপ্লোমা, স্নাতক, স্নাতকোত্তর স্তরে পাঠনরত থাকতে হবে। কেবল নিম্নলিখিত বিভাগ গুলির থেকে পঠপাঠরত ছাত্রছাত্রীরা আবেদন করতে পারবেন। যেমন নার্সিং, আন্ডার গ্র্যাজুয়েট মেডিকেল কোর্স যেমন এমবিবিএস, বিডিএস ইত্যাদি, স্নাতকোত্তর মেডিকেল কোর্স যে কোন বিশেষীকরণের ক্ষেত্র, প্যারা মেডিকেল কোর্স, আইটিআই এবং ডিপ্লোমা বিষয় যেমন ফিটার, ইলেকট্রিক্যাল, ওয়েল্ডার, নিরাপত্তা ইত্যাদি।

প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত ও অন্যান্য যোগ্যতা

  • জামশেদপুর, কলিঙ্গনগর, পান্তনগর, ফরিদাবাদ, পুনে, চেন্নাই, টাটা এবং কলকাতা এই সমস্ত শহর গুলির বাসিন্দারা ছাড়া অন্য কোন পড়ুয়া এই স্কলারশিপ (Scholarship) পাবে না।
  • আবেদনকারীদের মাধ‍্যমিক ও উচ্চমাধ‍্যমিকে অবশ্যই ৬০% নম্বর পেয়ে রাখতে হবে।
  • প্রার্থীর বার্ষিক আয় কোনভাবেই ৫ লক্ষের উপরে থাকা বাঞ্ছনীয় নয় (Scholarship).
  • মেয়েদের, শারীরিক প্রতিবন্ধী ছাত্রদের এবং যারা SC, ST সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত ছাত্র ছাত্রীদের সুযোগ দেওয়া হবে।
  • ক্রীড়াকলাপ ও অন‍্যান‍্য শিক্ষা বর্হিভূত কার্যের সঙ্গে যুক্ত ছাত্রছাত্রীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস

  1. আধার কার্ড বা ভোটার কার্ড।
  2. বয়সের প্রমাণপত্র হিসেবে মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড।
  3. একটি ইনকাম সার্টিফিকেট।
  4. মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের (Scholarship) সমস্ত সার্টিফিকেট ও মার্কশিট।
  5. রঙিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  6. নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তির রশিদ।
Academic Calendar (অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার)

Tata Scholarship আবেদন প্রক্রিয়া

  • প্রথমে www.buddy4study.com এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।
  • তারপর প্রার্থীরা যে Registration ফর্মটি দেখতে পাবে সেখানে সমস্ত প্রয়োজনীয় তথ্য সমূহ ভালোভাবে এন্ট্রি করতে হবে।
  • সবশেষে প্রয়োজনীয় সকল ডকুমেন্টস স্ক্যান করে আপলোড করে সাবমিট করে দিলেই আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাবে।
  • প্রয়োজনে প্রার্থীরা তাদের অ্যাপ্লিকেশনের একটি করে প্রিন্ট আউট নিয়ে নিতে পারেন।

নবান্ন স্কলারশিপের টাকা কারা কারা পেল? একাউন্টে টাকা কবে ঢুকবে? এক ক্লিকে জেনে নিন।

আবেদনের জন্য নির্ধারিত তারিখ

সংশ্লিষ্ট কোম্পানির তরফ থেকে এই স্কলারশিপের (Scholarship) সুবিধা পাওয়ার জন্য আবেদন করার সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। এই আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে ইতিমধ্যেই। আর তা চলবে আগামী ২৪শে জানুয়ারি ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত। তাই যে সমস্ত প্রার্থী এখানে আবেদন করতে ইচ্ছুক এবং উপযুক্ত তারা শীঘ্রই নিজেদের আবেদন সম্পূর্ণ করূন।
Written by Nabadip Saha.

Advertisement

স্কুল এবং কলেজ পড়ুয়াদের কেন্দ্রীয় সংস্থা দিচ্ছে 10000 টাকা।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment