Advertisement
SSC Scam West Bengal
Advertisement

SSC Scam West Bengal – TET পরীক্ষায় সাদা খাতা জমা দিয়ে কারা চাকরী পেলেন?

পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি (SSC Scam West Bengal) নিয়ে নিত্য নতুন ঘটনা প্রায় প্রতিদিন সামনে আসছে। আদালতের নির্দেশে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির (Teachers Recruitment Scam) তদন্ত করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। ইডির হেফাজতে রয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায় তার বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়।

Advertisement

এই দুর্নীতিকে কেন্দ্র করেই তাদের একাধিক ফ্ল্যাট থেকে কোটি কোটি নগদ টাকা, সোনার অলংকার, বিদেশী মুদ্রা পাওয়া গিয়েছে। প্রায় প্রতিদিন এক একটি নিয়োগ দুর্নীতির নতুন পর্দা ফাঁস হচ্ছে। এবার জানা গেল, সাদা খাতা জমা দিয়ে চাকরি পেয়েছেন। এই খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় (SSC Scam West Bengal) ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

যদিও সংশ্লিষ্ট সংবাদ মাধ্যম তার সত্যতা যাচাই করে নি। তবুও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হওয়া এই খবরটি (SSC Scam West Bengal) থেকে জানা যাচ্ছে, উত্তরবঙ্গের শাসক দলের বেশ কিছু নেতা নেত্রীর নাম এবং তাদের ঘনিষ্ঠ আত্মীয়দের নাম। সমস্তটাই টাকার বিনিময়ে হয়েছে বলেই অভিযোগ উঠেছে।

Advertisement

সেক্ষেত্রে কোনো নির্দিষ্ট দল বলে নয়, টাকা দিয়েই চাকরি কেনাবেচা হয়েছে বলেই একের পরে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। সোশ্যাল মিডিয়ার (Social Media) সেই তালিকায় দেখা যাচ্ছে, জলপাইগুড়ি অঞ্চলের 12 জন নেতার নাম। সুদীপ মল্লিক বর্তমানে জলপাইগুড়ির শিক্ষা সেলের একজন নেতা।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, 2017 সালের টেট পরীক্ষায় তার স্ত্রী রুমা মল্লিক সাদা খাতা জমা দিয়েই চাকরি পেয়েছেন। সুদীপ মল্লিকের কারসাজিতেই নাকি যোগ্যতা না থাকলেও তার স্ত্রী চাকরি (SSC Scam West Bengal) পেয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। 2017 সালে ধুপগুড়ির প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষিকা হিসেবে তিনি যোগদান করেন।

EK24 News

রাজ্যে নতুন করে শিক্ষক নিয়োগ, কবে বিজ্ঞপ্তি, শুন্যপদ, দেখুন বিস্তারিত

Advertisement

এই বিষয়ে ডিওয়াইএফআই সম্পাদক বলেন, তালিকায় দেখেছি সুদীপ মল্লিক এর নাম আছে। শাসকদলের নেতার স্ত্রী রুমা মল্লিক এবং তার ছেলেমেয়েরাও তার কারসাজিতে চাকরি পেয়েছে। সাদা খাতা দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা দিয়ে কেনা বেচা হয়েছে। সবটাই টাকার খেলা।

এই প্রসঙ্গে জলপাইগুড়ি অঞ্চলের শিক্ষা সেলের নেতা বলেন, যা রটেছে সবটাই ভুল এবং ভিত্তিহীন। আমার স্ত্রী TET পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছিলেন এবং তারপর মৌখিক পরীক্ষা দিয়েই চাকরি পেয়েছেন। তৃণমূলকে বদনাম করার জন্যই এখন মিথ্যা রটনা করে সব সাজানো হয়েছে। সবটাই ষড়যন্ত্র।

রাজ্যে উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্পে প্রচুর সংখ্যক কর্মী নিয়োগ।

বিরোধীদল বিজেপির বিধায়কের কথায়, সরকারি চাকরি 10 লাখ, 15 লাখ, 20 লাখ টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। সারা রাজ্য জুড়েই দুর্নীতি (SSC Scam West Bengal) এবং চাকরি চুরির ঘটনা ছড়িয়ে রয়েছে।

Advertisement

শুধু পার্থ চট্টোপাধ্যায় নন, আরো অনেক নেতা নেত্রী জড়িত রয়েছেন। যদিও ওই ঘটনা (SSC Scam West Bengal) নিয়ে সেই প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে আধিকারিকদের প্রশ্ন করা হলে তারা কোনো প্রশ্নের উত্তর দিতে নারাজ। বিরোধী দলের পক্ষ থেকে এই ঘটনা নিয়ে সরব হয়ে আক্রমণ শুরু করা হয়েছে।
Written by Rajib Ghosh.

পশ্চিমবঙ্গে টেকনিক্যাল সুপারভাইজার পদে কর্মী নিয়োগ, বেতন 22 হাজার টাকা

Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement