WBCHSE Syllabus – পশ্চিমবঙ্গে বদলে গেল উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সিলেবাস। নতুন বই, দুবার পরীক্ষা, ফেল করলেও থাকে সুযোগ।

গত ২৯ শে ফেব্রুয়ারি রাজ্যে শেষ হয়েছে ২০২৪ এর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা (WBCHSE Syllabus For 2025). আর এই আবহেই চলতি শিক্ষাবর্ষের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা (HS Exam) কেমন হবে তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ (WBCHSE) যাতে দেখা যাচ্ছে আমূল পরিবর্তন ঘটতে চলেছে আগামী বছরের পরীক্ষায়। নতুন সিলেবাস, সেমিস্টার পদ্ধতিতে বছরে দুবার পরীক্ষা, মাল্টিপল চয়েস প্রশ্নোত্তর এবং আরো অনেক নতুন নিয়ম চালু হতে চলেছে।

Advertisement

WBCHSE Syllabus Change For HS Exam 2025.

যার কারণে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা এরপর থেকে হয়ে যাবে আরো সহজ। কোন ব্যাপারই থাকবে না আর নম্বর তোলা।গত ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বর মাসে পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষা দপ্তর রাজ্যে নতুন শিক্ষানীতি (New Education Policy) চালু করার প্রস্তাব জানায়। নতুন শিক্ষানীতি অনুযায়ী বেশ কিছু বড় পরিবর্তন আনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় শিক্ষা ব্যবস্থায়। যার মধ্যেই অন্যতম হলো উচ্চ মাধ্যমিকের সেমিস্টার সিস্টেম (WBCHSE Syllabus).

Advertisement

নতুন এই শিক্ষানীতিতে স্কুল শিক্ষা দপ্তরের (WB Education Department) তরফে তখন জানানো হয় যে এখন থেকে কলেজ ও ইউনিভার্সিটি গুলোর মত সেমিস্টার সিস্টেমে বছরে দুবার পরীক্ষা হবে স্কুল গুলিতেও। নবম শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত সকল ছাত্র ছাত্রীদের এই সেমিস্টার নিয়মেই পড়াশোনা করতে হবে। উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি চিরঞ্জিব ভট্টাচার্য এক সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন (WBCHSE Syllabus).

CBSE বোর্ড কর্তৃক বছরে দুবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা গ্রহণ করার কথা ইতিমধ্যেই ঘোষণা করা হয়েছে। সেই অনুকরণেই রাজ্যেও চালু করা হতে চলেছে নতুন এই নিয়ম। এই নিয়ম অনুযায়ী বছরে যে দুটি পরীক্ষা হবে সেই দুটি পরীক্ষায় ছাত্র ছাত্রীদের প্রাপ্ত নম্বরের গড় মানের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হবে ফাইনাল পরীক্ষার মার্কশিট। দুটি পরীক্ষার মধ্যে প্রথম পরীক্ষাটি হবে নভেম্বর মাসে এবং দ্বিতীয় পর্যায়ের পরীক্ষাটি হবে পরের বছরের মার্চ মাসে (WBCHSE Syllabus).

আগামী তিন বছরের মধ্যে ধীরে ধীরে এই সেমিস্টারের নিয়ম চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকার। সেই সঙ্গে তিনি এও বলেছেন যে সেমিস্টার পদ্ধতিতে যদি কোন ছাত্র বা ছাত্রী প্রথম পরীক্ষায় ফেল করে তার কাছে সুযোগ থাকবে দ্বিতীয় পরীক্ষায় পাশ করার। WBCHSE Syllabus নিয়ে আরও বিস্তারিত তথ্য সম্পর্কে জেনে নিন। যার ফলে আগামীদিনে যাতে পড়ুয়াদের কোন সমস্যার সম্মুখীন হতে না হয়।

Advertisement

New Question Pattern In WBCHSE Syllabus

উচ্চ মাধ্যমিকে মাল্টিপল চয়েস প্রশ্নোত্তর তো অনেক আগেই চালু করা হয়েছে। তবে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ মারফত দাবি করা হচ্ছে যে সেমিস্টার পদ্ধতিতে এই শিক্ষাবর্ষ থেকে MCQ প্রশ্নের সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে সিলেবাসে। মোট প্রশ্নের ৫০ শতাংশ দেওয়া হবে এমসিকিউ টাইপের। সংসদের নতুন নিয়ম অনুসারে বছরে প্রথম যে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাটি হবে সেটি সম্পূর্ণ অবজেক্টিভ টাইপের প্রশ্নের উপর ভিত্তি করে করা হবে।

এক্ষেত্রে কোন বড় প্রশ্ন থাকবে না। অপরদিকে দ্বিতীয় পর্যায়ের যে পরীক্ষাটি আয়োজিত হবে সেটিতে থাকবে সংক্ষিপ্ত এবং বর্ণনামূলক ধরনের প্রশ্ন উত্তর। আর এই নতুন ব্যবস্থা অনুসারে সকল পড়ুয়াদের অনেকটাই সুবিধা হবে বলে মনে করছেন অনেকে। কিন্তু এবারে দেখার অপেক্ষা যে আগামীদিনে এই নতুন WBCHSE Syllabus শুরু হলে কি ফল হতে চলেছে।

Home Centre In Semester System

এতদিন পর্যন্ত মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকের সিট পড়তো অন্য স্কুলে। নিজের স্কুল থেকে বাইরে গিয়ে পরীক্ষা দিতে হতো ছাত্র ছাত্রীদের। কিন্তু সেমিস্টার পদ্ধতিতে উঠে যেতে চলেছে সেই নিয়মও। সেমিস্টার নিয়মে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য পড়ুয়াদের অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানে গিয়ে পরীক্ষা দিতে হবে না। হোম সেন্টার অর্থাৎ নিজের স্কুলেই উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে পারবে ছাত্র ছাত্রীরা।

Bhabishyat Credit Card (ভবিষ্যৎ ক্রেডিট কার্ড)

Theory And Practical Exams As Per WBCHSE Syllabus

উচ্চ মাধ্যমিকে নতুন WBCHSE Syllabus আনার সঙ্গে সঙ্গে সংসদ অন্য একটি বিষয়েও সতর্ক করেছে সকলকে। এরপর থেকে সেমিস্টার পদ্ধতিতে পরীক্ষা হবে ঠিকই, কিন্তু তা কেবল থিওরি পরীক্ষা গুলির জন্যই প্রযোজ্য। প্রাকটিক্যাল এর ক্ষেত্রে আগে যা নিয়ম ছিল তাই থাকছে, সে কথা জানিয়েছে সংসদ। যদিও এখানে একটি বিষয় বলা দরকার যে থিওরি পেপারেই নম্বর সবচেয়ে বেশি থাকে।

এই কার্ড থাকলে সর্বোচ্চ 15 লক্ষ টাকা দেবে সরকার। ভোটের মুখে রাজ্য সরকারের নতুন প্রকল্প।

তাই এবারে WBCHSE Syllabus এর মাধ্যমে সেই দিকটিকেই সহজ করে দেওয়া মানে ছাত্র ছাত্রীদের খাটনি অনেক কমে যাওয়া। সেমিস্টার পদ্ধতিতে পরীক্ষা হওয়া নিয়ে সংসদ সভাপতি চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য বলেছেন, “জীবনের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষায় একটি মূল্যায়নের উপর নির্ভরশীল একটি পরীক্ষার মাধ্যমে প্রকৃত মূল্যায়ন সম্ভব নয়। ধারাবাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে পড়ুয়াদের প্রকৃত মেধা সম্বন্ধে সঠিকভাবে জানা যায় (WBCHSE Syllabus).
Written by Nabadip Saha.

লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নিয়ে বড় সুখবর মা বোনেদের জন্য। আজই জেনে নিন।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment