সরকারী স্কুলের শিক্ষকদের পেমেন্ট বাড়িয়ে দিলো পশ্চিমবঙ্গ সরকার, কত টাকা বাড়লো?

পারিশ্রমিক বাড়লো এবার পশ্চিমবঙ্গের স্কুল শিক্ষকদের। উচ্চ মাধ্যমিক (HS Exam) পরীক্ষার খাতা দেখার জন্য শিক্ষকদের পারিশ্রমিক বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ শিক্ষা সংসদ। মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরুর আগেই পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফে শিক্ষকদের খাতা দেখার জন্য পারিশ্রমিক বাড়ানোর সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আর এবার সেই একই পথে হেঁটে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার খাতা দেখার জন্য শিক্ষকদের পারিশ্রমিক বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ (WBCHSE).

Advertisement

শিক্ষকদের ভাতা বৃদ্ধিঃ

নিয়ম অনুযায়ী পরীক্ষা মিটে যাওয়ার পরে পরীক্ষকদের তালিকা অনুযায়ী বিভিন্ন বিষয়ের পরীক্ষার খাতা তুলে দেওয়া হয়। পরীক্ষার্থীদের এই খাতা দেখার জন্য আলাদা পারিশ্রমিক দেওয়া হয় নির্দিষ্ট বোর্ডের তরফে। মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের খাতা দেখার জন্য মধ্যশিক্ষা পর্ষদ পারিশ্রমিক দেয়। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের খাতা দেখার জন্য উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ পারিশ্রমিক দেয়। এতদিন যে হারে পারিশ্রমিক দেওয়া হতো, দীর্ঘ দিন ধরেই শিক্ষকেরা মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকের খাতা দেখার পারিশ্রমিক বাড়ানোর জন্য দাবি জানাচ্ছিলেন।

Advertisement

এইবার তাদের সেই দাবিতে সাড়া দিয়েছে শিক্ষা সংসদ। শুধুমাত্র খাতা দেখার জন্য পারিশ্রমিক বাড়ানোই নয়, বাড়ানো হয়েছে পরিবহন ভাতা বা TA গত বুধবার পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ শিক্ষা সংসদ এই মর্মে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। সেই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সংসদ-সভাপতি পরীক্ষার খাতা দেখার জন্য শিক্ষকদের পারিশ্রমিক এবং টি এ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সংসদের সচিব তাপস কুমার মুখোপাধ্যায় এই বিজ্ঞপ্তিটি জারি করেছেন।

স্বাভাবিকভাবেই উচ্চমাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষকরা পরীক্ষার খাতা দেখার পারিশ্রমিক এবং টিএ বাড়ানোর জন্য যথেষ্ট খুশি। বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মী সমিতির নেতা বলেন, মাধ্যমিক পরীক্ষার খাতা দেখার জন্য পারিশ্রমিক এবং পরিবহন ভাতা বাড়ানো হয়েছে। সেই হারে উচ্চ মাধ্যমিকের খাতা দেখার খরচ বাড়েনি। পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল সেকেন্ডারী টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে সংসদের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানানো হয়েছে। এতদিন শিক্ষকেরা যে হারে পারিশ্রমিক এবং ভাতা পেতেন, সেটা একটু দেখে নেওয়া যাক।

আগে প্রধান পরীক্ষকরা TA বাবদ পেতেন ২০০ টাকা। এখন সেটা বাড়িয়ে ২৫০ টাকা করা হয়েছে। দূরত্ব বিচার করে পরীক্ষক এবং স্ক্রুটিনিয়ারদের এই টিএ দেওয়া হবে। সেই ক্ষেত্রে আবার ৫০ থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়া হতে পারে। আগে উত্তরপত্র দেখার জন্য পরীক্ষকরা প্রতি খাতা পিছু ৫ টাকা করে পেতেন। এবার পরীক্ষকেরা উত্তরপত্র দেখার জন্য খাতা পিছু ৬ টাকা করে পাবেন। স্ক্রুটিনির জন্য আবার খাতা কিছু ১ টাকা করে দেওয়া হবে। আগে এই বাবদ খাতা পিছু দেওয়া হতো দেড় টাকা। যদি রেজাল্ট প্রকাশ হওয়ার পরে কোনো পরীক্ষার্থী তার প্রাপ্ত নম্বরে সন্তুষ্ট না হয়, রিভিউ বা স্ক্রুটিনি করাতে চায়, তাহলে সে ক্ষেত্রে খাতা পিছু পরীক্ষকদের ৬ টাকা করে দেওয়া হবে। এটা আগে ছিল ৫ টাকা।

Advertisement

ডিএ ধর্মঘট সফল না ব‍্যর্থ, পহেলা এপ্রিলের আগে কি সিদ্ধান্ত বদলাবে, ইঙ্গিত মিলল নবান্নের।

এছাড়া শিবির কো-অর্ডিনেটরদের জন্য ২ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়েছে। আগে শিবির কো-অর্ডিনেটররা পেতেন ১৫০০ টাকা। সেই বরাদ্দ এবার উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ বাড়িয়ে ২ হাজার টাকা করেছে। শিবির কো-অর্ডিনেটরদের আগে TA বাবদ দেওয়া হতো ৫০ টাকা করে। এবার থেকে পাবেন ১০০ টাকা। টিএ বিল বাবদ এই বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী ১৪ মার্চ থেকে শুরু হচ্ছে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, চলবে ২৭ মার্চ পর্যন্ত। এবার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষাকে ঘিরে কড়া নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। কোনো পরীক্ষার্থী মোবাইল নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রের ভেতরে ঢুকতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে মোবাইল সমেত যদি কোনো পরীক্ষার্থী ধরা পড়ে, তাহলে তার পরীক্ষাই শুধু বাতিল হবে না, রেজিস্ট্রেশনও বাতিল হয়ে যাবে। ফলে যথেষ্ট কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার নতুন রুটিন ও রেজাল্ট কবে দেবে, পরীক্ষা শুরুর আগেই জেনে নিন।

সংসদের তরফে যে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে, সেখানে প্রধান পরীক্ষক, পরীক্ষক নম্বর পরীক্ষক বা স্ক্রুটিনিয়ার এবং কো-অর্ডিনেটরদের পারিশ্রমিক এবং পরিবহন খরচ বা TA দেওয়া হবে। এবার সেই পারিশ্রমিক এবং টি এর পরিমাণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। উচ্চশিক্ষা সংসদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে এই সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে। ফলে এবার পরীক্ষার খাতা দেখলেই শিক্ষকরা পেয়ে যাবেন বাড়তি পারিশ্রমিক।
Written by Rajib Ghosh.

বকেয়া ডিএ নিয়ে রবিবারেই রাজ্যপালের বৈঠক, সমস্যা সমাধানের পথ খুলছে!

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment