“কবে খুলবে স্কুল কলেজ” এইমাত্র শিক্ষা মন্ত্রীর বড় ঘোষণা – School college Opening West Bengal News

করোনাকালে স্কুল কবে খুলবে, এটাই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন, ( School Opening West Bengal News ). অতিমারীর ছোঁয়া যাতে শিশুদের না লাগে তারজন্যই বন্ধ রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি। যদিও এখন করোনার প্রকোপ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। তবুও রাজ্যের স্কুল-কলেজগুলির পঠন-পাঠন বন্ধ রয়েছে। ইতিমধ্যেই পড়ুয়াদের এবং অভিভাবকদের মধ্যে প্রশ্ন উঠছে পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হওয়া সত্বেও কেন স্কুল এবং কলেজ খুলছে না তা নিয়ে! স্কুল খুললে একদিকে যেমন পড়ুয়াদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, অন্যদিকে স্কুল না খুললে পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ ও খারাপ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এই উভয় সঙ্কটের পরিস্থিতিতে যথেষ্ট চাপে প্রশাসন থেকে শিক্ষাদপ্তর। এই পরিস্থিতিতে আজ কি বললেন শিক্ষামন্ত্রী, রইলো বিস্তারিত বিবরণ।

Advertisement

গতকাল শিক্ষামন্ত্রী বলেন, রাজ্যের জন্য কেন্দ্র যে হারে করোনা ভ্যাকসিন পাঠাবে, সেই ভাবেই ছাত্রছাত্রীদের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। এবং সকলকে ভ্যাকসিন দিয়েই স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় খােলা হবে বলে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু শুক্রবার জানিয়ে দিয়েছেন (School college Opening West Bengal News)।

Advertisement

শিক্ষামন্ত্রী এদিন বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরামর্শক্রমে ধাপে ধাপে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। এর পরেও কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে কিছু ছাত্রছাত্রীর ভ্যাকসিন নেওয়া বাকি থেকে গেলে অবশ্যই আমরা তাঁদেরও ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করব। ইতিমধ্যেই স্কুলের শিক্ষক, শিক্ষিকা ও শিক্ষাকর্মীদের ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শেষ হয়েছে। স্কুলের পড়ুয়াদেরও ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। তবে যেহেতু স্কুল পড়ুয়াদের বয়স ১৮ বছরের নিচে, তাই গাইডলাইন না প্রকাশ হলে তাদের এখনো ভ্যাক্সিন দেওয়া যাচ্ছে না, তবে তালিকা প্রস্তুত আছে, সবুজ সঙ্কেত মিললেই ভ্যাক্সিন দেওয়া হবে।

অন্যদিকে, যাদবপুর সহ পশ্চিমবঙ্গের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগঠনগুলি আন্দোলনে বুধবার নবান্ন অভিযানের পর সোমবার বিকাশ ভবন অভিযানের ডাক দেওয়া হয়েছে। সেই প্রসঙ্গেও মুখ খুললেন ব্রাত্য বসু। শিক্ষামন্ত্রী এই প্রসঙ্গে বলেন, ওদের জেনে রাখা প্রয়ােজন, করোনায় ৪০০ পড়ুয়া আক্রান্ত হওয়ার কারনে কেরলের স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্ট কালের জন্য বা রাখা হয়েছে। কেরল সরকারের শিক্ষামন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন, করােনা পরিস্থিতি সম্পূর্ণ পর্যালােচনা করে তার পরে ক্যাম্পাস খোলার কথা ভাবা হবে। এই সরকারি সিদ্ধান্তকে কে ডান ও বাম সব ছাত্ৰ সংগঠনই স্বাগত জানিয়েছে। (School college Opening West Bengal News)

এদিকে স্কুল কলেজ বন্ধ রেখে অনলাইনে ক্লাস ও পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে বৃহত্তর জনমত গড়ে তুলছে Students Unity Forum. অনলাইনে পিটিশন সাইন করছেন তারা, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজার হাজার পড়ুয়া ও অভিবাবক তাতে সাইন করছেন.

Advertisement
শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment