Advertisement
School Closed for Covid (স্কুলে ছুটি ঘোষণা)
Advertisement

সারা ভারতে অতিমারী বিধি চালু হয়ে গেল গত রাত থেকে। জরুরিভিত্তিতে সিদ্ধান্ত (School Closed) কেন্দ্র সরকারের। আর সেই পথে হেটে একাধিক রাজ্য ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশিকা জারী করেছে।

Advertisement

আবারও ফিরে আসছে কোভিড। ইতিমধ্যেই কয়েকটি দেশে কোভিডের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ভারত। ক্রিসমাস ইভ অর্থাৎ ২৪ ডিসেম্বর থেকে চালু করা হয়েছে নতুন প্রোটোকল। নতুন প্রোটোকলে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীর থার্মাল স্ক্যানিং করা হবে ভারতের বিমানবন্দরে। স্ক্যানিং-এ কোনও যাত্রীর কোভিড উপসর্গ থাকে তবে তাকে সঙ্গে সঙ্গে পৃথক জায়গায় নিয়ে যাওয়া হবে।

School Closed:

পাশাপাশি দুই শতাংশ যাত্রীর কোভিড টেস্ট করা হচ্ছে স্যাম্পল হিসাবে। তাদের নিয়মিত প্রোটোকল অনুযায়ী চিকিৎসাও প্রদান করা হবে।
এই ফতেয়ার জেরেই দিল্লিতে বন্ধ হতে চলেছে স্কুল। মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এক বৈঠকে জানিয়েছেন, স্কুলগুলি ৩১ ডিসেম্বর থেকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ (School Closed) থাকবে। তবে স্কুল ছুটি (School Closed) থাকলেও ছুটি নেই শিক্ষকদের।

Advertisement

মাধ্যমিক বাংলা সাজেশন 2023 PDF Download Free.

দিল্লির সরকারি স্কুলের শিক্ষকদের দিল্লি বিমানবন্দরে ডিউটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেজরিওয়াল সরকার। ৩১ ডিসেম্বর থেকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত দিল্লি বিমানবন্দরে সরকারি শিক্ষকদের নিযুক্ত করা হবে কোভিড বিধি যথাযথভাবে যাত্রীরা পালন করছেন কিনা তা দেখার জন্য। এই পনেরো দিন শিক্ষকরাই বিদেশ থেকে ভারতে আসা যাত্রীদের বিমানবন্দরে সরকারি ভাবে পেশ করা কোভিড নির্দেশিকা অনুসরণ করতে সহায়তা করবেন।

আর ফাঁকিবাজি নয়, নতুন বছরের শুরুতে কড়া নিয়ম চালু হচ্ছে রাজ্যের সরকারি স্কুলে।

EK24 News

আগের বছরের মতো আবারও দেশের পরিস্থিতি যাতে নিয়ন্ত্রণের বাইরে বেরিয়ে না যায়, সেটা নিশ্চিত করতে দিল্লি সরকার এবং কেন্দ্র লড়ছে একযোগে।
অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গে পাওয়া গেছে নতুন ভ্যারিয়েন্ট। আর জন্য নবান্নেও বৈঠক করা হয়েছে। এদিন রাজভবন থেকে ফেরার পথে মুখ্যমন্ত্রী জানান, সরকার নজর রাখছে। মাস্ক পরুন আর স্যানিটাইজার ব্যাবহারটা ভুলবেন না।

Advertisement

ব্যাংকের সুদ থেকে রান্নার গ্যাসের দাম, পহেলা জানুয়ারি থেকে বদলে যাচ্ছে প্রচুর নিয়ম, না জানলে বিপদে পড়বেন।

এদিন নবান্ন সুত্র থেকে জানা গেছে, আপাতত লক ডাউনের চিন্তা নেই সরকারের। ভারতে ইমুনিটি তৈরী হয়ে গেছে। নির্দিষ্ট একটি মাত্রা স্থির করা হয়েছে। অবস্থা বেগতিক হলে, প্রথমে নাইট কার্ফু ও স্কুল বন্ধের কথা ভাবা হতে পারে। তবে বোর্ড পরীক্ষা ও সর্বভারতীয় অনেক পরীক্ষা রয়েছে, সেগুলো বন্ধ করা যাবে না। প্রয়োজনে Work From Home চালু হবে, অনলাইনে ক্লাস হবে।
Written by Antara Banerjee.

Advertisement
Advertisement
3 thoughts on “School Closed – 15 জানুয়ারি পর্যন্ত স্কুল ছুটি, শিক্ষকদের জরুরী পরিষেবায় দায়িত্ব দেওয়া হলো।”
  1. সব কথা ঠিক আছে কিন্তু Examonline এটা সঠিকনা পরীক্ষা তার ছেলে মেয়েদের অভিবাভকরা ঘরে বসে পরীক্ষা দিয়ে দেয় রোজি রোজগার বন্ধ হয়ে যায় ব্যাক লোন দিতে অসুবিধা হয় পরীক্ষা স্কুলের মধ্যে হোক কভিড নিয়ম অনুযায়ী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement