Advertisement
ROPA 2019
Advertisement

ROPA 2019 এর মেসেজ ঢোকা শুরু! মূল বেতন বৃদ্ধির মুখ দেখলেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা।

রাজ্য সরকারি কর্মীদের মোবাইলে মেসেজ ঢোকা শুরু হলো আজ থেকেই। ROPA 2019 এর পর রাজ্য সরকারি কর্মীরা এই প্রথম তাদের মূল বেতন বৃদ্ধির মুখ দেখলেন। রাজ্য সরকারি কর্মীদের স্বাভাবিক নিয়ম মেনে যথারীতি তিন শতাংশ হারে বাৎসরিক বেতন বাড়লো। প্রতি বছরের জুলাই মাসে বেতন বৃদ্ধি হয় সরকারি কর্মীদের যা তারা হাতে পান আগস্টের মাস পয়লাতে। যদিও এটা রুটিন নিয়ম, তবুও এটিকে আলাদা করে আরও রঙ মিশিয়ে প্রচার করছে, রাজ্যের কিছু নামী সংবাদ মাধ্যম।

Advertisement

আজ, তথা বৃহস্পতিবার থেকেই ROPA 2019 অনুযায়ী সরকারি কর্মীদের স্যালারি অ্যাকাউন্টে জুলাই মাসের বেতনের টাকা ঢোকার কথা। কারণ, মার্চ মাসে ব্যাংকের ইয়ার এন্ডিং থাকার কারণে স্যালারি আসতে একটু দেরি হয়। এ ছাড়া প্রতি মাসের শেষ কাজের দিনের আগেই বেতন পান সরকারি কর্মীরা।

ট্রেজারি থেকে কর্মীদের নথিভুক্ত মোবাইল নম্বরে মেসেজ পাঠিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয় বেতনের হিসেব। রাজ্য সরকারি কর্মীমহল সূত্রে জানা গিয়েছে যে, বেতন সংক্রান্ত মেসেজ ইতিমধ্যেই অনেকের মোবাইলেই চলে এসেছে।

Advertisement

তাতে দেখা যাচ্ছে, প্রতি বছরের মতো জুলাইয়ে নির্ধারিত হারেই বেতন বৃদ্ধি হয়েছে। কর্মীদের ROPA 2019 এর মূল বেতন কমবেশি ৩ শতাংশ বৃদ্ধির জেরে মহার্ঘ ভাতা (ডিএ) ও বাড়ি ভাড়া বাবদ ভাতা (এইচআরএ) কিছুটা বাড়বে। কারণ মূল বেতনের উপর ওই দু’টি ভাতা নির্ধারিত হয়।

উচ্চমাধ্যমিকের পরীক্ষার খাতা রিভিউ নিয়ে, শিক্ষকদের শোকজ করার সিদ্ধান্ত নিতে পারে সংসদ।

রাজ্য সরকারি কর্মীরা ROPA 2019 অনুযায়ী মূল বেতনের উপর কমবেশি ৩ শতাংশ হারে ডিএ এবং ১২ শতাংশ হারে এইচআরএ পান। অর্থাৎ যদি কারো বেতন হয় ২০,০০০ টাকা, তাহলে তিনি এই বৃদ্ধির পর সব মিলিয়ে প্রায় ৭০০ টাকা বেশি পাবেন।

EK24 News

পুরসভা, পঞ্চায়েত কর্মী, সরকারি অনুদানে চলা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীরাও বাৎসরিক বেতন বৃদ্ধির সুবিধা পেয়ে থাকেন। সরকারি দপ্তরে বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী চুক্তিভিত্তিক কর্মীদেরও জুলাই মাসে একই হারে বেতন বৃদ্ধি হয়।
 
তবে বঞ্চিত হন অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মীরা। কারণ তাদের পেনশনের ক্ষেত্রে বাৎসরিক বৃদ্ধির কোনো সুবিধা নেই। তাদের বেতন বৃদ্ধি হয় শুধুমাত্র ডি এ বা এইচ আর এ বাড়লেই।

Advertisement

চলতি বছর রাজ্য সরকারি কর্মী ও পেনশন প্রাপকদের ডিএ বাড়ানো হয়নি। চলছে আইনি জটিলতা। ফলে তাঁরা দেড় বছরের বেশি সময় ধরে একই টাকা পেনশন পাচ্ছেন।

পেনশন প্রাপকদের সূত্রে জানা গিয়েছে, চলতি মাসে ট্রেজারি থেকে তাঁরা যে মেসেজ পেয়েছেন, তাতে পেনশনের অর্থ একই রয়েছে। ২০২০ সালে ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশ কার্যকর করার সময় অর্থদপ্তর ROPA 2019 বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল। তাতেই বাৎসরিক বেতন বৃদ্ধির উল্লেখ করা হয়। কিন্তু প্রতি বছর ডিএর হার বৃদ্ধি নিয়ে কোনো নির্দেশ দেওয়া নেই। আর এই সুযোগ কে কাজে লাগিয়েই একই খবর বার বার পরিবেশন করে মিস গাইড করছে কিছু সংবাদমাধ্যম।
Written by Mukta Barai.

এবার গ্রুপ ডি নিয়োগেও দুর্নীতির অভিযোগে জড়ালো পার্থ চ্যাটার্জীর নাম।

Advertisement
Advertisement
2 thoughts on “ROPA 2019 – রাজ্য সরকারী কর্মীদের বেতনবৃদ্ধি, ফোনে মেসেজ ঢোকা শুরু হলো।”
  1. 3% ওটাতো বা পাওনা ওটা দয়ার দান না যেটা হাই কোর্ট আদেশ করেছেন মহামান্য বিচারপতি তার আর হাইকোর্টকে সন্মান দিয়ে সব পাওনা গন্ডা মিটিয়ে দিন
    এটা আমাদের প্রাপ্য অধিকার এটা আপনাদের দয়া না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement