RD vs SIP – SIP নাকি RD? কোথায় বিনিয়োগ করলে সবচেয়ে বেশি রিটার্ন পাবেন। এই নিয়ম মানলেই চারগুন লাভ হবে।

কষ্টের উপার্জিত অর্থ বাঁচিয়ে কিছুটা হলেও বিনিয়োগ (FD, RD vs SIP Investment) তো আমরা সকলেই করি। কেউ কম বা কেউ বেশি। কিন্তু আমাদের বিনিয়োগের লক্ষ্য থাকে একটাই, ভালো রিটার্ন (Investment Return) পাওয়া। এই ব্যাপারে একাধিক স্কিম (Financial Scheme) বাজারে ছেয়ে রয়েছে বিনিয়োগ করার জন্য। কিন্তু অর্থের নিরাপত্তা ও লাভ এই দুই দেখেই সব সময় যে কোনো স্কিম বিনিয়োগের জন্য বাছা উচিত। আজ আমরা এই রকমই দুটি বিশেষ স্কিম নিয়ে আলোচনা করব।

Advertisement

RD vs SIP Which One is Better investment option.

RD vs SIP এই দুটি স্কিমেই বিনিয়োগের উপর যথেষ্ট লাভ পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে কোনটিতে লাভ বেশি এবং সেই সঙ্গে টাকার নিরাপত্তাও রয়েছে, সেটি জেনে নেব এখান থেকে। আমরা মূলত Fixed Deposit, MIS, Share Market এই সকল স্কিমে এতদিন পর্যন্ত বিনিয়োগ করতাম বা এই সম্পর্কেই আমরা সব কিছু শুনে আসছি। এবারে আমরা দেখে নেব আগামীদিনে কোন স্কিমে বেশি রিটার্ন পাবেন (RD vs SIP).

Advertisement

Recurring Deposit

প্রথমেই আপনাকে ঠিক করতে হবে আপনি কোনটি চান, টাকার নিরাপত্তা না উচ্চ লাভ। আপনি যদি নিরাপত্তা খোঁজেন তবে ব্যাংক বা পোস্ট অফিসের এরকম অনেক স্কিম রয়েছে যে গুলি আপনার টাকার নিশ্চিত রিটার্ন দিয়ে থাকে, কিন্তু লাভ এখানে তেমন নেই। এরকম উল্লেখযোগ্য একটি স্কিম হল রেকারিং ডিপোজিট। এই প্ল্যানে ন্যূনতম পাঁচ বছরের জন্য আপনি অর্থ বিনিয়োগ (RD vs SIP) করতে পারেন। এখানে সুদের হার ফিক্সড তা হল ৬.৫%.

Recurring Deposit Calculator

১০০ টাকার গুণিতকে বিনিয়োগ শুরু করা যেতে পারে। সর্বনিম্ন ৫০ শতাংশ অর্থ প্রত্যাহার করা যাবে। রেকারিং ডিপোজিট বাজার গত ঝুঁকির উপর নির্ভর করে না অর্থাৎ বাজারে মুদ্রার ওঠাপড়া যাই থাকুক না কেন, আপনার টাকা চোট যাওয়া সম্ভাবনা থাকে না, নিশ্চিত রিটার্ন পান। আবার রেকারিং ডিপোজিটে (RD vs SIP) যেহেতু সুদের হার ফিক্সড থাকে, তাই বাজারে যে রিস্কই (RD vs SIP) থাকুক না কেন, আপনি যতটা রিটার্ন পাওয়ার ততটাই পাবেন।

Recurring Deposit interest rate

এক টাকাও কম নয়। এতো গেল সুবিধার কথা। তবে একটি অসুবিধাও রয়েছে এখানে। রেকারিং ডিপোজিটে আপনি যদি প্রি ম্যাচিওর টাকা প্রত্যাহার করেন সেক্ষেত্রে আপনাকে জরিমানা আরোপ করে থাকে ব্যাংক বা পোস্ট অফিস। এবারে আমরা SIP প্ল্যান সম্পর্কে আরও বিস্তারিত সব কিছু জেনে নিতে চলেছি। এবারে দেখে নেওয়া যাক RD vs SIP মধ্যে কোনটি ভালো।

Advertisement

Systemetic Investment Plan

অন্যদিকে আপনি যদি লাভ খোঁজেন, তবে সে ব্যাপারে অনন্য হল SIP. এসআইপিতে আপনি যা রিটার্ন পাবেন তা ব্যাংক বা পোস্ট অফিসে পাওয়া রিটার্নের ডবল। কিন্তু এটি আপনাকে টাকার নিরাপত্তা প্রদান করেনা।
সিস্টেম্যাটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান (SIP) রেকারিং ডিপোজিটের মতোই কিন্তু এটি হল মিউচুয়াল ফান্ডের দ্বারা প্রস্তাবিত একটি পথ যেখানে একটি নিয়মিত ইন্টারভেল বা অন্তরে মিউচ্যুয়াল ফান্ড স্কিমে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ বিনিয়োগ করতে পারেন (RD vs SIP).

Systematic Withdrawal Plan Calculator

SIP ভারতীয় মিউচুয়াল ফান্ডের বিনিয়োগকারীদের মধ্যে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে, কারণ এটি বাজারের অস্থিতিশীলতা এবং বাজারের সময় সম্পর্কে উদ্বেগ ছাড়াই নিয়মনিষ্ঠভাবে বিনিয়োগ করতে সহায়তা করে। এখানে দীর্ঘমেয়াদে বিনিয়োগ (RD vs SIP) হয়। যার ফলে একসঙ্গে অনেক টাকা আপনি রিটার্ন পান। SIP বিনিয়োগের বাজারগত ঝুঁকি থাকে। আগেই বলা হয়েছে যে এটি কিন্তু আপনার টাকার কোনো গ্যারান্টি দেয় না।

Jana Small Finance Bank FD Interest Rates (ফিক্সড ডিপজিটে সুদের হার)

বাজার যদি কোনো কারণে পড়ে যায় তবে আপনি টাকা নাও পেতে পারেন এখান থেকে। যেহেতু এটি বাজার গত ঝুঁকির দ্বারা প্রভাবিত হয়, তাই এখানে কোন ফিক্সড সুদের হার ও থাকেনা। বাজার উঠলে আপনি ডবল রিটার্ন (RD vs SIP) ফেরত পেতে পারেন। আবার বাজার পড়লে এক টাকাও না পেতে পারেন। এবার যদি বলি সুবিধার কথা তবে রেকারিং ডিপোজিট এর মত প্রিম্যাচিউর প্রত্যাহারের ক্ষেত্রে এখানে কোন জরিমানা লাগে না।

স্টেট ব্যাংকের নতুন সঞ্চয়পত্র। মাত্র 1111 দিন টাকা রেখে সারা জীবন রাজার হালে কাটান।

আপনার যত টাকা লাভ হয়েছে তা যেকোনো সময়ে সহজেই তুলে নিতে পারেন আপনি। পরিশেষে একটি কথা বলতে হয়, বাজারে কোন স্কিম টি ভালো? কোনখানে সঠিক বিনিয়োগ করতে হবে সে বিষয়ে জানতে গেলে অবশ্যই একজন উপদেষ্টার পরামর্শ নেওয়া দরকার। তিনি আপনাকে মার্কেট প্রফিট এবং আপনার টাকা গ্যারান্টি দুই সম্পর্কেই বিশদে বুঝিয়ে বলতে পারবেন। সব জেনে তারপরে বিনিয়োগ (RD vs SIP) করুন।
Written by Nabadip Saha.

LIC আনল দুর্দান্ত প্ল্যান। মাত্র 5 বছরেই পাবেন ডবল টাকা।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

1 thought on “RD vs SIP – SIP নাকি RD? কোথায় বিনিয়োগ করলে সবচেয়ে বেশি রিটার্ন পাবেন। এই নিয়ম মানলেই চারগুন লাভ হবে।”

Leave a Comment