একটির বেশি ব্যাংক একাউন্ট থাকলেই সাবধান করলো RBI, এই কাজ না করলে সব টাকা জলে।

বর্তমানে অধিকাংশ মানুষের একাধিক ব্যাংক একাউন্ট রয়েছে। বিভিন্ন কারণে একের অধিক ব্যাংক একাউন্ট (Bank Account) করেন অনেকেই। একাধিক Bank Account করার ক্ষেত্রে সেই অর্থে RBI- এর কোনোরকম নিয়মের বাধ্যবাধকতা নেই। তবে নতুন এই নিয়মে প্রভাবিত হবেন সকলেই।

Advertisement

একাধিক ব্যাংক একাউন্ট নিয়ে রিজার্ভ ব্যাংকের সতর্কতা।

কোনো গ্রাহক একাধিক ব্যাংক একাউন্ট করতেই পারেন। কিন্তু RBI এক্ষেত্রে একটি নয়া নির্দেশিকা জারি করেছে। সেই নির্দেশিকা অনুযায়ী যাদের একাধিক Bank Account রয়েছে বা যারা নতুন ব্যাংক একাউন্ট খুলতে চাইছেন তাদের সকলকেই বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্বন্ধে জেনে রাখতে হবে।

Advertisement

কোনো গ্রাহক একের অধিক Bank Account রাখলে সে ক্ষেত্রে RBI কোনো রকম নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি। তবে এই বিষয়ে গ্রাহকদের জানানোর জন্য একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। কারণ প্রতিটি ব্যাংক একাউন্ট এ বর্তমান সময়ে ন্যূনতম ব‍্যালান্স রাখতে হয়। কোনো গ্রাহকের যদি একাধিক ব্যাংক একাউন্ট থাকে তাহলে প্রত্যেকটি অ্যাকাউন্টে এই Minimum Balance রাখার নিয়ম রয়েছে।

সেক্ষেত্রে এমন অনেক ব্যাংক রয়েছে যেখানে Minimum Balance 5 হাজার টাকা পর্যন্ত, আবার অনেক ব্যাংক অ্যাকাউন্টের Minimum Balance 10000 টাকা পর্যন্ত। সে ক্ষেত্রে যদি সঠিকভাবে ন্যূনতম ব্যালেন্স ব্যাংক অ্যাকাউন্টে না থাকে তাহলে পেনাল্টি কেটে নেওয়া হয়। আর এই Penalty কেটে নেওয়ার প্রভাব গ্রাহকের সিবিল স্কোরের (Cibil Score) ওপরে পড়ে।

রাজ্যের বেকার ভাতা প্রকল্পে এই কাজটি না করলে, 1 টাকাও পাবেন না।

তাই RBI- এর নির্দেশিকা অনুযায়ী গ্রাহকরা একটি প্রধান অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করলে সুবিধা হয়। সেক্ষেত্রে অন্যান্য ব্যাংক অ্যাকাউন্টগুলি বন্ধ করে দিতে পারেন। সেটা করতে হলে স্থানীয় ব্যাংকের শাখায় গিয়ে যোগাযোগ করতে হবে এবং একটি ডি লিংক ফরম ফিলাপ করতে হবে। এই D-Link Form Fillup করে জমা দিলে অন্যান্য ব্যাংক অ্যাকাউন্টগুলি ব্যাংকের পক্ষ থেকে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

Advertisement

পুজোর মধ্যেই ফের বাড়লো ট্রেনের টিকেটের দাম, পকেটে টান নিত্য যাত্রীদের, তার মধ্যেই টিকিট কাটার নতুন নিয়ম।

একই ব্যাংকে একাধিক একাউন্ট থাকলে কি করনীয়ঃ
মনে করুন, কোনও গ্রাহকের ষ্টেট ব্যাংকের দুটি শাখায় দুটি ব্যাংক একাউন্ট রয়েছে, তবে আপনার পাশ বই চেক করুন। যদি সেখানে একই CIF Number থাকে তবে আপনার চিন্তার কারন নেই। তবে যদি দুটি বইয়ের CIF আলাদা হয় তবে নির্দিষ্ট ফর্ম ফিলাপ করে দুটি নাম্বার কে মার্জ করতে হবে। নয়তো যেকোনো একটি বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

ব্যাঙ্কিং সংক্রান্ত এরুপ আরও তথ্যের জন্য EK24 News ফলো করুন। আপনার কোনও প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করুন।
Written by Rajib Ghosh .

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment