Advertisement
Ration Card cancelled (রেশন কার্ড বাতিল)
Advertisement

রেশন কার্ডের গ্রাহকরা এবার থেকে আগের তুলনায় অনেক কম পরিমাণে খাদ্যশস্য পাবেন। এই নির্দেশ জারি করেছে রাজ্য সরকার। Ration Card ধারীদের (Ration Card Holder) জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের পাশাপাশি রাজ্য সরকারের তরফেও একাধিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে থাকে। আর সরকারের নতুন সিদ্ধান্তে একাধিক রাজ্যের কোটি কোটি Ration গ্রাহকেরা এবার থেকে আগের তুলনায় কম পরিমাণ খাদ্যশস্য পাবেন।

Advertisement

রেশন সামগ্রী প্রদান নিয়ে নতুন নিয়মঃ

রেশন কার্ডের আওতায় দেশের জনগণকে খাদ্য সুরক্ষা আইনের অধীনে নির্ধারিত দামে বা বিনামূল্যে খাদ্যশস্য সরবরাহ করে সরকার। এর ফলে যথেষ্ট উপকৃত হয় সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে এর আগে লক্ষ্য করা গেছে, করোনা সংক্রমণের সময় যখন লকডাউন চলছিল, মানুষের হাতে কাজ ছিল না, ক্রমাগত টাকা পয়সার অভাব তৈরি হচ্ছিল, ঠিক সেই সময় সরকারের তরফে বিনামূল্যে Ration ব্যবস্থার মাধ্যমে খাদ্যশস্য সরবরাহ করে মানুষের সুরাহা করার চেষ্টা করা হয়েছিল।

কেন্দ্রের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গ ও আলাদা কার্ডের মাধ্যমে ও খাদ্য সাথী প্রকল্পে সাধারন মানুষের কাছে খাদ্য দ্রব্য তুলে দিচ্ছে। শুধু তাই নয়, এবার গ্রাহকদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেবার লক্ষ্যে দুয়ারে রেশন ও চালু করেছে। বিধানসভা নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী কথা দিয়েছিলেন, পশ্চিমবঙ্গে Lifetime Ration Free হবে। আর আজ পর্যন্ত তা ফ্রিই রয়েছে তবে বর্তমানে একাধিক রাজ্যে Ration Card নিয়ে অস্বস্তির খবর।

Advertisement

নতুন বছরের শুরুতেই Ration কার্ডে বেশ কিছু পরিবর্তন হতে চলেছে। কেন্দ্রের পাশাপাশি একাধিক রাজ্য সরকারও Ration Card Rules Change বা কিছু পরিবর্তন এনেছে। কি সেই নিয়ম জেনে নিন।

রেশন তোলার নিয়ম (Ration Card New Rules)

প্রথমত, তেলেঙ্গানার রাজ্য সরকার এখন থেকে সেই রাজ্যের রেশন কার্ডধারীদের আগের চেয়ে রেশনে ১ কেজি কম চাল দেওয়া হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অর্থাৎ তেলেঙ্গানা সরকার জানিয়ে দিয়েছে চাল বিতরণের পরিমাণ এখন থেকে কমিয়ে দেওয়া হচ্ছে। রেশন কার্ডের এই নিয়ম পরিবর্তনের ফলেই সরকার বরাদ্দ চালের পরিমাণ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

EK24 News

তবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে চলতি বছরেও দেশবাসীর সুবিধার কথা মাথায় রেখে খাদ্যে ভর্তুকির মাধ্যমে দেশের গরীব মানুষকে রেশনে খাদ্যশস্য সরবরাহ করবে। আর সেই কারণেই ২০২৩ সালে প্রায় ২ লক্ষ কোটি টাকার বেশি খরচ করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

ঘরে বসে ফ্রিতে APL রেশন কার্ড কে BPL Ration Card বানিয়ে ফেলুন অনলাইনে।

এদিকে, জানা যাচ্ছে, হরিয়ানা সরকার রেশন কার্ডধারীদের যে সমস্যা তৈরি হয়েছে, তার সমাধানের জন্য টোল ফ্রি নম্বর জারি করেছে। তার কারণ সেই রাজ্যে বহু কার্ড গ্রাহকের নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। যার ফলে হরিয়ানার বাসিন্দারা সমস্যায় পড়েছেন। যাতে সেইসব সুবিধাভোগীরা, যাদের নাম ভুলভাবে বাদ গিয়েছে, তারা যাতে পুনরায় কার্ডের সুবিধা ভোগ করতে পারেন।

বিনা খরচে শুরু করুন এই ব্যবসা গুলি লাভ করুন ইচ্ছা মতন।

সেই সমস্যার সমাধান করার জন্য হরিয়ানা সরকারের তরফে দুটি টোল ফ্রি নম্বর জারি করা হয়েছে।
হরিয়ানা সরকারের সেই টোল ফ্রি নম্বর দুটি হল ১৯৬৭ এবং ১৮০০১৮০২৮৭,
হরিয়ানা সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, যাদের ভুলবশত কার্ড থেকে নাম বাদ গিয়েছে, তারা এই টোল ফ্রি নম্বরে অভিযোগ নথিভুক্ত করলে সরকারের তরফে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই ব্যাপারে আপনার মতামত নচে কমেন্ট করবেন।
Written by Rajib Ghosh.

Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement