Primary TET Court Case – পরীক্ষার আগেই প্যানেল তৈরী, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে নয়া দুর্নীতি ফাঁস, দেখুন সেই লিস্ট।

Primary TET Court Case: ফের নতুন অভিযোগ, ইন্টারভিউয়ের আগেই শিক্ষক নিয়োগের প‍্যানেল রেডি।

একের পর এক নতুন অভিযোগ আসতে শুরু করেছে। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি (Primary TET Court Case) নিয়ে ফের অভিযোগে এল। এবার মালদা জেলার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের হয়েছে।

Advertisement

সেখানে জানা গিয়েছে, ২০০৯ সালে মালদা জেলায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি বের হয়। ২০১০ সালে লিখিত পরীক্ষা হয়। সেই পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় ২০১৪ সালে ফের লিখিত পরীক্ষা হয়। ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে ফল প্রকাশ করা হয় এবং আগস্ট মাস পর্যন্ত সেই ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া চলে। (Primary TET Court Case)

Advertisement

বিভিন্ন মামলার কারণে প্যানেল প্রকাশে (Primary TET Court Case) বাধা আসে। ২০২১ সালে হাইকোর্টের নির্দেশে প্যানেল প্রকাশ হয়। তারপরে নিয়োগ প্রক্রিয়া হয়। এবার সেই প্যানেল নিয়েই অভিযোগ উঠে এসেছে।
ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার 3 থেকে 4 মাস আগেই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্যানেল তৈরি করা হয়েছিল।

কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে আরো দুটি সরকারী ব্যাংক এবার বেসরকারী হচ্ছে, দেখে নিন আপনারও অ্যাকাউন্ট

প্যানেল তৈরি করার নিয়ম প্রথমে চেয়ারম্যান ডিপিএসসি প্যানেল তৈরি করে ডেপুটি ডিরেক্টর অফ স্কুল এডুকেশনের কাছে পাঠায়। তিনি স্বাক্ষর করে সেটি এপ্রুভ করলে আবার চেয়ারম্যানকে পাঠিয়ে দেন। (Primary TET Court Case)

Advertisement

এখানে অভিযোগ হল প্যানেলের প্রত্যেক জায়গায় দেখা হয়েছে চেয়ারম্যানের সই করার দিন 2015 সালের 28 এপ্রিল আর ডেপুটি ডিরেক্টর অফ স্কুল এডুকেশন এর সইয়ের দিন 2015 সালের 11 জুন। চেয়ারম্যান 2015 সালের 28 এপ্রিল প্যানেল তৈরি করেছেন। আর 11 জুন সেটাকে ডেপুটি ডিরেক্টর অফ স্কুল এডুকেশন অ্যাপ্রুভাল দিয়ে চেয়ারম্যানকে পাঠিয়ে দিয়েছেন। (Primary TET Court Case)

Advertisement

২০১৫ সালের ৭ আগস্ট পর্যন্ত ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া চলে। তার 3-4 মাস আগে প্যানেল তৈরি হয় এবং সেটাকে অ্যাপ্রুভ করা হয়। এই মামলার শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বিস্ময় প্রকাশ করেন। উভয় পক্ষের হলফনামা জমা হয়। চার সপ্তাহ করে ফের এই মামলার চূড়ান্ত শুনানি হবে বলে জানা গিয়েছে।
Written by Rajib Ghosh.

Advertisement

Bank of Baroda তে চলছে কয়েকশো শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ, জলদি করুন

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment