Primary TET 2014 – নতুন প্রাথমিক শিক্ষকদের আবার বিপদ বাড়লো, অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে পর্ষদের New Update.

Primary TET 2014 : নয়া রহস‍্যের গন্ধ! হঠাৎ একটি লিঙ্কের উঁকি, নিমেষেই গায়েব।

একদিকে শিক্ষক নিয়োগ (Primary TET 2014) দুর্নীতি মামলায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার তদন্ত চলছে। হাইকোর্টের পক্ষ থেকে একের পর এক নির্দেশ জারি করা হচ্ছে। সকলেই অধীর আগ্রহে তাকিয়ে রয়েছেন SSC মামলার ফলাফল কি দাঁড়াতে পারে,সেই দিকে।

Advertisement

আর এর মধ্যে নতুন এক রহস্যের গন্ধ পাওয়া গেল। দেখা গেল, 2017 সালের TET পরীক্ষার রেজাল্ট (Primary TET 2014) জানার জন্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের ওয়েবসাইটে হঠাৎ এক লিংকের খোঁজ পাওয়া গেল। যখন এই বিষয়টি নিয়ে সকলের মনে রহস্য দানা বাঁধছে, ঠিক তখনই আবার দেখা গেল, রাত কাটতে না কাটতেই সেই লিংকটি উধাও হয়ে গেল।

Advertisement

এই বিষয়টি নিয়ে যদিও শিক্ষা দপ্তর বা প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি। তবে সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে (Primary TET 2014) বলা হয়েছে, 2017 সালের টেটের ফলাফল সংক্রান্ত কোনো নোটিশ সাম্প্রতিক সময়ে দেওয়া হয়নি। ফলে সেই লিংকটিকে কেন্দ্র (Primary TET 2014) করে রহস্য থেকেই গিয়েছে। কারাই বা লিংক আপলোড করল, আর কেনই বা লিংকটি উধাও হয়ে গেল, সেই বিষয়ে কিছু জানা গেল না।

2017 সালে TET পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। 2021 সালের জানুয়ারি মাসে লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হয়। 2022 সালের 10ই জানুয়ারি টেট পরীক্ষার ফলাফল বের হয়। এই বিজ্ঞপ্তিতে পর্ষদ সচিবের স্বাক্ষর ছিল। সেখানে জানানো হয়, দুটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে 2017-র TET-এর ফলাফল জানা যাবে। ওয়েবসাইট দুটির লিংক দেওয়া হয়।

Advertisement

BSNL Recruitment 2022 – বিপুল সংখ্যক স্থায়ী কর্মী নিয়োগের ঘোষণা বিএসএনএলের।

একটি সংস্থার ওয়েবসাইট লিংক দেওয়া হলেও প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের দুটি ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হয়। সেই দুটি হল www.wbbpe.org www.wbbprimaryeducation.org
10ই জানুয়ারি থেকে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত ওই দুটি Website থেকে 2017 এর TET পরীক্ষার রেজাল্ট জানা যাবে বলে জানানো হয়েছিল।

Advertisement

সেই সময়সীমার 6 মাস পেরিয়ে যাওয়ার পরে হঠাৎ কিভাবে ফের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের ওয়েবসাইটে (Primary TET 2014) ওই লিংক উঁকি দিল, আবার রাত কাটতেই সেই লিঙ্ক গায়েব হয়ে গেল, সেই বিষয়টিকে নিয়েই জোর চর্চা শুরু হয়েছে।
Written By Rajib Ghosh.

Advertisement

 রাজ্যের 1 লক্ষ 86 হাজার প্রাথমিক শিক্ষকদের নয়া নির্দেশ, না মানলে বার্ষিক ইক্রিমেন্ট

Leave a Comment