Pradhan Mantri Yojana – কেন্দ্র দিচ্ছে 5 লক্ষ টাকার সুবিধা, এই প্রকল্পের সুবিধা কিভাবে পাবেন জেনে নিন।

Pradhan Mantri Yojana

লাগাম ছাড়া মূল্যবৃদ্ধি আর কর্মসংস্থানের অভাব প্রকট (Pradhan Mantri Yojana). দুই -এ মিলিয়ে দেশ জুড়ে সাধারণ মানুষের একেবারে চরম সমস্যাজনক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। অধিকাংশ মানুষের দৈনন্দিন দিনযাপন করাই সমস্যার হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর তার উপরে যদি বর্তমান সময়ে চিকিৎসার জন্য খরচ করতে হয়, তাহলে যে নিদারুণ কষ্টকর পরিস্থিতি মানুষের হতে পারে তা সহজেই অনুমান করা যায়। এই সময়ে বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে যেভাবে অত্যধিক দাম দিয়ে সাধারণ মানুষকে চিকিৎসা কিনতে হচ্ছে তা এক কথায় চরম নৈরাজ্যের পরিস্থিতি।

Advertisement

জমি জমা ঘটি বাটি বিক্রি করে অনেক সময় সাধারণ মানুষকে সেই চিকিৎসা পরিষেবা নিতে হয়। আর সেই কারণে পশ্চিমবঙ্গ সরকার চালু করেছে স্বাস্থ্য সাথীর মতো চিকিৎসা বীমা প্রকল্প (Pradhan Mantri Yojana). অন্ততপক্ষে কিছুটা হলেও যাতে সাধারণ মানুষ সুরাহা পেতে পারেন, উপকৃত হতে পারেন। আর ঠিক সেরকমই কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্প আয়ুষ্মান ভারত যোজনা। আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্যই এই প্রকল্প নিয়ে এসেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

Advertisement

বৃহৎ কোনো চিকিৎসা করানোর জন্য সাধারণ মানুষকে কতটা আর্থিক সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়, সেই দিকে লক্ষ্য রেখেই গরীব মানুষদের চিকিৎসার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের এই যোজনায় কিভাবে নাম নথিভুক্ত করা যাবে, কি কি সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যাবে, সেই সুবিধাভোগীর তালিকায় আপনার নাম আছে কিনা, সেই বিষয়টি বিস্তারিত জানানো হবে (Pradhan Mantri Yojana).

প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনার সূচনা হয়। ২০১৮ এর ২৩ শে সেপ্টেম্বর সূচনা করে মোদি সরকার। তবে পশ্চিমবঙ্গে প্রকল্প এখনো চালু নাহলেও কেন্দ্রীয় সরকারের কিষাণ সম্মান নিধি যোজনার পাশাপাশি আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পটিও মান্যতা পেতে পারে। রাজ্যের স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের মতোই এটি একটি স্বাস্থ্য বীমা প্রকল্প। স্বাস্থ্য সংক্রান্ত প্রকল্পে ৬০:৪০ অনুপাতে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার উভয়েই টাকা দেয়।

প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনার অন্তর্ভুক্ত এই প্রকল্পে একটি পরিবার সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত চিকিৎসার জন্য অর্থ সাহায্য পাবেন। আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া পরিবারগুলোকে বৃহৎ কোনো চিকিৎসা নিতে গেলে আর্থিক সহায়তা দেওয়াই এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য। এর জন্য আয়ুষ্মান ভারত গোল্ডেন কার্ডের জন্য আবেদন করতে হয়। এখানে বলে রাখা প্রয়োজন, আয়ুষ্মান ভারত যোজনার গোল্ডেন কার্ড এবং আয়ুষ্মান ভারত ডিজিটাল হেলথ কার্ড দুটো এক জিনিস নয়।

Advertisement

Ayushman Bharat Golden Card হলো তার জন্য ৫ লাখ টাকার স্বাস্থ্য বীমা আর Ayushman Bharat Digital Health Card হলো চিকিৎসার যাবতীয় রেকর্ড কোনো চার্জ ছাড়াই জমা করা থাকবে। আয়ুষ্মান ভারতে কি কি সুবিধা পাওয়া যেতে পারে গোল্ডেন কার্ড থাকলে দেশের সব জায়গায় নির্ধারিত সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতাল নার্সিংহোম এবং অন্যান্য চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানে ১৩০০ এর বেশি রোগের চিকিৎসা বিনামূল্যে করানো যায়।

রেশন ব‍্যবস্থায় বড় পরিবর্তন, কবে থেকে এই নতুন নিয়ম চালু হচ্ছে! জেনে নিন।

সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত পরিবার বিছু আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয় এই প্রকল্পে। এছাড়াও Medical Consultation,Lab and Diagnostic ও হাসপাতালে ভর্তির আগে চিকিৎসা সংক্রান্ত খরচ এবং চিকিৎসা পরবর্তী ঔষধ এবং অন্যান্য যাবতীয় খরচের টাকা পাওয়া যায় এই গোল্ডেন কার্ডের মারফত। PMJAY তালিকায় নাম আছে কিনা সেটা কিভাবে জানবেন,

এর জন্য প্রথমেই pmjay.gov.in ওয়েবসাইটে গিয়ে প্রোফাইল আইকনে ক্লিক করে মোবাইল নম্বর এবং ক্যাপচা দিয়ে OTP আসলেই সেই ওটিপি যথাস্থানে বসিয়ে চেকবক্স ক্লিক করে Submit করবেন (Pradhan Mantri Yojana). এরপর রাজ্য, ক্যাটাগরি, নাম, পিন কোড লিখে এবং Rural/Urban নির্বাচন করে সার্চ করবেন। যদি নাম থেকে থাকে তালিকায় তাহলে সার্চ রেজাল্টে নামের তালিকা দেখতে পাবেন।

কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলো রাজ্য সরকার, কতো টাকা বেশি পাবেন দেখুন।

কিভাবে আয়ুষ্মান ভারত গোল্ডেন কার্ডের জন্য আবেদন করা যাবে এর জন্য Common Service Center বা জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরে যেতে হবে। ২০১১ সালের Socio Economic and Caste Sensus-এর সার্ভে অনুযায়ী দেশের দরিদ্র মানুষের তালিকা তৈরি করা রয়েছে এই যোজনায়। এখন আয়ুষ্মান ভারত যোজনায় নতুন আবেদন নেওয়া হচ্ছে না (Pradhan Mantri Yojana). নাম নথিভূক্ত করতে হলে পরবর্তী ঘোষণার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।
Written by Rajib Ghosh.

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment