বন্ধ হয়ে যাচ্ছে জনপ্রিয় LIC Policy, গ্রাহকদের মাথায় হাত, এমন সুযোগ আর আসবে না।

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকারের জনপ্রিয় LIC Policy প্রকল্প, টাকা থাকলে করে ফেলুন।

বন্ধ হতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকারের এই LIC Policy তথা একটি দারুণ লাভজনক প্রকল্প। আপনি যদি এই প্রকল্পে বিনিয়োগ করতে চান, তবে আপনার জন্য সীমিত সময় রয়েছে। এর মধ্যেই যদি এই প্রকল্পের লাভ তুলতে চান, তাহলে এক্ষুনি বিনিয়োগ (Invest) করতে হবে। ব্যাংক (Bank) পোস্ট অফিস (Post Office) এবং বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের একাধিক স্কিম রয়েছে। যে সমস্ত স্ক্রিমে টাকা বিনিয়োগ করে নিশ্চিত রিটার্ন পাওয়া যেতে পারে। কিন্তু এই স্কিমে বা Pradhan Mantri Vaya Vandana Yojana তে বিনিয়োগ করলে প্রতিমাসে মোটা অংকের টাকার পেনশন পেতে পারেন।

Advertisement

ভবিষ্যতের কথা ভেবে এই স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারেন যে কেউ। সেক্ষেত্রে কর্ম জীবন যখন শেষের দিকে সেই সময় যদি এই LIC Policy প্রকল্পে নির্দিষ্ট অংকের টাকা বিনিয়োগ করা যায়, তাহলে সম্পূর্ণ নিরাপত্তার সঙ্গে ঝুঁকিমুক্ত এই প্রকল্প থেকে রিটার্ন পেতে পারেন। সেই রিটার্ন শুধু এককালীন নয়, প্রতিমাসে মোটা টাকার পেনশন আপনার ব্যাংক একাউন্টে ঢুকতে পারে। যেহেতু একটি চমকপ্রদক প্রকল্প কেন্দ্রীয় সরকারের, সেই কারণেই এই প্রকল্পের চাহিদাও যথেষ্ট ঊর্ধ্বমুখী‌।

Advertisement

এই প্রকল্পটি পরিচালনা করে লাইফ ইন্সুরেন্স কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া (Life Insurance Corporation of India) ফলে এই LIC Policy স্কিম যে যথেষ্ট লাভজনক এবং তার সঙ্গে ঝুঁকিমুক্ত একটি প্রকল্প, সেই বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। আর সেই কারণে কেন্দ্রীয় সরকারের এই স্কিমের ব্যাপারে সকলেই আগ্রহী। এবার একবার জেনে নেওয়া যাক, কেন্দ্রীয় সরকারের এই স্কিমটি সম্বন্ধে বিস্তারিতঃ

এই স্কিমের নাম প্রধানমন্ত্রী ভাইয়া বন্দনা যোজনা Pradhan Mantri Vaya Vandana Yojana LIC Policy. এই স্কিমে এক দিকে যেমন আপনার সুবিধা অনুযায়ী আপনি বিনিয়োগ করতে পারবেন, ঠিক আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী পেনশন (Pension) নিতেও পারবেন। লাইফ ইন্সুরেন্স কর্পোরেশনের পরিচালনায় কেন্দ্রীয় সরকারের এই প্রধানমন্ত্রী ভাইয়া বন্দনা যোজনা স্কিমের বিনিয়োগের জন্য আপনার বয়স ৬০ অথবা তার বেশি হতে হবে। একসঙ্গে স্বামী স্ত্রী উভয়েই বিনিয়োগ করতে পারেন। আবার সিঙ্গল অ্যাকাউন্ট হিসেবেও এই স্কিমটি খুলতে পারেন।

LIC New Policy Dhan Ratna Plan (এলআইসি ধন রত্ন পলিসি)

একটা কথা মনে রাখবেন, এই LIC Policy স্কিমের যে সীমিত সময়সীমা রয়েছে, তার মধ্যেই বিনিয়োগ করতে হবে। এই সময়ের মধ্যে যারা বিনিয়োগ করবেন, তাদের টাকা সম্পূর্ণ সুরক্ষিত এবং ঝুঁকিমুক্ত। নির্দিষ্ট সময় থেকেই তারা তাদের নিয়মিত পেনশন পেতে থাকবেন। আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী ভাইয়া বন্দনা যোজনায় বিনিয়োগ করা যাবে। এবার জেনে নিন এই LIC Policy এর কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ঃ

Advertisement

কত বিনিয়োগ করতে পারবেন?
সেক্ষেত্রে ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত PM Vaya Vandana Yojana স্কিমে বিনিয়োগ করার অনুমোদন দিয়েছে সরকার। তবে আগে এই স্কিমে ৭ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করা যেত। বিনিয়োগের সেই উর্ধ্বসীমা বাড়ানো হয়েছে।
এবার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো,
পেনশন কত পেতে পারেন?
উল্লেখযোগ্য বিষয় ১০ বছরের জন্য যদি আপনি এই স্কিমে বিনিয়োগ করেন, তাহলে ১০ বছর পর যত টাকা আপনি বিনিয়োগ করেছেন, তার সম্পূর্ণটাই ফেরত পেয়ে যাবেন। শুধু তাই নয়, এই সময়ের মধ্যে মাসিক পেনশনও (Pension) শুরু হয়ে যাবে।

কম পুঁজিতে শুরু করুন এই 5 টি ব্যবসা, মাসিক আয় চাকরিকেও হার মানাবে।

স্বামী এবং স্ত্রী মিলে প্রধানমন্ত্রী ভাইয়া বন্দনা যোজনায় বিনিয়োগ করলে ৮ হাজার টাকা করে পেনশন পেতে পারেন। সেক্ষেত্রে অবশ্যই দুইজনকে ৬ লক্ষ টাকা করে এই স্কিমে বিনিয়োগ করতে হবে। এই যোজনায় ৭.৪০ শতাংশ হারে সুদ দেওয়া হচ্ছে। বিনিয়োগ করার পর সমস্ত টাকা আপনি ফেরত পেয়ে যাবেন। আর সেই কারণেই এই যোজনাটি সবচেয়ে চমকপ্রদ।

আরও 17 টি ব্যাংক ও আর্থিক সংস্থার লাইসেন্স বাতিল, জেনে বুঝে টাকা ইনভেস্ট করুন।

জমা করা টাকা যেমন একদিকে সম্পূর্ণ ফেরত পাওয়া যাবে, ঠিক তার সঙ্গে মাসিক পেনশন মিলবে। তবে সময়সীমা আগামী ৩১ মার্চ ২০২৩ পর্যন্ত। তারপরে আর এই প্রকল্পে বিনিয়োগ করা যাবে না।
এবার একটা হিসাব করে দেখতে পারেন, অন্য সমস্ত প্রকল্পে সম পরিমান টাকা বিনিয়োগ করলে মাসে ৪৫০০ টাকার বেশি পেনশন পাবেন না। সেক্ষেত্রে এই প্রকল্পে বিনিয়োগ আপনাকে যথেষ্ট লাভবান করবে।
Written by Rajib Ghosh.

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment