Post Office Scheme : পোষ্ট অফিসের কোন স্কীমটি আপনার জন্য উপযুক্ত, কোন স্কীমে টাকা রাখলে ব্যাংকের চেয়ে বেশী সুদ পাবেন?

Post Office Scheme – এই স্কীমে মাত্র ১ হাজার টাকা রেখে দেখুন, ব্যাঙ্কের চেয়ে বেশি সুদ পাবেন।

আরেকটি অর্থবর্ষ শেষ হতে চলেছে, তাই সঞ্চয়ের হিসাব আর আয়কর দেওয়ার সময় চলে এসেছে। তাই আপনার জন্য কোন প্রকল্পটি (Post Office Scheme) বেশী উপযোগী, কোন প্রকল্পে টাকা রাখলে একটু ট্যাক্স বাঁচাতে পারবেন, এবং সবচেয়ে বড় কথা অন্যান্য প্রকল্পের চেয়ে একটু বেশী সুদ পাবেন। সেই নিয়ে আজকের প্রতিবেদন।

Advertisement

তাই ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে নতুন অর্থ বছরটা সঞ্চয় দিয়ে শুরু করুন, ভবিষ্যৎ গড়তে কোন সেরা বিনিয়োগ পলিসিটি (Post Office Scheme) আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো। আর বাজেট ঘোসনার পর কোন প্রকল্পটি এখনও সেরা দেখে নেওয়া যাক।

Advertisement

কেন পোষ্ট অফিসে বিনিয়োগ করবেন? (Post Office Scheme)

একথা সবাই জানে যে, পোষ্ট অফিসে বিনিয়োগ মানেই ১০০% নিরাপত্তা আর সেই সাথে বেশি রিটার্ন পাওয়ারও গ্যারান্টি রয়েছে। আর আপনি যদি আপনার বিনিয়োগ একটু বুঝে শুনে বিনিয়োগ করেন তবে তো সোনায় সোহাগা। তাই চোখ বন্ধ করেই সঞ্চয় করতে পারেন পোষ্ট অফিসে। আর হাজার একটা স্কীমের মধ্যে আপনার সামর্থ্য এবং চাহিদার সাথে মানানসই পলিসিতে বিনিয়োগ করাই আপনার প্রথম লক্ষ্য হওয়া উচিৎ।

কার জন্য কোন প্রকল্পটি সেরা? (Post Office Scheme)

যেমন একজন পেনশনভোগী বা সিনিয়র সিটিজেন চাইবেন মাসে মাসে পেনশন পেতে, তাই তার জন্য MIS প্রকল্পটি সেরা। Post Office Scheme

অন্যদিকে একজন নতুন চাকরিজীবী চাইবেন প্রতিমাসে সঞ্চয় করতে, তাই তার জন্য রেকারিং বা পিপিএফ জাতীয় প্রকল্প (Post Office Scheme PPF) ভালো হবে। কিন্তু যিনি কয়েক বছর পরই টাকা তুলতে চান, তার জন্য পিপিএফ নয়। তাই জেনে বুঝে ইনভেস্ট করলে ফাইন দিতে হবে না।

Advertisement

আর আমাদের অর্থনৈতিক বিভাগে সেই রকম সমস্ত আর্টিকেল পাবেন, আপনার আয় ও সামর্থ্য এবং চাহিদা অনুযায়ী কোন বিনিয়োগটি আপনার জন্য প্রযোজ্য। আর এমনই একটি স্কীম নিয়ে আলোচনা করা হবে। মাত্র এক হাজার টাকা করে বিনিয়োগ করে দেখতে পারেন, নিশ্চিত রূপে পোষ্ট অফিসে (Post Office Scheme) ব্যাংকের চেয়ে অনেক বেশি রিটার্ন পাবেন।

Post Office Scheme: পোস্ট অফিসে রয়েছে একাধিক বিনিয়োগের প্রকল্প। যারা অল্প দিয়ে শুরু করতে চান তাদের জন্য বেশী সুদ দেয় এরকম সবচেয়ে সেরা প্রকল্প হলো পোস্ট অফিস মান্থলি ইনকাম স্কিম (Post Office Monthly Income Scheme)। এর একাধিক সুবিধা রয়েছে। এছাড়াও ভবিষ্যতে সুদের হার কমলেও আপনার প্রতিশ্রুতি মতো রিটার্নই আপনি পাবেন। আর এই প্রকল্পে ব্যাংকের চেয়ে কমপক্ষে ৫০বেসিস পয়েন্ট সুদ বেশি পাবেন। Post Office Scheme

এই স্কীমের সুবিধাঃ

আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী বিনিয়োগ করতে পারবেন। যারা সবে চাকরী পেয়েছেন। কিম্বা দীর্ঘ সময় ধরে বিনিয়োগ করতে চান। তবে কোনও রকম ঝুকি না নিয়ে ব্যাঙ্কের চেয়ে বেশী সুদ পেতে চান। তাদের জন্য এর চেয়ে ভালো স্কীম আর হতে পারে না। এছাড়াও সরকারী সংস্থা বলে টাকা মার যাওয়ার কোন টেনশন নেই। এই স্কীমের সুধের হার একই থাকবে।

অর্থাৎ Post Office Scheme বিনিয়োগের প্রথম দিনই আপনি জেনে যাবেন কত টাকা কিভাবে রাখলে আপনি কত টাকা পাবেন। এছাড়াও আপনি চাইলে এক পোষ্ট অফিস থেকে অন্য শাখায় ট্রান্সফার করতে পারেন। এই স্কীমে বিনিয়োগ করতে কোনও টিডিএস কাটে না। তাই ট্যাক্স এর ঝামেলা নেই।

কিভাবে বিনিয়োগ করলে বেশী লাভ? Post Office Scheme

যদি আপনি ৫ বছরের জন্য বিনিয়োগ করতে চান, তা হলে পোস্ট অফিস মান্থলি ইনকাম স্কিম (Post Office Monthly Income Scheme) প্রকল্পে মাত্র এক হাজার টাকা দিয়ে শুরু করতে পারেন। আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী বেশী ও বিনিয়োগ করতে পারেন।

এই স্কীমে একজন সর্বোচ্চ ৪ লাখ টাকা এবং জয়েন্ট অ্য়াকাউন্টের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৯ লক্ষ টাকা পর্যন্ত রাখতে পারেন। মানে স্বামী-স্ত্রী মিলে ৯ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জমা করতে পারেন। এই স্কিম (Post Office Monthly Income Scheme) প্রবীণ এবং অবসরপ্রাপ্ত মানুষদের জন্যও খুবই লাভজনক।

কি কি নথি লাগবে, এবং বিস্তারিত তথ্য

এর পাশাপাশি আপনি নাবালকদের জন্যও টাকা জমা রাখতে পারেন। তবে তেমন অ্য়াকাউন্টে ৩ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জমা করা যেতে পারে। এই স্কিমে টাকা রাখার জন্য পোস্ট অফিস মান্থলি ইনকাম স্কিম ফর্ম ভরার সময় আপনার পরিচয়পত্র, বাড়ির ঠিকানার প্রমাণপত্র, পাসপোর্ট সাইজের দু’টো ছবি লাগবে। এছাড়াও একজন নমিনিও লাগবে, তারজন্য নমিনি ফর্ম ফিলাপ করতে হবে। Post Office Scheme

পোস্ট অফিস মান্থলি ইনকাম স্কিম (Post Office Monthly Income Scheme) ৫ বছরের স্কীম। আপনি চাইলে এর সীমা বাড়াতে বা কমাতে পারেন। অর্থাৎ চাইলে ২ বছর পর টাকা তুলে নিতে পারেন। আবার ৫ বছর পর আরো ৫ বছর করে মেয়াদ বাড়াতে পারেন। তবে আপনি সময়ের আগে টাকা তুলে নিলে আপনার জরিমানা হবে। এই স্কীমে (Post Office Scheme) এক বছরের আগে টাকা তোলার নিয়ম নেই। ৩ বছরের আগে তুলে নিলে আসলের ২ শতাংশ জরিমানা দিতে হবে। ৩ থেকে ৫ বছরের ভেতরে তুললে আসলের ১ শতাংশ কাটা হবে। তাই অবশ্যই বুঝে ইনভেস্ট করবেন।

অন্যদিকে আরও কয়েকটি স্কীম (Post Office Scheme) আপনার জন্য সেরা হতে পারে। নিচের লিঙ্ক গুলো থেকে দেখে নিতে পারেন। আপনার কোনও প্রশ্ন বা মন্তব্য থাকলেও নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আর অর্থনৈতিক আরও আর্টিকেল পেতে সঙ্গে থাকুন EK24 News এর। ধন্যবাদ।

এই নিয়ম মেনে বিনিয়োগ করলে পাবেন অল্প বিনিয়োগে সর্বোচ্চ মুনাফা

প্রতিদিন ১৫০ টাকা জমিয়ে মেয়াদ শেষে পান ১০ লক্ষ টাকা

 জীবনে মাত্র একবার টাকা জমা দিয়ে পান সারা জীবন প্রতিমাসের ১২০০০ টাকা

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment