Post Office Scheme – শেষ বয়সে পরিবার নিয়ে যারা একটু স্বাচ্ছন্দ্যে কাটাতে চান, পোষ্ট অফিস নিয়ে এলো তদের জন্য দারুন স্কীম।

Post Office Scheme – নিজের ও বাচ্চার জীবন সুরক্ষিত করতে পোষ্ট অফিসের দুর্দান্ত একটি প্ল্যান।

সরকারী সংস্থা বলেই পোষ্ট অফিসে বিনিয়োগ করা নিরাপদ। আর এই মুহূর্তে পোষ্ট অফিস নিয়ে এলো (Post Office Scheme) দুর্দান্ত একটি স্কীম।

Advertisement

অতিমারী পরিস্থিতিতে অনলাইন ব্যাঙ্কিং এ জোর দেওয়ায় পোস্ট অফিসে টাকা রাখা মানুষ ভুলে গিয়েছিল বললেই চলে। কিন্তু তারা এবার যে পরিমাণ লোভনীয় স্কিম (Post Office Scheme) দিচ্ছে সেগুলি আপনি না দেখে থাকলে নিজের ক্ষতি।

Advertisement

এমনকি শুধুমাত্র আপনি না আপনার নিজের ছেলেমেয়ের মাসিক পড়াশোনার খরচা আপনাকে ভাবতে হবেনা যদি আপনি পোস্ট অফিসের এই স্কিমে (Post Office Scheme) ইনভেস্ট করেন। এবার দেখে নেওয়া যাক, এই স্কীমে কি সুবিধা রয়েছে।

পোস্ট অফিসের দূরন্ত স্কিম যেখানে আপনি ইনভেস্ট করতে শুরু করতে পারেন আপনার দশ বছরের বাচ্চার জন্য। মাসিক তার পড়াশোনার খরচ ওখান থেকেই চলে যাবে। আপনার বাচ্চার বয়স যদি দশ বছরের কম হয় সেক্ষেত্রে বাবা মার নামে অ্যাকাউন্ট করে দেওয়া হবে।

এই প্রকল্পে ১০০০ টাকা সর্বনিম্ন এবং ৪.৫ লক্ষ টাকা সর্বোচ্চ রাখতে পারবেন। আপনি চাইলে স্কিম (Post Office Scheme) পাঁচ বছরের পরেই বন্ধ করে দিতে পারেন। আবার মেয়াদ বাড়াতেও পারেন।

Advertisement

আপনার সন্তানের বয়স ১০ বছর হয় ও তার নামে ২ লক্ষ টাকা জমা করা যায় ৷ সেক্ষেত্রে আপনি প্রতি মাসে ৬.৬ হারে সুদ বর্তমান সুদ অনুযায়ী ১,১০০ টাকা হবে ৷ পাঁচ বছরে এই সুদের পরিমাণ ৬৬ হাজার টাকা হবে৷ ১ লক্ষ টাকা রিটার্নও পাবেন (Post Office Monthly income Scheme In Hindi) ৷

সেরার সেরা লাইফ কভারেজ প্ল্যান! মাত্র ৪ বছরের প্রিমিয়াম দিয়ে পেয়ে যান ১ কোটি টাকার সুবিধা।

এই এগারোশো টাকা দিয়ে আপনার বাচ্চার পড়াশোনার মাসিক খরচা চলে যাবে। এই অ্যাকাউন্টে ৩.৫ লক্ষ জমা করলে বর্তমানের হিসাব থেকে প্রতি মাসে ১,৯২৫ টাকা পাবেন৷ (Post Office Scheme)

এই অ্যাকাউন্ট আপনি সিঙ্গেল থেকে তিনজনে হ্যান্ডেল করতে পারেন। আর যদি আপনি সর্বোচ্চ ৪.৫ লক্ষ টাকাই জমা করেন তাহলে ২৪৭৫ টাকার বিশেষ লাভ হতে পারে। তাই এই সুযোগ হাতছাড়া করবেন না।
Written By Soumee Ghosh

Post Office Rules – 31 শে মার্চের আগে পোষ্ট অফিসে সকল গ্রাহককে ভেরিফাই করতে হবে

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment