NSC Scheme – পোস্ট অফিসে মাত্র 5 বছর টাকা জমিয়ে পাবেন 14 লক্ষ টাকা। একসাথে নতুন স্কিম। 28 লক্ষ রিটার্ন সঙ্গে ভারত সরকারের গ্যারান্টি।

নতুন বছরে পোস্ট অফিস দিচ্ছে দুর্দান্ত সুযোগ NSC Scheme তথা ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট সঞ্চয়পত্র কিনলেই পাবেন সর্বোচ্চ সুদ ও এককালীন মোটা টাকা রিটার্ন। পোস্ট অফিসে সেভিংস একাউন্ট (Post Office Savings Account) থাকলেই এখন পেয়ে যাবেন এই বিশেষ সুবিধা। কোন সুত্রে টাকা জমাবেন, কিভাবে উচ্চ সুদ পাবেন দেখে নিন এক নজরে।

Advertisement

Post Office NSC Scheme Interest Rate.

সাধারণত টাকা পয়সা জমা রাখার ক্ষেত্রে পোস্ট অফিসের জুড়ি মেলা ভার। কারণ পোস্ট অফিসে টাকা রাখলে মেলে অতিরিক্ত হারে সুদ (NSC Scheme Interest Rate) এবং অন্যান্য আকর্ষণীয় সুবিধা।
এই জন্য দেশের অনেক মানুষ অর্থ বিনিয়োগের (NSC Scheme Investment) ক্ষেত্রে পোস্ট অফিসকেই অগ্ৰাধিকার দেন। আর এই সকল বিনিয়োগকারীদের জন্যই এবার ভারতীয় ডাক বিভাগ (India Post Office) চালু করল বিশেষ সুবিধা। নতুন বছরে পোস্ট অফিসে সেভিংস একাউন্ট (Post office savings account) খুললেই হয়ে যাবেন মালামাল। অনেকেই ইতিমধ্যেই একাউন্ট ওপেন করে এই লাভ ওঠাচ্ছেন। তবে আপনি কেন পিছিয়ে থাকবেন? এখনই জেনে নিন পোস্ট অফিসের এই দারুণ প্ল্যান।

Advertisement

National Savings Certificate (NSC Scheme)

পোস্ট অফিস ন্যাশনাল সেভিংস একাউন্ট বিনিয়োগকারীদের কাছে একটি দারুন জনপ্রিয় স্কিম। ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট (NSC Scheme) হল একটি নির্দিষ্ট আয়ের বিনিয়োগ স্কিম যা আপনি যেকোনো পোস্ট অফিস শাখায় খুলতে পারেন। এটি ভারত সরকারের (Government Of India) একটি উদ্যোগ। যা গ্রাহকদের, প্রধানত ছোট থেকে মধ্য আয়ের বিনিয়োগকারীদের উৎসাহিত করে আয়কর (Income Tax) সংরক্ষণের পাশাপাশি বিনিয়োগ করতে।

NSC Scheme আওতায় ন্যূনতম ৫ বছরের জন্য অর্থ বিনিয়োগ করা যায়। ১০০ টাকার গুনিতকে বিনিয়োগ শুরু করা যায়। বিনিয়োগের (Post Office Investment) সর্বনিম্ন পরিমাণ ১০০০ টাকা। যত বেশি চাইবেন বিনিয়োগ করতে পারবেন। ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট স্কিমে সুদের হার 7.7%.

NSC Scheme Benefits

১. গত বছরে অর্জিত সুদ ব্যতীত, অর্জিত সুদের অবশিষ্টাংশ কর মুক্ত।
২. যে ব্যক্তিরা তাদের মূল শংসাপত্র হারান তারা একটি সদৃশ অর্জন করতে পারে।
৩. প্রোগ্রামটি পরিপক্ক হয়ে গেলে ব্যক্তিরা বিনিয়োগ চালিয়ে যেতে পারেন।
৪. শংসাপত্রটি একজনের কাছ থেকে অন্য ব্যক্তির কাছে স্থানান্তরিত হতে পারে। লক ইন মেয়াদের সময় এটি শুধুমাত্র একবার অনুমোদিত।

Advertisement

হঠাৎ টাকার প্রয়োজন হলে এখানে আবেদন করুন।

৫. অর্জিত অর্থ বার্ষিক চক্র বৃদ্ধি করা হয়। অর্থাৎ সহজ কোথায় ধরুন আপনি ১০০০ টাকা বিনিয়োগে ১ বছরে ৭০ টাকা সুদ পেলেন। সেটি পরের বছরে মূলধন হবে ১০০৭ টাকা। সেক্ষেত্রে ২য় বছরে সুদ হবে ৭.৪৯ টাকা। অর্থাৎ চক্রবৃদ্ধি সুদে, সুদের উপর ও সুদ পাওয়া যায়।
৬. আয়কর আইন 1961 এর ধারা 80C এর অধীনে NSC তে বিনিয়োগ করে 1.5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত কর সঞ্চয় বা Tax Exemption করা যেতে পারে।

E Shram Card (ই শ্রম কার্ড)

Post Office NSC Scheme Investment Return

Post Office NSC Scheme Calculator

পোস্ট অফিস ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট স্কিম তথা Post Office NSC Scheme interest rate বা সুদের হার বার্ষিক ৭.৭ শতাংশ। এই সুদের হার ফিক্সড অর্থাৎ বাজারে মুদ্রার ওঠাপড়া থাকলেও এখানে নিশ্চিত লাভ পাওয়া যায়। একজন ব্যক্তি যদি সেভিংস সার্টিফিকেট স্কিমে ১ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন, তবে ১ বছরে তার সুদ ৭৭০০ টাকা। ৫ বছর পর তা হবে ৩৮৫০০ টাকা। অর্থাৎ সুদে আসলে মোট হবে ১,৩৮,৫০০ টাকা।

দেশের 40 কোটি জনগণকে টাকা দেবে কেন্দ্র সরকার। পশ্চিমবঙ্গের মানুষ এইভাবে আবেদন করুন।

Post Office NSC Scheme Interest Rate

একইভাবে যদি কেউ একবারে ১০ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন, তবে ১ বছরে সুদ থাকছে ৮০,০০০ টাকা। অতএব ৫ বছর পর আপনি পান প্রায় ৪,০০,০০০ টাকা রিটার্ন অর্থাৎ সুদে আসলে মোট হবে ১৪ লক্ষ টাকা। তাহলে এই স্কিমে বিনিয়োগ করলে সকলের অনেক সুবিধা হতে চলেছে। তাহলে কি আপনারা এই পোস্ট অফিস স্কিমে বিনিয়োগ করতে চাইছেন? কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন।
অর্থনৈতিক আরও পোস্ট পেতে এখানে ক্লিক করুন।
Written by Nabadip Saha.

স্টেট ব্যাংকের নতুন স্কিম। 5 লক্ষ দিন 10 লক্ষ রিটার্ন নিন। খুশি হয়েছে কোটি কোটি মানুষ।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment