Advertisement
PF Account New Rules (প্রভিডেন্ট ফান্ড)
Advertisement

সরকারী ও প্রাইভেট সেক্টরের কর্মীদের অবসর সময়ে PF Account বা প্রফিডেন্ট ফান্ড অবসরকালীন বড় একটি অবলম্বন হয়ে দাঁড়ায়। বৃদ্ধ বয়সে এই জমানো টাকা গুলো শেষ বয়সে স্বাচ্ছন্দ্যে কাটাতে সাহায্য করে। আর এবার এই PF Account নিয়ে নতুন নির্দেশিকা জারি করলো কেন্দ্র সরকার। আর মনে রাখবেন, এই নিয়ম সারা দেশের সমস্ত কেন্দ্র, রাজ্য সরকারি কর্মী এবং বিভিন্ন প্রাইভেট সেক্টরের কর্মীদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে।

Advertisement

PF Account New Rules:

জেনারেল প্রভিডেন্ট ফান্ডে জমার ক্ষেত্রে চাকরিজীবীদের জন্য এবার নতুন নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। এতদিন পর্যন্ত সরকারি কর্মীদের জিপিএফ বা জেনারেল প্রভিডেন্ট ফান্ডে বিনিয়োগ করার জন্য কোনো ঊর্ধ্বসীমা ছিল না। কিন্তু এবার জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এক আর্থিক বছরে সর্বাধিক ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারবেন সরকারি কর্মচারীরা। তার বেশি নয়।

কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ন্ত্রিত অ্যাকাউন্ট‍্যান্ট জেনারেলের (এজি) দপ্তর PF Account এর এই তহবিল দেখাশুনা করে। সেই দপ্তরের তরফেই এই নিয়ম পরিবর্তনের কথা জানানো হয়েছে।
অবসর গ্রহণের পরে সরকারি কর্মীরা তাদের জিপিএফে সঞ্চয় করা টাকা সুদ সহ পেয়ে থাকেন। প্রতি তিন মাস অন্তর জিপিএফে সঞ্চিত টাকার উপরে সুদের হার পরিবর্তন করে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক। বর্তমানে সেই সুদের হার রয়েছে ৭.১ শতাংশ।

Advertisement

নতুন বছরে SBI এর গ্রাহকদের জন্য মস্ত বড় খুশির খবর। ফিক্সড ডিপোজিটে সুদের হার বাড়ালো SBI.

সরকারি কর্মীদের মূল বেতনের অন্ততপক্ষে ৬ শতাংশ প্রতিমাসে জিপিএফে জমা হয়। এই ব্যবস্থা বর্তমানে চালু রয়েছে। ১৯৬০ সালের নিয়ম অনুযায়ী এই তহবিলে বিনিয়োগের কোনো সীমা ছিল না। সরকারি কর্মীরা বেতনের এক শতাংশ সঞ্চয় করতে পারতেন জিপিএফে। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার জি পি এফ এর বিনিয়োগ সংক্রান্ত নিয়মে পরিবর্তনের কথা এক নির্দেশিকায় জানিয়ে দিয়েছে।

EK24 News

 31 ডিসেম্বরের আগে মাত্র 1 টাকা জিও রিচার্জেই পাবেন বিরাট সুবিধা।

রাজ্য সরকারও কর্মীবর্গের ক্ষেত্রে কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রীয় নির্দেশ প্রয়োগের সেই কথা জানিয়ে দিয়েছে। ৬৩ বছর আগেকার পুরনো নিয়মবিধিতে এবার পরিবর্তন করা হয়েছে। আর কেন্দ্রের এই নিয়মের পর, যে সমস্ত সরকারী ও প্রাইভেট সংস্থা কর্মীদের প্রভিডেন্ট ফান্ডের সুবিধা দিয়ে থাকে, সকলের ক্ষেত্রে আলাদা করে এই নির্দেশিকা প্রকাশিত হবে।
Written by Rajib Ghosh.

Advertisement
Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement