Advertisement
RS 2000 Note Ban (২০০০ টাকার নোট বাতিল)
Advertisement

ফের কি নোটবাতিল – RS 2000 Note Ban?

আরো একবার কি দেশে হতে চলেছে নোটবন্দি (RS 2000 Note Ban)? নোট বাতিলের প্রক্রিয়া কি আবার শুরু করতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার? এরকম ধারণাই তৈরি হচ্ছে। আর এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) বক্তব্যে সেই কথা আরও স্পষ্ট হলো। আর তিনি যা বলেন তা ঠিক করেই ছাড়েন, সেকথা সকলেরই জানা। তাই একপ্রকার ধরেই নেওয়া যায়, RS 2000 Note Ban হচ্ছে।

Advertisement

২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর রাতারাতি দেশ জুড়ে ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোট বাতিলের ঘোষণা করা হয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সেই নোট বাতিলের ঘোষণার সঙ্গেই নতুন ৫০০ এবং ২০০০ টাকার নোট বাজারে প্রচলন এর কথা জানিয়ে দেন। রাতারাতি এই ধরনের সিদ্ধান্তের ফলে দেশজুড়ে সাধারন মানুষের মধ্যে আশঙ্কা তৈরি হয়ে যায়। ব্যাংকের সামনে দেখা যায় দীর্ঘ লাইন। মানুষ সেই লাইনে দাঁড়িয়ে নোট জমা দিতে গিয়ে অনেক সময় বহু সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন। এই বিষয়ে পরবর্তীতে বিরোধী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের তরফে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। কিন্তু এবার ফের সেই আশঙ্কাই মাথাচাড়া দিচ্ছে। তার কারণ কি?

লোকসভায় চলছে শীতকালীন অধিবেশন। শাসক বিরোধী বিভিন্ন ইস্যুতে সংসদে বক্তব্য পেশ করছেন। আর এর মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানান, ২০০০ টাকার নোটের বেআইনিভাবে ব্যবহার হচ্ছে। ২০০০ টাকার নোট নিয়ে পুনরায় চিন্তা ভাবনা করার প্রয়োজন রয়েছে। অর্থাৎ সংসদেই RS 2000 Note Ban এর জল্পনা যে একেবারেই অমূলক নয়, সেকথা জানিয়ে দিলেন। এবার শুধু অফিসিয়ালি ঘোষণার অপেক্ষা।

Advertisement

২০০০ টাকার নোটের ব্যবহার নিয়ে বিজেপির অন্দরেও একাধিক প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। বিজেপির বিভিন্ন নেতা, মন্ত্রীরাও এই ২০০০ টাকার নোটের সমস্যাটি তুলে ধরেছেন। রাজ্যসভার সাংসদ সুশীল মোদী ২০০০ টাকার নোটের অবৈধ ব্যবহার নিয়ে সরব হন। তিনি বলেন, গোলাপি রঙের ২০০০ টাকার নোট আর বাজারে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। এমনকি এটিএম থেকে ২০০০ টাকার নোট পাওয়া যাচ্ছে না। আর এই পরিস্থিতি নিয়েই দেশজুড়ে গুজব তৈরি হচ্ছে। তবে RS 2000 Note Ban এটা যে গুজব নয়, Narendra Modi এর কথায় তা স্পষ্ট।

PNB ব্যাংক গ্রাহকদের টাকা তোলা বন্ধ করা হয়েছে, কি করলে আবার টাকা তুলতে পারবেন।

এই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানান, কেন্দ্রীয় সরকার ডিজিটাল লেনদেনের উপর জোর দিতে চলেছে। তাই ২০০০ টাকার মতো বড় নোটের আর প্রয়োজন নেই। মূলত এই ২০০০ টাকার বড় নোট মানি লন্ডারিং, মাদক ব্যবসা এবং সন্ত্রাসবাদের মত মারাত্মক অবৈধ কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদী জানান, ২০০০ টাকার নোট নিষিদ্ধ হওয়ার প্রয়োজন। প্রায় ৩ বছর ধরে ২০০০ টাকার নোট ছাপানো হচ্ছে না। যেকোনো ধরনের অবৈধ কাজে ব্যবহারের জন্য এই বড় নোট ব্যবহার করা হচ্ছে।

EK24 News

সংসদ যখন শাসক- বিরোধীদের বক্তব্যে সরগরম হয়ে রয়েছে, ঠিক সেই সময় প্রধানমন্ত্রী মোদি ২০০০ টাকার বড় নোটের অবৈধ ব্যবহার নিয়ে মন্তব্য করায় আরো একবার এই RS 2000 Note Ban বা নোট বাতিল করার মতো সিদ্ধান্তে সরকার এগোতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। সাধারণ মানুষের কাছে ২০০০ টাকার নোট থাকলেও অন্য ধরনের সমস্যা তৈরি হচ্ছে। কারণ বাজারে গিয়ে ২০০০ টাকার নোট খুচরো করা যথেষ্ট সমস্যার বিষয়। ফলে এত বড় মাপের নোট আদৌ আর রাখার প্রয়োজনীয়তা আছে কিনা সেই বিষয়টি নিয়েও সরব হয়েছেন বিজেপির একাধিক নেতারা।

Advertisement

লটারি টিকিট জেতার গোপন রহস্য ফাঁস, আন্দাজে না কেটে ডেল্টা নিয়মে একবার কেটে দেখুন।

এই বিষয়ে বিজেপি নেতা সুশীল মোদী বলেন, কোনো বড় অর্থনীতির দেশে এত বড় নোট নেই। আমেরিকা, চীন, কানাডা, সেখানে ২০০ টাকার নোটের অধিক মূল‍্যের নোট নেই।
প্রধানমন্ত্রীর কথায় ২০০০ টাকার বড় নোট একমাত্র অবৈধ কাজেই ব্যবহার হচ্ছে। তাই এখন দেখার বিষয়, ২০০০ টাকার এই নোট আবার RS 2000 Note Ban বাতিল করা হয় কিনা। আপনার কি মনে হয় এই নোট কি বন্ধ করা উচিত? নিচে কমেন্ট করে আলোচনায় অংশগ্রহণ করুন।
Written by Rajib Ghosh.

Advertisement
Advertisement
4 thoughts on “RS 2000 Note Ban – 2000 টাকার নোট বাতিল করার নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী, এই নোট ঘরে থাকলে কি করবেন?”
  1. ২০০০ টাকার নোট বাতিল করার সিদ্ধান্ত ভালো সিদ্ধান্ত।

  2. Md.Bin Tughlak er nabosanskaron Mr.Modi.
    Notebondi kore kato blackmoney recover korte pereche Central Government?

  3. ভালো সিদ্ধান্ত যদি কার্যকরী হয় ! আরো ভালো হয় এসবের দিকে বেশি নজর দিয়ে গরীব, আধা গরীবের রোজগারের ব্যাপারটার উন্নতি সাধন করেন !

  4. Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement