Birth Certificate – এবার ঘরে বসে নতুন বার্থ সার্টিফিকেট আবেদন এবং পুরনো ভুল সংশোধন করার পদ্ধতি জেনে নিন।

বার্থ সার্টিফিকেট বা জন্মের শংসাপত্র (Online Birth Certificate West Bengal) যে কোনো মানুষের কাছেই খুব গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনীয় নথি। স্কুল, কলেজে ভর্তি হওয়া থেকে শুরু করে চাকরি জীবনে যোগদানের সময় বার্থ সার্টিফিকেটটি (Birth Certificate) একমাত্র বয়সের প্রমাণপত্র। শুধু তাই নয়, যে সমস্ত দরকারি নথি পরিচয় পত্র হিসেবে সরকার দ্বারা প্রদান করা হয়ে থাকে, যেমন আধার কার্ড, প্যান কার্ড, ভোটার কার্ড, রেশন কার্ড, পাসপোর্ট সহ সমস্ত কাজকর্ম করার সময়েই জন্মের প্রমাণপত্র হিসেবে বার্থ সার্টিফিকেটের প্রয়োজন হয়।

Advertisement

New Birth Certificate Apply Online:

আর তাই শিশুর জন্মের সঙ্গে সঙ্গেই জন্মের সার্টিফিকেট (Birth Certificate) সংগ্রহ করে নিতে হয়। ২০২২ সালের ৫ মে থেকে জন্মের শংসাপত্র বা বার্থ সার্টিফিকেট অনলাইনে দেওয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। এখন থেকে বার্থ সার্টিফিকেট নেওয়ার জন্য কোনো জায়গায় লাইন দিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হবে না। অনলাইনের মাধ্যমে কয়েক মিনিটেই বার্থ সার্টিফিকেট পেয়ে যাবেন। এবার সার্টিফিকেট পাওয়ার পরে দেখা যাচ্ছে বহু জায়গায় ভুল রয়েছে।

Advertisement

আর তাই সেই ভুল সংশোধন করা প্রয়োজন। তা না হলে পরবর্তীতে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। আর সেই সময় সহজে সমাধান করাও যাবে না‌। ফলে জন্ম সার্টিফিকেটে (Birth Certificate) কোনো ভুল থাকলে এক্ষুনি সংশোধন করে নিন। বর্তমানে অনলাইনেই বার্থ সার্টিফিকেট সংশোধন (Online Birth Certificate Correction) করে নেওয়া যায়। মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই ভুল ঠিক করে নিতে পারবেন। এবার দেখে নেওয়া যাক, অনলাইনে কিভাবে জন্মের শংসাপত্র বা বার্থ সার্টিফিকেটের ভুল সংশোধন করে নিতে পারবেন।

Online Birth Certificate Correction:

প্রথমেই janmamrityutathya.wb.gov.in এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
এবার Citizen Services-এ ক্লিক করুন।
এরপর Birth অপশন থেকে Birth Certificate Correction-এ ক্লিক করুন।
পরের পেজে জন্ম সার্টিফিকেটের নাম্বার বসিয়ে লগইন করুন।
ওই সার্টিফিকেটে যা সংশোধন করতে চাইছেন সেটি ঠিক করে নিয়ে Submit করুন।

1 লা এপ্রিল থেকে মধ্যবিত্তের খরচ বেড়ে গেল। দেখুন এই নিয়মগুলি।

এরপর Track Application-এ ক্লিক করে দেখে নিন Approved হয়েছে কিনা।
যদি স্ট্যাটাস চেক করে দেখেন এপ্রুভ হয়েছে, তাহলে অনলাইনে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।
এছাড়াও সম্প্রতি বার্থ সার্টিফিকেটে নামের ভুল থাকলেও সংশোধন করে নিতে পারবেন। অনলাইনেই কয়েক মিনিটে সেই কাজটিও করে ফেলা সম্ভব।

Advertisement

RBI এর নিয়ম না মানায়, মহা বিপদে 6 টি ব্যাংক। এই ব্যাংকে আপনার একাউন্ট নেই তো?

তবে তার জন্য শিশুর নামের বানান সঠিক করে এফিডেভিট করে সেই কপি PDF বা JPEG Format-এ অনলাইনে আপলোড করতে হবে। তারপর ১৫ থেকে ২০ দিনের মধ্যেই বাথ সার্টিফিকেট পেয়ে যাবেন।
Written by Rajib Ghosh.

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment