Advertisement
Online Admission Portal 2022
Advertisement

Online Admission Portal : অনলাইনেই কলেজ,বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু।

দীর্ঘ অপেক্ষার পর, অবশেষে আজ থেকেই শুরু হলো স্নাতক স্তরের জন্য কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ভর্তির (Online Admission Portal) প্রক্রিয়া। আগের মতই অনলাইনে ভর্তি নেবে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। কেন্দ্রীয়ভাবে রাজ্যের কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক স্তরে অনলাইনে ভর্তির (Online Admission) জন্য উদ্যোগী হয়েও প্রস্তুতির অভাবে পিছিয়ে আসতে হয়েছে।

Advertisement

তবে এর আগে কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে যেভাবে অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া চলতো, ঠিক সেই ভাবেই আগামী সোমবার থেকে সেই ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হতে চলেছে। অর্থাৎ পুরনো পদ্ধতিতেই এবার ও ভর্তি (Online Admission Portal) হবে।

রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দপ্তর যে নির্দেশিকা জারি করেছে তাতে বলা হয়েছে, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে পুরোপুরি অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে। গত কয়েক বছরের মতো কাউন্সেলিং, নথি যাচাইয়ের জন্য পড়ুয়াদের কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাকা যাবেনা।

Advertisement

পড়ুয়ার নাম মেধাতালিকায় প্রকাশ হওয়ার পরে ভর্তির ফি অনলাইনে জমা দিতে হবে। পাশাপাশি এর আগে জানানো হয়েছিল, কলেজে ভর্তির (Online Admission Portal) জন্য কোনোরকম হেল্প ডেস্ক করা চলবে না। তবে এর মধ্যেই কয়েকটি কলেজ অধ‍্যক্ষের অভিযোগ, কলেজ চত্বরে ছাত্র সংগঠনের নেতা কর্মীদের আনাগোনা শুরু হয়েছে।

অভিযোগ, কলেজগুলিতে এর আগেই অধিকাংশ ছাত্র সংসদ টিএমসিপির দখলেই ছিল। 6 বছর ধরে রাজ্যের কলেজগুলিতে ছাত্র সংসদের কোনো নির্বাচন হয়নি। তাই এর আগে কলেজের ছাত্র সংসদ যাদের দখলে ছিল সেই টিএমসিপির নেতাকর্মীরাই কলেজ চত্বরে আসা যাওয়া শুরু করেছেন বলে অধ্যক্ষদের একাংশের অভিযোগ।

EK24 News

কেবলমাত্র পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত পড়ুয়াদের জন্য 10 হাজার টাকা নতুন স্কলারশীপ

যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজের অধ্যক্ষ বলেন, তাদের কলেজ চত্বরে যে সমস্ত ছাত্রনেতা কর্মীরা ঘুরে বেড়াচ্ছেন, তাদের আচরণ ছাত্রসুলভ নয়। কলেজের সেমিস্টার পরীক্ষা চলছে। মধ্য কলকাতার অন্য আরেকটি কলেজের অধ্যক্ষের কথায়, অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া চললেও বহু পড়ুয়া কলেজে এসে খোঁজখবর নেন। ছাত্র নেতারা তাদের সঙ্গেই যোগাযোগ করেন। এখন কলেজে পরীক্ষা চললেও ছাত্রনেতা এবং তাদের দলবল কলেজ চত্বরে ঘুরছেন।

Advertisement

কেন্দ্রীয়ভাবে কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে ভর্তির (Online Admission Portal) বিষয়টি চূড়ান্ত করে রাজ্য সরকার পিছিয়ে যায়। কয়েকটি জায়গায় ছাত্র ভর্তি নিয়ে বিভিন্ন ধরনের দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। এদিকে শিক্ষামহলের একাংশের মত, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি শুরু হলে দুর্নীতি বন্ধ হবে। তবে এবার সেটা শুরু হলো না।

এই বিষয়ে টিএমসিপির রাজ্য সভাপতি ত্রিনাঙ্কুর ভট্টাচার্য বলেন, ছাত্র সংসদ কোনোভাবেই অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়ার (Online Admission Portal) সঙ্গে থাকবে না। ভর্তি প্রক্রিয়া স্বচ্ছতার সঙ্গে চলুক সেটাই চাই। ভর্তি হতে ইচ্ছুক যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা তারা যেন প্রলোভনের ফাঁদে পা না দেন।

জিও তে 3 মাসের রিচার্জ সম্পূর্ণ বিনামূল্যে, কারা পাবেন এই অফার দেখুন।

কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ছাত্র সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত নেতাকর্মীরা থাকবেন এটাই স্বাভাবিক। ছাত্র রাজনীতির (Student Politics) সঙ্গে যারা যুক্ত, তারা ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা, দাবি দাওয়া নিয়ে কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করবেন। এটাই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার রীতি। রাজনৈতিক জগতে প্রতিষ্ঠিত বহু নেতা, মন্ত্রীরা ছাত্র রাজনীতির হাত ধরেই উঠে এসেছেন। রাজনৈতিক চেতনাবোধ, শিক্ষা শুরু হয় ছাত্র রাজনীতির মাধ্যমেই।

Advertisement

তাই কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র রাজনীতি শুরুর মধ্যে দিয়েই পথচলা শুরু হয় অনেকের। সে যে কোনো রাজনৈতিক দলের সংগঠনই হোক না কেন। ভর্তির (Online Admission Portal) বিষয়ে আপনাদের কোনও মতামত বা প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করতে পারেন।
Written by Rajib Ghosh.

আরো পড়ুন, বিয়ে ঠিক হলেই মেয়েরা গুগলে সর্বপ্রথম কি সার্চ করে! জানলে তাজ্জব হবেন আপনিও।

Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement