Old Note and Coin Selling – পুরানো নোট বা কয়েন থাকলেই, শুধুমাত্র একটি ক্লিকেই ,বাড়িতে বসেই রোজগার করবেন ৫ লক্ষ টাকা !!

Old Note and Coin Selling – পুরাতন নোট বা কয়েন থাকলেই লাখপতি হওয়ার সুযোগ।

Old Note and Coin Selling – আমরা সকলেই চাই অনেক বেশি পরিমাণে টাকা রোজগার করতে, আর বর্তমানে প্যানডেমিক পরিস্থিতে অনেকেই চাকরি হারিয়েছেন। তাই কোনো সহজ ব্যাবসার মাধ্যমে যদি আপনি ঘরে বসেই লক্ষ লক্ষ টাকা রোজগার করতে পারেন সে তো সোনায় সোহাগা পুরো। আজকে আমরা এমন এক ধরনের ব্যাবসা নিয়ে আলোচনা করবো যার মাধ্যেমে আপনি ঘরে বসে কম ইনভেস্টমেন্টে খুব দ্রুত লক্ষ লক্ষ টাকা উপার্জন করবেন।

Advertisement

আপনি যদি ৫ লক্ষ টাকার ওপর রোজগার করতে চান তাও আবার শুধুমাত্র বাড়িতে বসেই তাহলে এই ব্যবসার ব্যাপারে বিস্তারিত জেনে নিন। Old Note and Coin Selling এখন একটি জনপ্রিয় ডিল। কারন পুরাতন জিনিসের চাহিদা বাজারে খুবই বেশি।

∆ যদি আপনার বাড়িতে পুরনো কোন টাকা থাকে তাহলে সেটির মাধ্যমে আপনি লক্ষ লক্ষ টাকা রোজগার করতে পারেন। পুরনো পয়সার মাধ্যমে আপনি হতে পারেন লাখপতি।

Advertisement

কোন কোন নোট বা কয়েনের চাহিদা হয়েছে (Old Note and Coin Selling)

∆ এখন বাজারে পৌরাণিক অথেন্টিক জিনিসের চাহিদা অত্যন্ত বেশি। যেকোনো রকম পৌরাণিক জিনিসের লক্ষ টাকা দাম হতে পারে। ১৯৯৮ সালের ২ টাকার কয়েন যদি আপনার কাছে সংগ্রহিত থাকে তাহলে সেটা থেকে আপনি পাঁচ লক্ষ টাকা রোজগার করতে পারেন। কারণ বহু বছর পুরনো ওই অথেন্টিক পয়সাটি দাম বাজারে ৫ লক্ষ টাকা। Old Note and Coin Selling

∆ আর যদি এই কয়েনের পিছনদিকে বিশ্ব খাদ্য দিবস এর নকশা থাকে তাহলে সেটি আরও বেশি দামী দুনিয়ার কাছে। আপনার কাছে যদি সেই বহু বছর পুরনো অর্থাৎ ১৯৯৮ সিরিজের কিছু সংখ্যক ২ টাকার কয়েন থাকে সেগুলি আপনি কুইকার ওয়েব সাইটে গিয়ে বিক্রি করার জন্য অ্যাড দিতে পারেন, সেই দুর্লভ মুদ্রাগুলির দাম ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত উঠতে পারে। Old Note and Coin Selling

∆ এমনকি রানী ভিক্টোরিয়ার শাসনকালের সময়ে কিছু অ্যালুমিনিয়ামের ১ টাকার কয়েন পাওয়া যেত, সেই কয়েনগুলি যদি আপনার কাছে সংগ্রহিত থাকে বর্তমানে সেগুলোর দাম দু লক্ষ টাকা। আর ১৯১৮ সালে নির্মিত এক টাকার কয়েন গুলো বর্তমানের নয় লক্ষ টাকার সমান। যদি আপনি উইকন নামক ই-কমার্স সাইটে গিয়ে এগুলো বিক্রি করতে চান তাহলে আপনার কাছে সংগৃহীত কয়েন গুলির অ্যাড সেখানে দিলেই এগুলির বিনিময় আপনি পেতে পারেন লক্ষ টাকা। এই মুদ্রাগুলোর বাজারের চাহিদা বাজারে আকাশছোঁয়া। Old Note and Coin Selling

Advertisement

কিভাবে বেচবেন

∆ এছাড়াও ওএলএক্স (OLX) ওয়েবসাইটের মাধ্যমেও বিক্রি করা যেতে পারে এই পৌরাণিক মুদ্রাগুলো। এই ভাবেই ক্রয়-বিক্রয়ের মাধ্যমে আপনার লক্ষ লক্ষ টাকা উপার্জন হতে পারে। Old Note and Coin Selling

∆ তবে কিছু নিয়মাবলী রয়েছে কয়েন বিক্রির ক্ষেত্রে। যেমন যেকোনো রকম ওয়েবসাইটে যদি আপনি কয়েন বিক্রি করে টাকা রোজগার করতে চান তাহলে সেই কমার্স ওয়েবসাইট গুলো যেমন ওএলএক্স (OLX) এ বিক্রেতা হিসেবে নিজের নাম নথিভুক্ত করা অত্যাবশ্যক। তারপর নিয়ম অনুসারে কয়েনের দুদিকের ছবি তুলে ওএলএক্স ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে অ্যাডের জন্য। এরপরে আপলোড করা হয়ে গেলে নিজের ফোন নাম্বার এবং ইমেইল আইডি অবশ্যই দিতে হবে যাতে ক্রেতা সরাসরি যোগাযোগ করতে পারে।

এরপর নিজের কন্টাক্ট ডিটেইলসের সমস্ত তথ্য ভেরিফাই করে নিতে হবে সেগুলোর সঠিক নাকি। শুধুমাত্র ওএলএক্স ওয়েবসাইট বলে নয় যেকোনো ই-কমার্স ওয়েবসাইট অর্থাৎ কুইকার ওয়েবসাইটের ক্ষেত্রেও এই একই পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে পৌরাণিক মুদ্রা বিক্রয়ের জন্য। এরকমভাবে ক্রয় বিক্রয়ের মাধ্যমে আপনি বাড়ি বসেই লক্ষ লক্ষ টাকা রোজগার করতে পারবেন। Old Note and Coin Selling

এখন কোথায় সেল চলছে?

এই তিনটে নোট থাকলেই ঘরে বসে লাখ টাকা ইনকাম করুন

মাঝে মাঝেই পুরাতন নোট বা কয়েনের সেল (Old Note and Coin Selling) হয় তাই আমাদের ওয়েবসাইটে যোগাযোগ রাখুন। যখনই পুরাতন নোট বা কয়েনের সেল শুরু হবে তখনই আমরা প্রতিবেদনে প্রকাশ করবো। আপনাদের কাছে এই মুহূর্তে নোট বা কয়েন থাকলে নিচে কমেন্ট করতে পারেন, অনেক ক্রেতারা ফোন করে যোগাযোগ করতে পারে। আগের কয়েকটি প্রতিবেদনের কমেন্ট থেকে অনেকেই কয়েন বেচতে পেরেছেন। আপনাদের কমেন্টের মাধ্যমেই জানা গেছে। তবে অনলাইনে কেনাবেচায় সতর্ক থাকবেন।

রেজিস্টার করতে এখানে ক্লিক করুন

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment