Advertisement
New Pension Scheme
Advertisement

New Pension Scheme – পারিবারিক পেনশন পাবেন অবিবাহিত, বিধবা, বিবাহ বিচ্ছিন্না কন্যারা। তবে কিভাবে? জেনে রাখুন।

মহিলাদের সুরক্ষিত করতে এবার বিনামূল্যে পেনশন (New Pension Scheme) দেবে সরকার। এইসব ক্ষেত্রে ফ্যামিলি পেনশন পাবেন সেই সমস্ত অবিবাহিত বিধবা অথবা বিবাহ বিচ্ছিন্না কন্যা যাদের বয়স ২৫ বছরের বেশি এবং মাসিক আয় ২,৬০০ টাকার বেশি যেন না হয়। এই টাকার পরিমাণ বেড়ে হয়েছে ৩,৫০০ টাকা।

Advertisement

পরবর্তীকালে নতুন রোপাতে যদি পেনশনের পরিমান আরো বাড়ে তাহলে সেই অনুযায়ী পাবেন। যদি আপনি যোগ্য হন আর আপনার কাছে প্রয়োজনীয় সব রকম নথিপত্র থাকে তাহলে পারিবারিক পেনশন পাবেন অবিবাহিত, বিধবা, বিবাহ বিচ্ছিন্না কন্যারা। কিভাবে পাবেন বিস্তারিত দেখে নেওয়া যাক।

অবিবাহিত, বিধবা, বিবাহ বিচ্ছিন্না কন্যার পারিবারিক পেনশন আমৃত্যুকাল পেয়ে যাবেন যদি অবিবাহিত থাকেন। আর তিনি পুনরায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলে এই পেনশন পাবেন না। বিধবা কিংবা ডিভোর্সি কন্যার ক্ষেত্রে এই পেনশন কার্যকর হয়েছে ১০/০১/২০০৮ তারিখ থেকে। আর অবিবাহিত কন্যার ক্ষেত্রে তা কার্যকর হয়েছে ১৩/০৪/২০১০ তারিখ থেকে। সুতরাং আপনি দেখে নিন, যে কন ক্ষেত্রে আপনি আবেদনযোগ্য।

Advertisement

কিভাবে পাওয়া যাবে এই পেনশন?
সংশ্লিষ্ট দপ্তরে এই পেনশন (New Pension Scheme) এর জন্য প্রথমে আবেদন করতে হবে। প্রয়াতঃ মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক/অশিক্ষক কর্মচারীর ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন জানাতে হবে। আর প্রয়াতঃ প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকাদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ডিআই অফ স্কুলস- এর নিকট আবেদন জানাতে হবে। উভয় ক্ষেত্রেই প্রয়োজনীয় নথিপত্রসহ আবেদন জানাতে হবে।

আবেদন করার জন্য কি কি নথিপত্র দরকার?
আবেদন জানানোর জন্য বেশ কিছু নথিপত্র সহকারে আবেদন জানাতে হবে। নথিপত্রগুলি সঠিকভাবে প্রদান করলে সেগুলি যাচাই হবার পরেই তিনি পেনশন (New Pension Scheme) পাবার যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। যে সকল নথিপত্র লাগবে সেগুলি নিছে আলছনা করা হল।

EK24 News

১) আবেদনকারীর ভোটার কার্ডের জেরক্স কপি।
২) বাবা এবং মা এর ডেথ সার্টিফিকেট এর জেরক্স কপি।
৩) বিধবা কন্যার ক্ষেত্রে তার স্বামীর ডেথ সার্টিফিকেট এর জেরক্স কপি।
৪) আবেদনকারীর বাবা এবং মায়ের পিপিও অর্থাৎ পেনশন পেমেন্ট অর্ডার কপি।

Advertisement

৫) বিবাহ বিচ্ছিন্না কন্যার এর ক্ষেত্রে তার কোর্ট এর ডিভোর্স সার্টিফিকেট এর জেরক্স কপি।
৬)আবেদনকারী কন্যার সম্প্রতি তোলা ৪(চার) কপি কালার পাসপোর্ট সাইজের ফটো।
৭) আবেদনকারীর নিজের স্বাক্ষর।
৮)রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক থেকে পেনশন এর অ্যানেক্সার এর- ৪(চার) কপি।

৯) আবেদনকারীর ডেসক্রিপটিভ রোল- ৪(চার) কপি।
১০) আবেদনকারীর মাসিক আয় যে মাসে ৩৫০০ টাকার কম সেই মাসের তথ্য কেন্দ্রীয় বা রাজ্য সরকারের কোন গেজেটেড অফিসার এর দেওয়া শংসাপত্র দাখিল করতে হবে।
(New Pension Scheme)

হাতে মাত্র দুই দিন, জিওতে 75GB আনলিমিটেড ডেটা ভ্যালিডিটি কিভাবে পাবেন দেখে

‘পেনশন পেপার’ তৈরির পদ্ধতিঃ
আবেদনকারী উক্ত নথিগুলিসহ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করবেন। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পেনশনের (New Pension Scheme) জন্য নির্ধারিত ফর্ম এ ‘পেনশন পেপার’ তৈরি করে মৃত কর্মচারীর সার্ভিস বুক সহ ডিস্ট্রিক্ট ইনস্পেক্টর অফ স্কুলস অফিসে পাঠাবেন অনুমোদনের জন্য। ডিস্ট্রিক্ট ইনস্পেক্টর অফ স্কুলস সমস্ত নথিগুলি দেখে সন্তুষ্ট হওয়ার পর তা ডিপিপিজি- তে পাঠাবেন।

Advertisement

সার্ভিস বুক সঙ্ক্রান্ত তথ্য না পাওয়া গেলে কি করবেন?
যদি মৃত কর্মচারীর সার্ভিস বুক এবং পেনশন পেপার (New Pension Scheme) সংক্রান্ত তথ্য অর্থাৎ ‘পেনশন অ্যাডমিসিবিলিটি পেপার বা পিপিও’ ইত্যাদি না পাওয়া যায় সে ক্ষেত্রে বিষয়টি বিস্তারিত লিখে বিদ্যালয় শিক্ষা দপ্তর মাধ্যমে অর্থ দপ্তরের কাছে পাঠাতে হবে। যাতে সার্ভিস ছাড়া ডিপিপিজি তে পেনশন কেস পাঠানো যায়।
এই সকল তথ্যগুলি যেসব সরকারি অর্ডারের ভিত্তিতে লেখা হল তার ‘অর্ডার কপি’ নাম্বারগুলি নিচে দেওয়া হলঃ-
G.O. NO 39-SE(B) তারিখ- 10.01.2008, G.O. NO 95(80)SE(B) তারিখ- 13.04.2010 এবং G.O. NO 96-SE(B) তারিখ- 13.04.2010.

আরও পড়ুন পেনশনভোগীরা এই স্কিমে পাবেন সুনিশ্চিত ভালো Cash রিটার্ন।

কোন অর্ডারটি কবে বেড়িয়েছে তা দেখে নিন।
যেই সকল কন্যার বাবা এবং মা ১০/০১/২০০৮ এর আগে গত হয়েছেন তাদের কন্যা যদি বিধবা অথবা বিবাহ বিচ্ছিন্না হন তাহলে এই পেনশন (New Pension Scheme) পেতে পারেন। এক্ষেত্রে শিক্ষা দপ্তরের অনুমোদন প্রয়োজন। [G.O. NO 621-F(Pen) তারিখ- ১৮/০৭/২০০৭
যদি কোন শিক্ষক/অশিক্ষক-কর্মচারীর প্রতিবন্ধী সন্তান থাকে এবং তাদের কোনও রকম আয় করার ক্ষমতা না থাকে সেক্ষেত্রে ওই প্রতিবন্ধী সন্তান পারিবারিক পেনশন পাবেন, তার অবর্তমানে বিধবা/বিবাহ বিচ্ছিন্না কন্যা পাবেন এই পেনশন। [G.O. NO 432-F(Pen) তারিখ- ২৭/০৭/২০০৮]

কোন পরিবারের ছোট মেয়ে বিধবা হওয়াতে পারিবারিক পেনশন (New Pension Scheme) পাচ্ছেন, তারপর যদি বড় মেয়ে বিধবা হয়, এই ক্ষেত্রে ছোট মেয়ে যদি পুনরায় বিবাহ করেন অথবা মারা যান,ফলে পারিবারিক পেনশন বন্ধ হয়ে যাবে। কিন্তু সেক্ষেত্রে বড় বিধবা মেয়ে পারিবারিক পেনশন (Family Pension) পাবেন। [G.O. NO 432-F(Pen) তারিখ- ০২/০৭/২০০৮]

Advertisement

পেনশন (New Pension Scheme) পাওয়ার ব্যাপারে অনেক রকম খুঁটিনাটি নিয়ম-কানুন রয়েছে। এই সব নিয়ম কানুন গুলো প্রত্যেকেরই অর্থাৎ যারা চাকরীরত বা চাকরীপ্রার্থী- প্রত্যেকেরই বেশ ভালোভাবে জেনে রাখা উচিৎ। কিন্তু আদতে যেগুলো হয়তো আমরা অনেকেই জানি না। ফলস্বরপ, অনেকেই পেনশন পাওয়ার যোগ্য থাকে কিন্তু শুধুমাত্র না জানার কারণে পেনশন পায় না।

সুতরাং আমাদের প্রত্যেকেরই এই সকল বিষয়গুলি নিয়ে চর্চা করা উচিৎ। এই রকম অতি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সঠিক সময়ে পেতে আমাদের পেজটিতে সবসময় লক্ষ্য রাখুন। কারণ আমরা আপনাদের জন্য প্রতিনিয়ত নতুন নতুন খবর আনতে অবিরাম চেষ্টা করে যাচ্ছি। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

আরও পড়ুন, বদলে গেলো ষ্টেট ব্যাংকে টাকা জমা ও তোলার নিয়ম, না মানলে চার্জ কাটবে, দেখুন কি

Advertisement
Advertisement
2 thoughts on “New Pension Scheme – রাজ্যের সকল অবিবাহিত, বিধবা, বিবাহ বিচ্ছন্না মেয়েদের বিনামূল্যে সারাজীবন পেনশন দেবে সরকার, কিভাবে পাবেন দেখুন।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement