Advertisement
নবান্ন স্কলারশীপ (Nabanna Scholarship)
Advertisement

মাধ্যমিক পাশ করলেই নবান্ন স্কলারশীপে আবেদন করুন এখুনি।

রাজ্যের স্কুল বা কলেজের ছাত্রছাত্রীদের জন্য সুখবর। নবান্ন স্কলারশীপের (Nabanna Scholarship) মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের পড়ুয়াদের পড়াশোনার খরচ চালাবে সরকার। যারা কোনওদিন কোনও স্কলারশীপ পায়নি, তারাও পেতে পারে এই সুযোগ। কিভাবে আবেদন করবেন, কি কি প্রক্রিয়া, রইলো বিস্তারিত বিবরণ।

Advertisement

জীবনকে সুন্দরভাবে গড়ে তুলতে পড়াশোনার বিকল্প বলে কিছুই নেই। তাই এই একমাত্র উপায়ে নিজেকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পড়াশোনার গুরুত্ব অপরিসীম। কিন্তু যেকোন কাজের জন্যই প্রথমে প্রয়োজন অর্থ। যদিও রাজ্যে শিক্ষা ব্যবস্থা বিনামূল্যেই দেওয়া হয়। কিন্তু পড়াশোনা চালাতে গেলে আনুসঙ্গিক খরচ থেকেই যায়।

অনেকেই পড়াশোনার পাশাপাশি ভবিষ্যতে চাকরির পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতিও চালিয়ে যায় সাথে সাথে। এবারে রাজ্য সরকার পড়ুয়াদের জন্য নিয়ে এল এক দারুণ সুখবর। এটি হল নবান্ন স্কলারশীপ।
রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিনিয়ত যে সকল স্কলারশিপ দিয়ে ছাত্রছাত্রী এবং চাকরিপ্রার্থীদের বিভিন্ন ভাবে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে তার মধ্যে অন্যতম এই নবান্ন স্কলারশীপ। ন্যুনতম মাধ্যমিক পাশ করে থাকলেই অনায়াসে এখানে আবেদন জানাতে পারবেন। নিচে বিস্তারিত খুঁটিনাটি আলোচনা করা হল।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গ সরকার এর তত্ত্বাবধানে এই নবান্ন স্কলারশীপ (Nabanna Scholarship) চালু হয়েছে এই রাজ্যে। এর সাহায্যে প্রতি বছর রাজ্যের পড়ুয়া তথা ছাত্রছাত্রীদের আর্থিক দিক থেকে সহায়তা করা হয়। অনেক সময় দেখা গিয়েছে যে, অনেকে পড়াশোনার পাশাপাশি সরকারি চাকরি জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

এক্ষেত্রে চাকরির পরীক্ষার জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ বইপত্র কিংবা অনেকে কোচিং সেন্টারে স্পেশাল পড়াশোনার জন্য অর্থের প্রয়োজন পড়ে। এই টাকা জোগাড় করতে অনেকেই হিমশিম খায়। এই স্কলারশিপ সেই সব পড়ুয়াদের জন্য খুব উপকারী এবং আশীর্বাদের মতো কাজ করছে।
নবান্ন স্কলারশিপ এর মধ্য দিয়ে ভালো অঙ্কের টাকা অনুদান হিসেবে প্রদান করা হয়ে থাকে।

EK24 News

রাজ্যের এই প্রকল্পে এ আবেদন করলেই, পড়াশোনার শেষে মিলবে নিজের এলাকায় চাকরি।

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ছাত্র পিছু 10 হাজার করে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয় এই নবান্ন স্কলারশীপ (Nabanna Scholarship) এর মাধ্যমে। সেক্ষেত্রে রাজ্যের বাসিন্দা হওয়ার পাশাপাশি ন্যুনতম মাধ্যমিক পাশ থেকেই এখানে আবেদন করা যেতে পারে।
বিশেষ কয়েকটি যোগ্যতা থাকা দরকার এই নবান্ন স্কলারশিপ এ আবেদন করার জন্য। নিচে সেগুলি বিস্তারে আলোচনা করা হলো।

Advertisement

১) সবার প্রথমে আপনাকে পশ্চিমবঙ্গের একজন স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
২) পশ্চিমবঙ্গে অবস্থিত যেকোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করে থাকতে হবে।
৩) আপনাকে অবশ্যই মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক কিংবা স্নাতক পাশ করতে হবে এই স্কলারশিপ এ আবেদন করার জন্য।
৪) সেক্ষেত্রে মাধ্যমিক/ উচ্চমাধ্যমিক/স্নাতক এদের মধ্যে যেকোনো একটি ক্ষেত্রে পাশ করার পর নতুন কোর্স এ ভর্তি হয়ে থাকলেই এখানে আবেদন করা যাবে।

৫) এখানে একাদশ দ্বাদশ কিংবা স্নাতক স্তরে এই স্কলারশিপ এর জন্য আবেদন জানাতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই 50% থেকে 60% এর মধ্যে নম্বর পেয়ে থাকতে হবে। অন্যদিকে স্নাতকোত্তর এর ক্ষেত্রে আবেদন করতে চাইলে 50% থেকে 53% এ মধ্যে নম্বর থাকতে হবে।
৬) এক্ষেত্রে আবেদনকারীর পারিবারিক বার্ষিক আয় 1 লক্ষ 20 হাজার টাকার মধ্যে হতে হবে, এর বেশি হলে আবেদন করতে পারবেন না।

রাজ্যের সরকারি চাকরির নিয়োগ এর মতো এখানেও আবেদন করতে গেলে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট এর প্রয়োজন। নিচে ডকুমেন্ট এর লিস্ট দেওয়া হলো।
1. যোগাযোগের জন্য একটি বৈধ এবং সক্রিয় মোবাইল নম্বর লাগবে।
2. আগের পরীক্ষার মার্কশিট ও সার্টিফিকেট।
3. একটি ইনকাম সার্টিফিকেট।

Advertisement

4. যেই ব্যাংকে এই স্কলারশিপ এর টাকা পেতে চান তার পাসবুক এর প্রথম পেজ এর জেরক্স কপি।
5. নতুন ক্লাস তথা কোর্সে ভর্তির প্রমাণপত্র।
6. স্ব-ঘোষণার পত্র যেখানে আপনার এবং আপনার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সিগনেচার থাকবে।
7. প্রধান, বিধায়ক কিংবা সরকারি উচ্চ পদস্থ যেকোনো ব্যক্তির সুপারিশ পত্র।

এবারের পুজোয় বাজার মাতাচ্ছে এই 5 টি পোশাক, পুজোয় সাজিয়ে তুলুন ট্রেন্ডিং নতুন স্টাইলে।

রাজ্যের এই নবান্ন স্কলারশীপ এর জন্য আবেদন জানাতে পারবেন মূলত অফলাইনের মাধ্যমে। সেক্ষেত্রে নিম্নলিখিত ধাপগুলি অনুসরণ করে আবেদন করতে হবে।
1. সবার প্রথমে আপনাকে একটি আবেদনপত্র বানিয়ে নিতে হবে নিজের হাতে যেটি নিজের যাবতীয় সকল প্রকার তথ্য দিয়ে ভালো করে পূরণ করে নিতে হবে।
2. নিজের নাম, অভিভাবকের নাম, শিক্ষাগত যোগ্যতা, বয়স, জেন্ডার, ঠিকানা, কাস্ট স্ট্যাটাস, মোবাইল নম্বর ইত্যাদি সকল প্রকার তথ্য দিয়ে দেবেন।

3. উপরোক্ত ডকুমেন্ট গুলি জেরক্স এবং সেল্ফ অ্যাটেস্টেড করে এই আবেদনপত্রের সঙ্গে যুক্ত করে দিতে হবে।
4. এগুলি সব একটি খামের মধ্যে করে নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে নির্দিষ্ট ঠিকানায় পৌঁছে দিতে হবে।
5. সেক্ষেত্রে পোস্ট অফিসের মাধ্যমে আপনি আপনার আবেদন পাঠিয়ে দিতে পারেন।

Advertisement

আবেদন পাঠানোর ঠিকানা:
The Assistant Secretary, Chief Minister’s Office, ‘Nabanna’
325, Sarat Chatterjee Road, Howrah – 711102.

এই ঠিকানায় আবেদনপত্র পৌঁছলে নির্দিষ্ট অধিকারেরা তা যাচাই করে দেখবেন। যোগ্য হলে আপনার দেওয়া নির্দিষ্ট একাউন্ট নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হবে। এরকম আরো তথ্য পেতে আমাদের সাথে থাকুন। ধন্যবাদ।
Written by Mukta Barai.

Advertisement
Advertisement
One thought on “নবান্ন স্কলারশীপ 2022 – আবেদন শুরু, যারা কোনদিন স্কলারশীপ পায়নি, তাদের পড়াশোনার সমস্ত খরচ দেবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement