mobile side effects on eyes

মোবাইল ফোন যেমন আমাদের দৈনন্দিন জীবনযাত্রাকে খুব সহজ করে দিয়েছে (Mobile Side Effects on Eyes) ঠিক তেমন ভাবেই মোবাইল ফোনের উপরে আমরা ভীষণ ভাবে নির্ভরশীল হয়ে পড়েছি। অনেক ক্ষেত্রে অজান্তেই আমরা নিজেদের বিপদ ডেকে আনছি। আপনি কি জানেন, যে অতিরিক্ত মোবাইল ফোনের ব্যাবহারে বদলে যাচ্ছে মানুষের চোখের গড়ন, এমনকি মোবাইল ফোনের অতিরিক্ত ব্যবহারের কারনে ক্রমশঙ্খতির দিকে যাচ্ছে চোখ কান এমনকি মস্তিস্কের। বিশেষ করে অতিমারির সময় থেকে এই ব্যবহার আরও বেড়ে গিয়েছে। তার প্রভাব পড়ছে চোখে। চোখের গড়ন বদলে যাচ্ছে পাকাপাকি ভাবে। এমনই বলছে আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য গবেষণা সংস্থার গবেষণা রিপোর্ট।

সাধারণত মোবাইল ফোনের ব্যবহারের সময়ে আমরা সেটিকে চোখের খুব কাছে ধরি। সেই যন্ত্রের আলোর সঙ্গে খাপ খাওয়াতেই চোখের গড়ন বদলে যাচ্ছে। বিজ্ঞান বইতে চোখের যে গোলাকার গড়নের ছবি দেখে আমরা অভ্যস্ত, তা বদলে এখন অনেকটা জলপাইয়ের আকার নিচ্ছে অক্ষিগোলক। চোখের সামনের দিকটা বাইরের দিকে বেরিয়ে আসছে এর ফলে। এমনই বলছেন ইংল্যান্ডের কয়েক জন চক্ষুবিদ। তবে এর শেষ এখানেই নয়। এই হারে চোখের গড়নে বদল আসলে, তার প্রভাব পড়বে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের উপরেও। এমনই আশঙ্কা বিজ্ঞানীদের। (Mobile Side Effects on Eyes)। তাহলে এর থেকে বাচার উপায় কি?

কী বলা হয়েছে সংস্থার এই গবেষণাপত্রে? রিপোর্টে বলা হয়েছে, প্রতি দিন গড়ে ৬ ঘণ্টা ৫৫ মিনিট ফোনের দিকে তাকিয়ে থাকেন মানুষ। যত ক্ষণ জেগে থাকেন, তার প্রায় ৪৬% সময়ই কাটে ফোন বা কম্পিউটার সামনে বসে। তার ফলেই চোখের গড়নে বদল আসছে। এর সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়ছে শিশুদের উপর। বড়দের চোখ আগের অবস্থায় ফিরে যেতেও পারে। কিন্তু শিশুদের ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে তেমন কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই। কারণ ১৬-১৭ বছর বয়সের আগে পর্যন্ত তাদের চোখের বিকাশ সম্পূর্ণ হয় না। এই সময়ে মোবাইল ফোনের অতিরিক্ত ব্যবহার তাদের চোখের গড়ন পাকাপাকি বদলে দেয়। (Mobile Side Effects on Eyes)

আরও পড়ুন চুল পড়ে কেন? অতিরিক্ত চুল পড়া বন্ধের ঘরোয়া সমাধান।

কেন এমন হয়? চিকিৎসকরা বলছেন, মোবাইল ফোনের দিকে তাকানোর সময়ে আমরা এমন ভাবে তাকাই, যাতে ফোকাসটি থাকে ফোনের পর্দার উপর। (Mobile Side Effects on Eyes) তার পিছনের সব কিছুকে আমরা যত ঝাপসা দেখব, ততই স্পষ্ট হবে ফোনের ছবি। দীর্ঘ দিন এটি চলতে থাকলে, চোখও চেষ্টা করে আলো যাওয়ার পথটিকে সরু করে দিতে। তাতেই বদলায় চোখের গড়ন। একে চিকিৎসার পরিভাষায় বলা হচ্ছে শর্ট সাইটেড আই (Short Sighted Eye)।

EK24 News

কী করে এই সমস্যা কমাবেন? চিকিৎসকরা বলছেন, দিনের মাথায় অন্তত দুই ঘণ্টা বাড়ির বাইরে কাটান। রোদে ঘোরাঘুরি করতে পারেন। তাতে সমস্যা কমবে। আর ২০ মিনিট টানা কাজ করার পরে ২০ সেকেন্ডের জন্য এমন কোনও কিছুর দিকে তাকান, যা আপনার থেকে অন্তত ২০ ফুট দূরে রয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.