Land Tax Calculator – আর ছাড় নেই। এবার কৃষি জমিতেও ট্যাক্স দিতে হবে। আয়করের নতুন নিয়মে কৃষকদের মাথায় হাত।

Land Tax বা জমির ট্যাক্স নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ খবর। আমাদের দেশে যারা বেতনভুক শ্রেণীর কর্মচারী (Salaried Employee) এবং যাদের বার্ষিক আয় ৫ লক্ষ টাকারও উপরে তাদের আয়কর (Income Tax) দিতে হয় সরকারকে। এই নিয়ম আমরা সকলেই জানি। কিন্তু কৃষকদের (Indian Farmers) যে সমানভাবে আয়কর দেওয়ার নিয়ম রয়েছে, তা জানেন কি? হ্যাঁ, এ কথা ঠিক। আমাদের দেশে যে সমস্ত লোকের কৃষিজমি রয়েছে এবং যারা চাষাবাদ করে খায় তাদেরকেও আয়কর দিতে হয় সরকারের কাছে (Land Tax).

Advertisement

Land Tax Calculator 2024.

তবে শুধু যে চাষাবাদের আয়ের জন্যই কর লাগে তা নয়, কৃষক (Farmer) যদি তার জমি (Agricultural Land) কারুর কাছে বিক্রি করে দেন তবে সেই প্রাপ্ত টাকার উপরও কর দিতে হয় তাকে। কিন্তু সরকারের এই কর (Land Tax) নেওয়ার ক্ষেত্রে বেশ কিছু নিয়ম রয়েছে। মানে কোন কোন কৃষকরা কর দেওয়ার যোগ্য আর কারা নন, সেই বিষয়ে উল্লেখ করেছে ভারতীয় আয়কর বিভাগ জেনে নেব।

Advertisement

ভারতে কৃষি জমি কয় ধরনের?

আমাদের দেশে স্থানভেদে কৃষিজমিকে দুই ভাগে ভাগ করেছে সরকার। একটি গ্রামীন এলাকার জমি। আর অপরটি শহুরে এলাকার জমি। গ্রামে চাষাবাদ বেশি হয়। তাই এই ধরনের জমি গুলিকেই আমরা কৃষি জমি হিসেবে বেশিরভাগ জেনে থাকি। কিন্তু শহরেও কৃষি জমি রয়েছে। তবে তা চাষ আবাদের জন্য নয়। শহর এলাকায় অনেক জমি দেখা যাবে ফাঁকা পড়ে থাকতে (Land Tax).

যে গুলিতে না চাষাবাদ (Agriculture) হয়, না বাড়ি ঘর বা শিল্প কারখানা বা অন্য কোনো স্থাপত্য তৈরি হয়। আয়কর বিভাগের (Income Tax Department) কাছে এই পতিত জমি গুলিও কৃষি জমি হিসেবেই গণ্য। আর এই গুলির ওপরই ট্যাক্স (Land Tax) ধার্য করে তারা। সুতরাং ধার্য করা কর কৃষক হোক বা জমির মালিক সকলকে দিতেই হবে বলে মনে করছেন অনেকে।

কোন কৃষি জমি গুলি ট্যাক্স যোগ্য?

  • ভারতে শহুরে এলাকার সেই সমস্ত পতিত জমি গুলির মধ্যেও আবার সব জমিকে যে করের আওতায় ফেলা হয় তা নয়।
  • আয়করের নিয়ম অনুযায়ী, বিশেষ স্থানে থাকা জমি গুলিই এক্ষেত্রে কর যোগ্য (Land Tax). আয়কর ধারা ২ (১৪) আমাদের জানায়।
  • কোনো জমি যদি পৌরসভা এলাকা, ক্যানটনমেন্ট বোর্ড, নোটিফায়েড এরিয়া কমিটি, অন্যান্য সরকারি দপ্তরের অধীনে থাকে।
RS 500 Indian Currency Ban (৫০০ টাকার ভারতীয় মুদ্রায় রামের ছবি)
  • সেই সমস্ত জমি গুলিতে বসবাসকারী লোকের সংখ্যা যদি ১০ হাজারের বেশি হয়।
  • উক্ত জমির ব্যাসার্ধ যদি ২ কিমি, ৪ কিমি, ৬ কিমি বা তার বেশি হয়।
  • সে ক্ষেত্রে এই সমস্ত জমি গুলি কে কৃষি জমি হিসেবে গণ্য করা হয় না।
  • ফলে সে গুলি থেকে ট্যাক্স (Land Tax) নেওয়া যায় না।

ভোটের আগে বিরাট ঘোষণা। ইনকাম ট্যাক্সে ছাড় বাড়তে চলেছে!! বেতনভুক ও কম আয়ের মানুষদের বিরাট সুবিধা।

অন্যদিকে কোন জমি যদি এই সমস্ত শর্ত না মানে, অথচ ফাঁকা পড়ে রয়েছে, তখন সেই জমিকে কৃষি জমি বলে আয়কর বিভাগ। আর এই সমস্ত জমির যারা মালিক তাদেরকে ট্যাক্স (Land Tax) দিতে হয় সরকারের (Government) কাছে। আর যেই সকল মানুষদের কাছে এই ধরণের জমি আছে তাদের উপরোক্ত নিয়ম অনুসারে সরকারকে জমির ট্যাক্স দিতে হবে।
Written by Nabadip Saha.

Advertisement

চাকরি না করেও প্রতিমাসে 5000 টাকা পেনশন পাবেন।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment