Advertisement
by election mamata banerjee
Advertisement

বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বাংলার ক্ষমতা তৃতীয়বার দখলের পরও নিজে মুখ্যমন্ত্রী হতে চাননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় Mamata Banerjee। তিনি চেয়েছিলেন, দলের অন্য কোনও নেতা মুখ্যমন্ত্রী হোন। সেক্ষেত্রে তৃণমূলের চেয়ারম্যান হিসাবে মুখ্যমন্ত্রীকে সবরকম সাহায্য করার আশ্বাসও দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার ভবানীপুর কেন্দ্রে দলের কর্মিসভায় নিজেই একথা জানিয়েছেন মমতা। তৃণমূল কংগ্রেস TMC বিধানসভা নির্বাচনে ২১৩ আসন নিয়ে ক্ষমতায় ফিরলেও নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা করা ফলাফল অনুযায়ী নন্দীগ্রাম কেন্দ্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে পরাজিত হয়েছেন। যদিও, সে ফলাফল নিয়ে বিতর্ক আছে। ফলাফলে কারচুপির অভিযোগ তুলে ইতিমধ্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আদালতে মামলাও করেছেন। আর সম্ভবত এসব বিতর্কের জন্যই সেসময় মুখ্যমন্ত্রী হতে চাননি মমতা। বুধবার ভবানীপুরের কর্মিসভায় সুব্রত বক্সিকে উদ্দেশ্য করে তৃণমূল নেত্রী বলেন, এখন যদি আমি বক্সিদাকে বলি বক্সিদা আমার সঙ্গে ঝগড়া করবেন। আমি ওঁদের বললাম ছেড়ে দিন না, কী দরকার? আমি তো এতদিন করলাম, আপনারা করুন, আমিই সবটা করে দেব। বলল, না হবে না। সবার জন্য এক ব্যক্তি এক পদ আর আমার জন্য বলবে চেয়ারম্যানও থাকতে হবে, আবার মুখ্যমন্ত্রীও থাকতে হবে। আমি বললাম কেন? আমার সঙ্গে এই বিভেদ কেন? সে ওঁরা শুনবে না। জিজ্ঞেস করুন সামনা-সামনিই বলছি। অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রীর কথায় স্পষ্ট ইঙ্গিত, ভোটের ফলাফলের পর তিনি মুখ্যমন্ত্রী হননি। দলের শীর্ষনেতাদের জোরাজুরিতেই তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী হতে হয়েছে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement