Dearness Allowance – পশ্চিমবঙ্গের বকেয়া DA নিয়ে বড় সুখবর। সরকারি কর্মীদের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন মুখ্যমন্ত্রী।

পশ্চিমবঙ্গের বকেয়া মহার্ঘ ভাতা (Dearness Allowance Employee Benefits) নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকারি কর্মীদের সংগঠন (WB Government Employees) ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির (CM Mamata Banerjee) মধ্যে আগামী মাসে অর্থাৎ জানুয়ারি ২০২৪ এর শুরুতেই এক জরুরি বৈঠক হতে চলেছে বলে কিছু সূত্র মারফৎ খবর পাওয়া যাচ্ছে।

Advertisement

West Bengal Dearness Allowance News.

বর্তমান সময়ে কেন্দ্র সরকারের কর্মীরা ৪৬ শতাংশ হারে মহার্ঘ ভাতা পান। অপরদিকে রাজ্য সরকারি কর্মীরা ৬ শতাংশ হারে Dearness Allowance পান। রাজ্যের কর্মীদের দাবি অনুসারে বকেয়া এখনও প্রায় ৪০%। এই কারণেই রাজ্য সরকারি কর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। ডিএ পাওয়ার দাবিতে তারা আমরণ সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে। ডিএ পাওয়ার জন্য কলকাতা হাইকোর্টে (Calcutta High Court) বিভিন্ন মামলা দায়ের করা হয়েছিল। তখন হাইকোর্ট রায় দিয়েছিল যে কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মীদের মতো রাজ্য সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা দিতে হবে। রায় জানার পর রাজ্য সরকার সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court Of India) দারস্থ হয়।

Advertisement

সুপ্রিম কোর্টে একের পর এক শুনানির তারিখ পেছানোর ফলে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের আশা ছেড়ে দিয়েছে অনেক সরকারি কর্মীরা। তবে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের দিন পেছালেও সরকারি কর্মীরা তাদের আন্দোলন জারি রেখেছে। আগে তাদের কর্ম বিরতি পালন করতে দেখা দিয়েছিল। এবার তারা রাজ্য সরকারকে সাঁড়াশি আক্রমণের পথে নেমেছে। জানুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে তারা সমস্ত সরকারি অফিস, স্কুল, কলেজ গুলি তিন দিনের জন্য বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়েছে Dearness Allowance বা বকেয়া ডিএ পাওয়ার দাবি অনুসারে।

তবে মনে করা হচ্ছে যে ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে 5% Dearness Allowance ঘোষণা করবে কেন্দ্র সরকার এবং রাজ্য সরকার। জানুয়ারি মাসে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে সরকারি কর্মচারীদের সঙ্গে বৈঠক হবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির। ওই অনুষ্ঠানে সেদিন হাজার হাজার সরকারি কর্মী উপস্থিত থাকবেন। এই সমস্ত মানুষের একটাই লক্ষ্য হলো মুখ্যমন্ত্রীর মুখ থেকে কি বার্তা প্রেরিত হয় সেটি শোনার। সভার মূল আকর্ষণ হল মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee).

Upper Primary Recruitment (উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ)

মনে করা হচ্ছে ঐদিন তিনি Dearness Allowance ঘোষণা করতে পারেন। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশনের চেয়ারম্যান মানস ভুঁইয়া বলেন, ‘‌জানুয়ারি মাসে আমরা সম্মেলন করতে চাই। তাই আমাদের প্রাণের চাহিদা মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতি। তিনি সময় দিলেই তারিখ ঠিক হবে। তাঁকে পাওয়াই আমাদের পরম সৌভাগ্য। এদিন আমরা তাঁর কাছে আমাদের সুবিধা অসুবিধার কথা তুলে ধরবো। আমরা আশায় রয়েছি।

Advertisement

আধার কার্ড নিয়ে বড় ঘোষণা মোদীর। দেশবাসী এটাই চাইছিল।

মানসবাবুর এই বক্তব্যের পরই নতুন করে আশাবাদী রাজ্য সরকারি কর্মীরা। তাদের একাংশের মত, বকেয়া ৪০% না হলেও নুন্যতম ৩ থেকে ৫% ডিএ তিনি জানুয়ারী থেকে ঘোষণা করতেই পারেন। তবে যতক্ষণ পর্যন্ত ঘোষণা না হয়, ততক্ষণ পর্যন্ত ভাবতে রাজি নয়, কর্মীদের অনেকেই।

এই সভাতে যাতে বহু সরকারি কর্মচারীরা উপস্থিত থাকেন সেই জন্য জেলায় প্রচার চালানো হচ্ছে। আগামী দিনের জন্য সরকারি কর্মচারীদের সংগঠনের অনেক পরিকল্পনা রয়েছে। আর এই সভাতে বকেয়া Dearness Allowance নিয়ে কিছু বড় ঘোষণা করা হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকেই। কারণ আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে সুপ্রিম কোর্টে এই মহার্ঘ ভাতা নিয়ে মামলার শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।
Written By Nupur Chattopadhyay.

পশ্চিমবঙ্গের বকেয়া ডিএ নিয়ে বড় খবর। আদালতের নির্দেশ! চলতি মাসেই

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

1 thought on “Dearness Allowance – পশ্চিমবঙ্গের বকেয়া DA নিয়ে বড় সুখবর। সরকারি কর্মীদের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন মুখ্যমন্ত্রী।”

  1. When market price has been rapidly increasing DA ought to be increasing so that the employees must not feel harassed. Even during the 43 famine the British government took measures to provide the government employees with rice and other facilities in Bengal. It is the convenience that has been still followed. The difference between DA in West Bengal government and in other governments both state and central is indeed an eyesore. So, it is time up now to change the attitude of the government. I, myself an old pensioner over 83, feel what others feel.

    Reply

Leave a Comment