LIC Loan Policy – সবচেয়ে কম সুদে লোন দিচ্ছে LIC. কিভাবে আবেদন করবেন জেনে নিন।

জীবনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য আমাদের লোনের প্রয়োজন পরে আর এই জন্য LIC Loan Policy বা ভারতীয় জীবন বীমা নিগমের তরফে এক অদ্বিতীয় লোন পলিসি নিয়ে আসা হয়েছে। প্রতিটি মানুষের জীবনে নানান ধরনের স্বপ্ন বা প্রয়োজন থাকে সেই স্বপ্ন গুলোকে পূরণ করার জন্য বিপুল পরিমাণ অর্থের অনেক সময় প্রয়োজন হয়। আবার অনেক সময় নিকট আত্মীয় পরিজনের বিবাহ, বা কোনো মানুষের চিকিৎসার খরচ জোগাতে আমাদের অনেকটা পরিমাণ টাকার প্রয়োজন হয়।

Advertisement

LIC Loan Policy With Minimum Interest Rate.

আর সেই টাকার জন্য ব্যাংক বা অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে লোন (LIC Loan Policy) নেওয়ার প্রয়োজন হয়। তবে জানেন কি এল আই সির পলিসি থেকেও লোন পাওয়া যায়। এলআইসি কিভাবে লোন দেয় সেই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণ পড়ুন। ব্যাংক বা অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে লোন নিতে গেলে মানুষকে অনেক স্টেপ বাই স্টেপ প্রসেসের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। এই প্রসেস গুলো মানুষের কাছে খুবই কঠিন কাজ বলে মনে হয়।

Advertisement

LIC Loan against policy

ব্যাংক বা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে লোন নিতে গেলে ব্যক্তিটির সিবিল স্কোর (Civil Score), ব্যাংক স্টেটমেন্ট চেক (Bank Statement Check) করা হয়। এক্ষেত্রেও যদি সিবিল স্কোর, ব্যাংক স্টেটমেন্ট ভালো না থাকে তাহলে লোন পাওয়া ঝামেলার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। লোনের ক্ষেত্রে ব্যাংক বা অন্যান্য প্রতিষ্ঠান গুলি অনেকটা কর চাপিয়ে নেয়। কিন্তু ভারতের সর্ববৃহৎ বীমা সংস্থা এলআইসি (LIC Loan Policy) কাছ থেকে লোনের ক্ষেত্রে এই সমস্ত সমস্যার মুখোমুখি সাধারণ মানুষকে হতে হয় না। আবার এলআইসি লোনের ক্ষেত্রে সুদও কম নেয়।

এলআইসির কাছ থেকে লোন তথা LIC Loan নিতে গেলে কোনো সিবিল স্কোর (CIBIL Score) বা ব্যাংক স্টেটমেন্টের প্রয়োজন নেই। আবার গ্যারেন্টার হিসেবে কোনো ব্যক্তিকেও দেখাতে হয় না। বর্তমান সময়ে প্রতিটি মানুষের এলআইসির একটি পলিসি (LIC Loan Policy) করা হয়ে থাকে। ওই পলিসিটি জমা রেখে এলআইসি থেকে লোন নেওয়া যায়। এলআইসির কাছে গ্যারেন্টার হিসেবে ওই পলিসিটি রাখা থাকবে। এলআইসি থেকে লোনের (LIC Loan Policy) ক্ষেত্রে কোনো যোগ্যতার প্রয়োজন হয় না।

Primary TET Exam (প্রাথমিক টেট পরীক্ষা)

এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে যে ব্যক্তির নামে লোনটি নেওয়া হচ্ছে তার বয়স যেন ১৮ বছরের উর্ধ্বে হয়। আর যে এলআইসি পলিসিটি জমা রেখে লোন নেওয়া হবে সেই এলআইসির পলিসিটি (LIC Loan Policy) যেন তিন বছরের পুরনো হয়। LIC পলিসির সারেন্ডার ভ্যালুর উপর নির্ভর করে লোন দেয়। যদি কোনো ব্যক্তি পলিসিটির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই পলিসিটি বন্ধ করে দেয় তখন এই বীমা কোম্পানি একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ অংকের টাকা পলিসি হোল্ডারকে ফেরত দেয় এই নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকার অংকটিকে সারেন্ডার ভ্যালু বলা হয়।

Advertisement

লটারি জেতার নতুন উপায়। এইভাবে লটারির টিকিট কিনুন। আর জাদু দেখুন।

LIC Loan interest rate

পলিসিটির ৯০% টাকা পর্যন্ত লোন নিতে পারা যায়। আর লোনের টাকার উপর ১০% থেকে ১৩% সুদ দিতে হবে। এলআইসির কাছে থেকে লোন নেওয়ার সব থেকে বড় সুবিধা হল এখানে EMI এর মাধ্যমে অর্থ পরিশোধ করতে হয় না। নিজের সময় মত অর্থ পরিশোধ করার নিয়ম আছে। আর যদি অর্থপরিশোধ করতে না পারা যায় সে ক্ষেত্রে পলিসির (LIC Loan Policy) যখন মেয়াদ শেষ হবে তখন লোনের টাকা এবং সুদের টাকা কেটে অবশিষ্ট অংশ পলিসি হোল্ডারকে ফেরত দেওয়া হয়।
Written By Nupur Chattopadhyay.

প্রতিদিন মাত্র 4 ঘন্টা কাজ করলে LIC দেবে মাসে 20 হাজার টাকা। আজই আবেদন করুন।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment