কৃষক বন্ধু প্রকল্প ও লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা কবে ঢুকবে, নতুন লিস্ট দেখে নিন। Krishak Bandhu Payment Date 2023.

কৃষক বন্ধু প্রকল্প ও লক্ষ্মীর ভান্ডারঃ

রাজ্যের কৃষক ও ভাগচাষী ও মহিলাদেরদের জন্য রাজ্য সরকারের অন্যতম প্রকল্প কৃষক বন্ধু প্রকল্প ও বাংলা শস্যবীমা, লক্ষ্মীর ভান্ডার পশ্চিমবঙ্গ তথা সারা দেশে নজর কেড়েছে। আর পরের কিস্তির টাকা কবে একাউন্টে ঢুকবে, বাংলার মা বোনেরা ও কৃষক বন্ধুদের জন্য সেই আপডেট নিয়ে আজকের প্রতিবেদন।

Advertisement

আর বেশি দেরি নেই পঞ্চায়েত ভোটের। ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, এপ্রিল জুড়ে দুয়ারে সরকার চলার সময় যে সমস্ত আবেদন জমা পড়েছে, সেই সমস্ত আবেদনের নিষ্পত্তি করতে হবে আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে। বেশ কিছু প্রকল্পের কাজ বাকি রয়েছে তা সম্পূর্ণ করতে হবে ৩০ এপ্রিলের মধ্যে। ভোট ঘোষণা হয়ে গেলে আর কিছু করা যাবেনা। তার আগে টাকা ঢোকানোর ব্যাবস্থা করতে হবে।

Advertisement

লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা কবে ঢুকবে?

এদিকে লক্ষীর ভান্ডার সহ বেশ কিছু প্রকল্পের টাকা এখনো পর্যন্ত উপভোক্তাদের ব্যাংক একাউন্টে ঢোকেনি। এর কারণ হিসেবে জানা যাচ্ছে, ব্যাংকের সংযুক্তিকরণের জন্য বেশ কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে। আর সেই কারণে রাজ্য সরকারের তরফে পঞ্চায়েত ভোটের আগে একেবারেই তড়িঘড়ি নির্দেশ জারি করা হয়েছে। আগামী ২০ এপ্রিলের মধ্যে লক্ষ্মীর ভান্ডারসহ সমস্ত প্রকল্পের ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি টাকা যেন পৌঁছে যায়।

মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় 60% নম্বর পেলেই সরকার দেবে 24000 টাকা, আগে

২৬ এপ্রিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশাসনিক রিভিউ মিটিং রয়েছে। অনুমান করা হচ্ছে, এর পরেই পঞ্চায়েত নির্বাচনের (Panchayat Election Notification) দিনক্ষণ ঘোষণা হয়ে যেতে পারে। দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে কৃষক বন্ধু প্রকল্পের আবেদন জমা নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যেই রবি মরসুমের চাষের জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের চাষীদের আর্থিক সহায়তা ব্যাংক একাউন্টে পৌঁছে দিয়েছেন। এবার জানা যাচ্ছে, খারিফ মরসুমের চাষের জন্য কৃষকেরা খুব শিগগির তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পেয়ে যেতে পারেন। এই বিষয়ে কৃষক বন্ধুর ওয়েবসাইটে গেলে দেখা যাবে নতুন আপডেট। কি সেই আপডেট? (New Update Krishok Bandhu Scheme)

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের স্ট্যাটাস?

কৃষক বন্ধু প্রকল্পে যারা আবেদন করেছিলেন, তাদের আবেদন স্ট্যাটাস চেক (Application Status Check) করলেই দেখতে পাবেন একাউন্ট ভ্যালিড Account Valid বলে দেখাচ্ছে। একাউন্ট ভ্যালিড বলে যে সমস্ত আবেদনের স্ট্যাটাস দেখা যাচ্ছে, সেগুলি হচ্ছে ব্যাংক একাউন্টে টাকা ঢোকার প্রথম ধাপ। অর্থাৎ এরপরেই সংশ্লিষ্ট কৃষক এর ব্যাংক একাউন্টে টাকা পৌঁছে যায়।

Advertisement

কৃষক বন্ধুর টাকা কবে পাবেন?

মনে করা হচ্ছে, মে মাসের মধ্যেই খারিফ মরশুমের চাষের জন্য কৃষকদের ব্যাংক একাউন্টে টাকা ঢুকে যেতে চলেছে। রাজ্য সরকার রবি এবং খারিফ এই দুই মরশুমে চাষের জন্য ৪ হাজার টাকা থেকে ১০০০০ টাকা পর্যন্ত কৃষকদের আর্থিক সহায়তা দিয়ে থাকে। সম্প্রতি রবি মরসুমের চাষের টাকা দিয়ে দেওয়া হয়েছে। এক একরের নিচে জমি থাকলে সেই কৃষক পান ৪ হাজার টাকা। আর এক একরের বেশি জমি থাকলে তিনি ১০হাজার টাকা পর্যন্ত পান।

রাজ্যের বেকার যুবক যুবতীদের নিজের পায়ে দাঁড়ানোর বিরাট সুযোগ, কিভাবে পাবেন এই সাহায্য

অক্টোবর থেকে মার্চ মাসের মধ্যে রবি মরসুমের টাকা দেওয়া হয়ে থাকে। আর এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে দেওয়া হয় খারিফ মরসুমের টাকা। ফলে যারা কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করেছেন, তাদের জন্য নতুন আপডেট। এক্ষুনি স্ট্যাটাস চেক করে দেখুন, যদি Account Valid দেখায় তাহলে জানবেন দিন কয়েকের মধ্যেই আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পৌঁছে যেতে পারে। যদিও রাজ্য সরকারের তরফে অফিশিয়ালি এই বিষয়ে কোনো ঘোষণা করা হয়নি। তবে সমস্ত প্রক্রিয়া দেখে মনে করা হচ্ছে, খুব শিগগির কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা কৃষকদের ব্যাংক একাউন্টে পৌঁছে যেতে চলেছে।
Written by Rajib Ghosh.

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment