Post Office Scheme – পোস্ট অফিসে টাকা রাখার নিয়ম বদল। নতুন পুরনো সব গ্রাহকদের মানতে হবে।

Post Office Scheme বা পোস্ট অফিসের স্কিম আমাদের দেশে খুবই প্রচলিত। আর আমরা অনেকেই শুনে এসেছি যে পোস্ট অফিসে (Post Office) টাকা বিনিয়োগ (Investment) করলে খুব কম সময়েই ডবল রিটার্ন পাওয়া যায়। আমাদের মধ্যে অনেক মানুষই পোস্ট অফিসে তাদের একাউন্ট খোলেন। পোস্ট অফিসে রয়েছে বিভিন্ন সুবিধা জনক স্কিম যেমন সেভিংস একাউন্ট, সুকন্যা সমৃদ্ধি (Sukanya Samriddhi Yojana), কিষাণ বিকাশ (Kisan Vikas Patra), মহিলা সম্মান সার্টিফিকেট (Mahila Samman Savings Scheme), পোস্ট অফিস টাইম ডিপোজিট (Time Deposit), সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস (Senior Citizen Savings Scheme) ও আরো অনেক।

Advertisement

Post Office Scheme Investment New Rule.

যেহেতু ব্যাংকের (Bank) তুলনায় পোস্ট অফিসের এই প্ল্যান গুলিতে সুদ অনেক বেশি হারে পাওয়া যায় এবং এখানে অন্যান্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ সুবিধাও রয়েছে তাই স্বাভাবিকভাবেই মানুষ পোস্ট অফিসকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকে এক্ষেত্রে। এবার কেন্দ্রীয় সরকার (Government Of India) মারফত পোস্ট অফিসের এই স্কিম গুলির (Post Office Scheme) মধ্যে বিশেষ ৪ টি স্কিমে কিছু বিরাট পরিবর্তন আনা হয়েছে। এরপর থেকে পোস্ট অফিসে টাকা রাখা সুবিধাজনক না অসুবিধার হতে চলেছে জেনে নিন।

Advertisement

গত ২০২৩ সালে ভারতীয় অর্থ মন্ত্রক (Finance Ministry Of India) একটি বিশেষ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ডাক বিভাগের (Post Office) সম্বন্ধে। এই বিজ্ঞপ্তিতেই উল্লেখ করা হয় কোন কোন ক্ষেত্রে পরিবর্তন আসবে এবং কি কি পরিবর্তন হবে। আপনার যদি পোস্ট অফিসে একাউন্ট (Post Office Account) থাকে এবং টাকা বিনিয়োগ করে থাকেন তবে বিষয়টি জেনে নেওয়া অত্যন্ত জরুরী (Post Office Scheme). কি কি পরিবর্তন হয়েছে?

Post Office Fixed Deposit

পোস্ট অফিসে সাধারণ সেভিংস একাউন্ট স্কিমে বিনিয়োগ (Post Office Scheme) করলে ৪ শতাংশ সুদ দেওয়া হয়। কিন্তু নতুন নিয়মে বলা হয়েছে, এরপর থেকে যে সকল বিনিয়োগকারীরা পোস্ট অফিসে ৫ বছরের জন্য ফিক্সড ডিপোজিট (Fixed Deposit) করবেন কিন্তু চার বছরের মধ্যে অর্থ তুলে নেবেন, তাদের সুদ দেওয়া হবে সাধারণ সেভিংস একাউন্টের (Post Office Scheme) মতো ৪ শতাংশ।

Senior Citizen Saving Scheme

একজন ব্যক্তি যিনি ৫৫ বছর বয়সসীমা অতিক্রম করেছেন এবং ৬০ বছর বয়সসীমার নিচে রয়েছেন তিনি এই স্কিমে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। এক্ষেত্রে সিঙ্গেল এবং জয়েন্ট দু ধরনের একাউন্টই খোলা যাবে। ১০০০ টাকার গুণিতকে অর্থ বিনিয়োগ করা যেতে পারে। এই Post Office Scheme বিনিয়োগের মূল্যের ঊর্ধ্বসীমা আগে ছিল ১৫ লক্ষ টাকা। কিন্তু নতুন নিয়মে তা বাড়িয়ে ৩০ লক্ষ করা হয়েছে।

Advertisement

এখানে ৫ বছর এবং ৩ বছর দুটি মেয়াদে অর্থ বিনিয়োগ করতে পারেন আপনি, সুদের হার ৮.২%। এই Post Office Scheme টাকা রেখে যদি এক বছর পূরণ হওয়ার আগেই তুলে নেওয়া হয় তাহলে এক শতাংশ কেটে নেওয়া হবে। আবার যদি কেউ জমা রাখা টাকার মেয়াদ বৃদ্ধি করেন তাহলেও তিনি আগের রেটেই সুদ (Post Office Interest Rate) পাবেন।

RBI Bonds (রিজার্ভ ব্যাংকের বন্ড)

Mahila Samman Savings Certificate

এই স্কিমটি চালু করা হয় ২০২৩ সালের অর্থ বছরের বাজেট (Union Budget) প্রকাশ করার পর থেকে। এই Post Office Scheme মাধ্যমে সর্বনিম্ন ২ বছরের মেয়াদের জন্য টাকা বিনিয়োগ করা যেতে পারে যে কোন কন্যা সন্তান বা মহিলার নামে। সর্বাধিক বিনিয়োগের মূল্য সীমা হল ২ লক্ষ টাকা। সুদের হার 7.5 শতাংশ। সম্প্রতি এই স্কিমেও বিরাট বদলের কথা জানিয়েছে ডাক বিভাগ।

মাত্র 25000 টাকা বেতন হলে, অবসরের পর 1.75 কোটি টাকা পাবেন। বেতন বেশি হলে আরো বেশি।

Post Office MIS

এই Post Office Scheme এখন বিনিয়োগকারীরা ব্যক্তিগতভাবে ৪ থেকে ৯ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারবেন। আবার যাদের জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট থাকবে তারা ৯ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারবেন। এছাড়া আগের মতই টাকা ১,২,৩,৪,৫ বছরের জন্য জমা রাখা যাবে। সুদ পাবেন ৭.৪ শতাংশ। আর মান্থলি ইনকাম স্কিম হল দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্কিমের মধ্যে অন্যতম।
Written by Nabadip Saha.

ট্যাক্স বাঁচানোর বিরাট সুযোগ এই 3 টি কাজের মাধ্যমে! ক্লেম না করলেই

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment