বিনামূল্যে ট্রেনিং দিয়ে, কর্মসংস্থানের বিরাট সুযোগ, ট্রেনিং কালীন মাসে 5000 টাকা করে দেবে, তারপর চাকরি।

বেহাল অর্থনৈতিক অবস্থা দেশজুড়ে। এই পরিস্থিতিতে বহু মানুষ কাজ হারিয়েছেন। কর্মসংস্থানের অভাবে বেকারত্ব দিন দিন বেড়েই চলেছে। এই পরিস্থিতির মধ্যে সরকারের তরফে বিভিন্ন ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়িত করার চেষ্টা হচ্ছে। যার মাধ্যমে অন্তত মানুষ কর্মসংস্থানের বন্দোবস্ত করতে পারেন। রাজ্য সরকারের তরফে বিভিন্ন জেলায় শিল্প মেলার আয়োজন করা হচ্ছে। এই সমস্ত শিল্প মেলায় প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শিক্ষানবিশরা সরাসরি একাধিক বেসরকারি সংস্থায় চাকরির সুযোগ পাবেন।

Advertisement

বাংলায় কর্মসংস্থানের সুযোগঃ

রাজ্য সরকারের অধীনে কর্মসংস্থান ও কারিগরি শিক্ষা দপ্তরের উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্পের আওতায় রাজ্যের সরকারি কলেজ থেকে আইটিআই, পলিটেকনিক কোর্স পাশ করার পরে বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থাতেও নিয়োগের সুযোগ রয়েছে। রাজ্য সরকারের তরফে বেকার যুবক-যুবতীদের যেমন স্টুডেন্টস ইন্টার্নশিপ দেওয়ার জন্য প্রকল্প তৈরি করা হয়েছে, ঠিক সেই প্রকল্পের অধীনে তারা বিনামূল্যে প্রশিক্ষণের সুযোগ পাবেন।

Advertisement

এমনকি ওই প্রশিক্ষণ চলাকালীন বেকার যুবক-যুবতীরা মাসিক ভাতাও পাবেন। এই প্রশিক্ষণের শেষে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরে নিয়োগের সুযোগ থাকছে। এবার জেনে নেওয়া যাক রাজ্য সরকারের স্টুডেন্টস ইন্টার্নশিপ প্রকল্পের বিস্তারিত:

এই প্রকল্পে প্রশিক্ষণ চলাকালীন পড়ুয়াকে প্রতি মাসে ৫০০০ টাকা ভাতা দেওয়া হবে।
এই প্রকল্পে নাম নথিভুক্তের জন্য কোনরকম আবেদন ফি নেই।
আবেদনকারীকে গ্রাজুয়েশনে ৬০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে।
১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সী বেকার যুবক-যুবতীরা এই প্রকল্পে নথিভুক্ত হতে পারবেন।

8 টি প্রকল্পের টাকা পঞ্চায়েত ভোটের আগেই একাউন্টে ঢোকানোর নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর।

প্রকল্পের শেষে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে নিয়োগের সুযোগ রয়েছে।
প্রশিক্ষণ শেষে প্রত্যেককে সার্টিফিকেট দেওয়া হবে।
প্রতিবছরে ৬০০০ বেকার যুবক যুবতী এই প্রকল্পের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন।
Written by Rajib Ghosh.

Advertisement

সরকারী প্রকল্পের টাকা পেতে, আর নয় আধার, করতে হবে ফ্যামিলি আইডি কার্ড, এক পরিবার এক কার্ড।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment