ব্যাংক কর্মীদের মাথায় হাত। Zero Interest Loan বন্ধ হয়ে গেল। এবার থেকে বেশি Tax দিতে হবে

দেশের সমস্ত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের কর্মীদের জন্য দুঃসংবাদ। এবার থেকে Zero Interest Loan বা Interest-free Loan বা স্বল্প সুদে লোন বা Low interest Loan Facility এর সুবিধা বন্ধ হয়ে গেল তাদের। দেশের শীর্ষ আদালত সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court Of India) সম্প্রতি রায় দিয়ে এই বিষয়টিকে স্পষ্ট করেছে। দেশের যে কোন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের কর্মীদের (Government Bank Employees) জন্য একটি বিশেষ সুবিধা চালু থাকত এতদিন।

Advertisement

Interest-Free Loan or Zero Interest Loan for Bank Employees.

ব্যাংকের গ্রাহকরা লোন নিলে যে সুদে তাদেরকে ব্যাংক থেকে লোন দেওয়া হতো, তার চেয়ে কম সুদে (Low interest Loan) এবং Zero Interest Loan বা বিনা সুদে লোন পেতেন সেই ব্যাংকের কর্মীরা। আবার কখনো কখনো বিনা সুদে বা জিরো ইন্টারেস্টেও এই লোন দেওয়া হতো তাদের। কিন্তু এবার থেকে সেই সুবিধা বন্ধ করা হবে বলে জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। ব্যাংক কর্মীরা বিনা সুদে বা স্বল্প সুদে যে লোন (Loan Interest Rate) পাবেন তার জন্য নির্দিষ্ট কর দিতে হবে তাদের ব্যাংক কে।

Advertisement

Zero interest Loan Facility

আর লোন পাওয়ার জন্য গ্রাহকদের মতোই নির্দিষ্ট প্রক্রিয়াও ফলো করতে হবে এরপর থেকে। ফলে আর কোন বাড়তি সুবিধা পাচ্ছেন না তারা। যা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যের কারণ। ব্যাংকের কর্মীদের Zero Interest Loan ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধাকে কেন্দ্র করে মামলা ওঠে সুপ্রিম কোর্টে। কেবল ব্যাংকের কর্মী বলে তাদেরকে এতটা সুবিধা দেওয়া? অন্যদিকে যারা সাধারণ গ্রাহক তাদের চড়া সুদে লোন নিতে হবে!

এই পক্ষপাতিত্ব কেন? তাই সব দিক বিবেচনা করে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব খান্না এবং বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তের ডিভিশন বেঞ্চ সেই Zero Interest Loan সুবিধাকে বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেয়। বলা হয় এরপর থেকে জিরো বা লো ইন্টারেস্ট লোন নিলে সেই কর্মীকে তার জন্য নির্দিষ্ট কর দিতে হবে। কারণ, কোর্ট মনে করে যে সরকারের কর্মী হিসেবে তারা বেতন ও অন্যান্য সুবিধা তো পান, তার সঙ্গে এই নিয়ম এতদিন পক্ষপাতিত্ব করতো তাদের।

Bank Loan বা একাধিক ধরনের ব্যাংক ঋণ বা ধার

যা, বন্ধ হওয়া উচিত। কিন্তু এই নিয়ে শুরু হয় গোলযোগ। আদালতের সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে পুনরায় কোর্টে আপিল করে অল ইন্ডিয়া ব্যাংক অফিসার্স ফেডারেশন। তারা মনে করেন ব্যাংক কর্মী হওয়ার দরুন এই সুবিধা তাদের পাওয়া উচিত। তাই তা কেড়ে নিয়ে অন্যায় করছে কোর্ট। তবে শেষ পর্যন্ত এর পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্ট বলে বিষয়টি আয়কর আইনের ১৭ (২) (৮) নম্বর ধারা এবং আয়কর নিয়মের ৩ (৭) (১) নম্বর ধারার বিরুদ্ধে।

Advertisement

5 লাখ টাকা দিচ্ছে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক। সঠিক আবেদন করলেই একাউন্টে টাকা ঢুকবে?

কর্মীরা যা সুবিধা পান তার সঙ্গে Zero Interest Loan উপরি পাওনা। যার কোন মানেই নেই। তাই এরপর থেকে এই সুবিধা কে কর যোগ্য (Taxable) বলে বিবেচনা করা হবে। ফলে আর কোন ব্যাংক কর্মী বিনা সুদে লোন বা Zero Interest Loan নিয়ে টাকা বাঁচাতে পারবেন না এরপর থেকে। এই সুবিধা হাতছাড়া হওয়ার পর থেকেই খুবই সমস্যায় পড়বেন বলে মনে করছেন ব্যাংক কর্মীরা।
Written by Nabadip Saha.

Savings Account থাকলেই পাবেন Fixed Deposit এর সমান সুবিধা! মধ্যবিত্তের জন্য দারুণ খবর

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment