Advertisement
নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেশ কিছুটা কমানো হয়েছে
Advertisement

লাগামছাড়া মূল্যবৃদ্ধির বাজারে একটুখানি স্বস্তি। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেশ কিছুটা কমানো হয়েছে। ফলে একটু স্বস্তি পেতে পারেন দেশবাসী। তবে এটাও মনে রাখতে হবে, এই স্বস্তি কত দিন চলবে, তা নির্দিষ্ট করে বলা সম্ভব নয়। এবার কি কারনে, কোন জিনিসের উপর, কতখানি দাম কমতে চলেছে, সেই বিষয়টি একটু বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

Advertisement

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দামঃ

উৎসবের মরশুমে কোন কোন সাবানের দাম কমল,এক নজরে দেখে নিন:
যে FMCG নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম কমতে চলেছে সেটি হল সাবান (Soap) দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য মানুষ যে সাবান ব্যবহার করেন তার দাম বেশ কিছুটা কমতে চলেছে।

Price Cut of Soap:
এফএমসিজি কোম্পানি হিন্দুস্তান ইউনিলিভার লিমিটেড (HUL) এবং গোদরেজ কনজিউমার প্রোডাক্টস লিমিটেড (GCPL) যে সমস্ত সাবান তৈরি করে তার উপরে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত দাম কমিয়ে দিয়েছে।
HUL পশ্চিমাঞ্চলে লাইফবয় এবং লাক্স সাবানের দাম ৫ থেকে ১১ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে দিয়েছে। পাশাপাশি GCPL তাদের উৎপাদিত সাবানের দাম ১৩ থেকে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে দিয়েছে।

Advertisement

HUL কি বলছে:
হিন্দুস্তান ইউনিলিভার লিমিটেড এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, লাইফবয় এবং লাক্স সাবানের দাম পশ্চিমাঞ্চলে অনেকটাই কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে সংস্কার তৈরি RIN, Wheel, Surf এবং Dove-এর মত প্রোডাক্টের দাম কমানো হয়নি। এডেলউইস ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস এর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, মূল্যবৃদ্ধির কারণে এক বছর ধরে HUL- এর বিক্রি ভালো হচ্ছে না। এবার দাম কমানো হলে সেই বিক্রি অনেকটাই বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

GCPL কি বলছে:
গোদরেজের তৈরি প্রোডাক্টসের দাম কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। সে ক্ষেত্রে জি সি পি এল বলছে, তারাই প্রথম FMCG কোম্পানি যারা সরাসরি উপভোক্তার কাছে এই সুবিধা পৌঁছে দিয়েছে। ১৩ থেকে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত দাম কমিয়ে দেওয়া হয়েছে উৎপাদিত সাবানের উপরে। সেক্ষেত্রে গোদরেজ নম্বর 1 সাবানের ৫টি প্যাকের দাম ১৪০ টাকা থেকে কমিয়ে ১২০ টাকা করা হয়েছে। এর ফলে বিক্রি অনেকটাই বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

EK24 News

অনলাইনে মাত্র 75 টাকা রিচার্জেই 2GB ডেটা ও আনলিমিটেড কল, দিওয়ালীর নতুন অফারে

ভোজ্য তেলঃ
মাদার ডেয়ারি একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে ধারা ব্র্যান্ডের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম ১৫ টাকা পর্যন্ত প্রতি লিটারে কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। আগে তাদের এমআরপি ছিল ২০৫ টাকা, যার এখন দাম ১৯৫ টাকা। অপর দিকে প্রতিযোগী কোম্পানি ফরচুন রিফাইন সানফ্লাওয়ার তেল ১ লিটার প্যাকেটে এমআরপি ২২০ টাকা থেকে কমিয়ে ২১০ টাকা করা হয়েছে।

Advertisement

অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা কি বলছেন:
এই বিষয়ে অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, সারা বিশ্বজুড়ে পাম তেল এবং অন্যান্য কাঁচামালের দাম কমার কারণেই সাবানের দাম কমানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে আগামী দিনে অপরিশোধিত তেলের দাম যদি বেড়ে যায় তাহলে এই দাম ফের বৃদ্ধি পাবে।

ট্রেনের টিকিটে আচমকা ভাড়া বৃদ্ধিতে ক্ষুব্ধ যাত্রীদের রেল অবরোধ! কত বাড়লো বিশদে জানুন।

আবার পরিবহন ক্ষেত্রে মূল্যবৃদ্ধির কারণেও প্রোডাক্টের দাম বেড়ে যেতে পারে। চড়া মূল্যবৃদ্ধির জন্য ব্যবসা অনেকটাই দুর্বল হয়েছে। তাই এই মুহূর্তে দাম কমানোর ফলে কিছুটা হলেও ব্যবসা বৃদ্ধি পাবে বলেই মনে করা হচ্ছে। সুতরাং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বাস্তবে স্থায়ী ভাবে কমাতে হলে সামগ্রিক মূল্যবৃদ্ধির সূচক কমাতে হবে। এই ব্যাপারে আপনার মূল্যবান মতামত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।
Written by Rajib Ghosh.

Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement