Driving License – মাত্র 4 ঘন্টায় পাবেন ঘরে বসে ড্রাইভিং লাইসেন্স, সহজ পদ্ধতি শিখে নিন।

মোটর চালিত যেকোনো গাড়ি চালাতে Driving License বাধ্যতামূলক। তবে অনেকের অফিসে গিয়ে ড্রাইভিং লাইসেন্স করার সময় হয়ে ওঠে না, কিম্বা অনেকেই দূরে থাকেন, তাদের জন্য Driving License করার একটি সহজ পদ্ধতি নিয়ে আজকের প্রতিবেদন।

Advertisement

গাড়ি কেনার মতো শখ প্রত্যেকেরই আছে। সকলেরই নিজের শখের লিস্টে বেশ প্রথমের দিকে গাড়ি থাকেই। কিন্তু এই গাড়ি কেনার ঝামেলার জন্য অনেকেই এড়াতে চায়। গাড়ি শুধু চালাতে জানলেই হয়না, সময়সাপেক্ষ জিনিস গাড়ির কাগজ। গাড়ি কেনার মতো ইনভেস্টমেন্ট লোকে করতে চায়না আরও কিছু কারণে যেমন ধরুন এই বছর আপনি দশ লাখ আর্থিক মূল্যে কিনলেন কিছু বছর পর সেই মূল্য কমবেই।

Advertisement

গাড়ি কেনার সাথে সবথেকে জরুরি ব্যাপার Driving License. কিন্তু এই ড্রাইভিং লাইসেন্স করাটা বেশ অনেক সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। টেস্ট দেওয়ার পরও কবে পাওয়া যাবে কেউ জানেনা। এই সমস্যা সমাধানে রাজ্য সরকারের পরিবহণ দপ্তর এগিয়ে এসেছে যাত্রী সুবিধায়। এদিনই হাওড়ার সাঁতরাগাছি বাস টার্মিনাসে পাইলট প্রজেক্টের শুরু করলেন।

Online Driving License:

রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে ড্রাইভিং লাইসেন্স এবার বাড়ির দরজায় পৌঁছে দেওয়া হবে । অনলাইনেই করা যাবে আবেদন। টেস্ট দেওয়ার চার দিনের মধ্যেই হাতে রেজাল্ট পাওয়া যাবে। আবেদন ও অনলাইনে করতে পারবেন গাড়ির মালিক। সরকারের তরফে শুধু লাইসেন্স দেওয়ার ব্যাপারে উদ্যোগী হয়নি গাড়ির ফ্যান্সির নাম্বারও দেবে। এই ব্যাপারে পরিবহণ দপ্তর এক নিয়ম চালু করেছে নিলামে যে দাম বেশি দেবে সেই ই নাম্বার কিন্তু আগে পাবে। লাইসেন্স পাওয়ার সময়ের সমস্যার থেকে অনেকের মুক্তি বলেই ভাবা হচ্ছে।

পেট্রোল-ডিজেল দাম বৃদ্ধিতে চরম অস্বস্তিতে জনগণ! কত হলো দাম, জেনে নিন।

এদিন সাঁতরাগাছি বাস টার্মিনাসে Driving License এর পাইলট প্রোজেক্ট উদ্বোধনের পর, রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী জানান, ড্রাইভিং লাইন্সেসের জন্য় এবার থেকে আবেদন করতে হবে অনলাইনে। এরপর নির্দিষ্ট দিনে ড্রাইভিং পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে আবেদনকারীকে।

Advertisement

লটারি জেতার গোপন সুত্র, নতুন কৌশলে টিকিট কাটুন, কোটি টাকা ঘরে আনুন।

পরীক্ষার দেওয়ার ৪ ঘন্টার মধ্যেই লাইসেন্সের কপি চলে আসবে চালকের মোবাইলে। ফলে গাড়ি চালাতে কোনও সমস্যা হবে না। এরপর Driving License প্রিন্ট গয়ে গেলেই বাড়িতে লাইসেন্সের স্মার্টকার্ড পৌঁছে দেবে পরিবহণ দফতর। আর মোবাইলে লাইসেন্স এর কপি থাকলেও সেটাও গ্রহণযোগ্য হবে।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment