Advertisement
Group D Recruitment Scam
Advertisement

Group D Recruitment Scam – দুর্নীতির তালিকায় নয়া সংযোজন! গ্রুপ ডি নিয়োগেও দুর্নীতির অভিযোগ।

ED হেফাজতে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী (Group D Recruitment Scam) এবং বর্তমান শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। আদালতের নির্দেশে ইতিমধ্যেই পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ভুবনেশ্বর এইমসে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তার সঙ্গে একজন চিকিৎসক এবং আইনজীবী গিয়েছেন বলেই জানা গিয়েছে।

Advertisement

গ্রেফতার হওয়ার পর এসএস কেএমে তাকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হলেও অসন্তোষ প্রকাশ করে ED তারপরেই হাইকোর্টে আবেদন করে এই বক্তব্য পেশ করা হয় ED-র তরফ থেকে। হাইকোর্ট নির্দেশ দেয়, SSKM নয়, ভুবনেশ্বরে AIIMS-এ পার্থকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যেতে হবে। তবে চিকিৎসা সংক্রান্ত যাবতীয় রিপোর্ট আদালতের কাছে জানাতে হবে।

স্কুল শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে (Teachers Recruitment Scam) তদন্ত করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। ED-র তরফে রাজ্যের 14 জায়গায় একযোগে তল্লাশি চালানো হয়। সেই সময়েই পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তার ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতেও তল্লাশি চলে

Advertisement

সেখান থেকেই উদ্ধার হয় 21 কোটি নগদ টাকা, 79 লক্ষ টাকা মূল্যের অলংকার এবং পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে বহু গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় রাজ্য জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

মাত্র 299 টাকায় পাবেন 10 লক্ষ টাকার সুবিধা, পোস্ট অফিসের সেরা স্কীম।

তবে এর মধ্যেই ED-র তরফে জানানো হয়েছে, শুধুমাত্র স্কুল শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি নয়, 2016 সালে গ্রুপ ডি স্টাফ নিয়োগকে কেন্দ্র করেও দুর্নীতির (Group D Recruitment Scam) প্রমাণ আসছে। উদ্ধার করা হয়েছে গ্রুপ ডি স্টাফ নিয়োগের অ্যাডমিট কার্ড, পরীক্ষার রেজাল্ট সহ একাধিক নথিপত্র।

EK24 News

প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক অনন্তদেব অধিকারীর লেটার প্যাড পাওয়া গিয়েছে। যে লেটারপ‍্যাডে আবার গ্রুপ ডি স্টাফ হিসেবে চাকরিতে (Group D Recruitment Scam) নিয়োগের বেশ কয়েকজনের নাম রয়েছে বলে সূত্র মারফত পাওয়া খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে।

Advertisement

ফলে এসএসসির মাধ্যমে শুধু শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নয়, তার সঙ্গে এবার গ্রুপ সি এবং গ্রুপ ডি নিয়োগে দুর্নীতি (Group D Recruitment Scam) হয়েছে বলেই অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে এবং সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। ফলে এবার গ্রুপ ডি স্টাফ নিয়োগের বিষয়টি সামনে আসার ফলে একাধিক প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

যদিও তৃণমূল কংগ্রেস দলীয়ভাবে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের হয়ে রাস্তায় নামেনি। দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যদি আদালত দোষী সাব্যস্ত করে তাহলে পদক্ষেপ (Group D Recruitment Scam) গ্রহণ করা হবে। ফলে এবার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ, SSC-র মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগ এর সঙ্গে গ্রুপ সি এবং গ্রুপ ডি নিয়োগের দুর্নীতির (Group D Recruitment Scam) অভিযোগও সামনে আসতে শুরু করেছে।
Written by Rajib Ghosh.

এই কাজ না করলে, আগষ্ট মাস থেকে রেশন সামগ্রী তুলতে পারবেন না, জলদি দেখুন।

Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement